Scores

‘ম্যাকক্লেনাগান এবং মুস্তাফিজের মধ্যে মুস্তাফিজই আদর্শ চয়েজ’

মঙ্গলবার রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালোরের কাছে ১৪ রানে হেরে শেষ হয়ে গেছে আইপিএলের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের এবারের আইপিএল স্বপ্ন। ম্যাচে বাংলাদেশি ক্রিকেটার মুস্তাফিজুর রহমানকে একাদশে নেয়নি মুম্বাই। এ নিয়ে ম্যাচ শেষে দেখা গেছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।

মুস্তাফিজের উইকেট উদযাপন।

ভারতের জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার ও সাবেক ক্রিকেটার সঞ্জয় মাঞ্জরেকারের মতে, মুস্তাফিজকে একাদশে না নেওয়ায়ই পরাজয় বরণ করে নিতে হয়েছে মুম্বাইকে। তার মতে, এমন উইকেটে অনেক কার্যকরী হতে পারতেন ‘কাটার মাস্টার’ খ্যাত মুস্তাফিজ।

Also Read - আইপিএল শেষ হওয়ার আগেই মুম্বাই ছাড়ছেন মালিঙ্গা?


মাঞ্জরেকার বলেন-

‘এই ধরণের পিচে, আপনাকে মুস্তাফিজের মত বোলারকে আনতেই হতো। ম্যাকক্লেনাগান শেষ ওভারে বেশি রান দিয়েছে বলে আমি এটা বলছি না। আমার মতে সে আসলেই অনেক ভালো বোলিং করে। তবে ম্যাকক্লেনাগান এবং মুস্তাফিজের মধ্যে মুস্তাফিজই আদর্শ চয়েজ।’

এদিকে মুম্বাইয়ের বোলিং কোচ শেন বন্ড অবশ্য সাফাই গাইছেন দলের নেওয়া সিদ্ধান্তের পক্ষেই। মুস্তাফিজকে না নিয়ে ভুল করা হয়নি, এমনটি উল্লেখ করে সাবেক এই কিউই বোলার বলেন-

‘আমি মনে করি না যে মুস্তাফিজকে না নেয়াটা আমাদের জন্য ভুল ছিল। আমি বলতে চাচ্ছি যে শেষের দিকে বেন কাটিং যদি এসে তিন বলে তিনটি ছয় মারতো, তাহলে হয়তো আমাদের এই আলোচনা করতে হতো না। সুতরাং আমার দল নির্বাচন নিয়ে কোনো সমস্যা নেই একেবারেই।’

এই কম্বিনেশন নিয়ে মুম্বাই জয় পেয়েছিল, এমনটি ইঙ্গিত করে বন্ড আরও বলেন, ‘এই দল নিয়েই আমরা গত ম্যাচে জয় পেয়েছিলাম। কন্ডিশনের সহায়তা থাকায় এই উইকেটে বোলিং সহজ ছিল। ১৭ ওভার পর্যন্ত আমরা দারুণ করেছি কিন্তু বাকি তিন ওভারে আমরা খারাপ করেছি। আর এটাই ছিল এই ম্যাচের পার্থক্য।’

এদিকে শেন বন্ড ফিজকে না নেওয়ায় ভুল খুঁজে না পেলেও অস্ট্রেলিয়ান পেসার শন টেইটও সঞ্জয় মাঞ্জরেকারের মতো মুস্তাফিজের পক্ষে ঢাল ধরেছেন। তিনি বলেন, ‘মুম্বাইয়ের জন্য মুস্তাফিজ ছিল আরও ভালো অপশন।’

আরও পড়ুনঃ এবার শ্রীলঙ্কাকেও টপকে গেল আফগানিস্তান

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

আইপিএল থেকে মালিঙ্গাদের উপর চাপ দেয়া হচ্ছে!

ফিরছেন রাইডু, হচ্ছেন হায়দ্রাবাদের অধিনায়ক!

অবসরের কথা অস্বীকার, ভারতের হয়ে খেলবেন রাইডু

আইপিএলে অধিনায়ক হচ্ছেন সাকিব, গুজব নাকি সত্য?

আইপিএলের মত লাভের ভাগ চায় ফ্র্যাঞ্চাইজিরা