ম্যাক্সওয়েলকে ছয়েই দেখতে চান মাইক হাসি

0
1273

আসন্ন বাংলাদেশে সফরের টেস্ট ম্যাচ দুটিতে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে ছয়েই দেখতে চান অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ক্রিকেটার মাইক হাসি। সম্প্রতি বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া দ্বিপাক্ষিক সিরিজ নিয়ে আলোচনায় হাসি জানান, টেস্টে ছয় নম্বরেই ব্যাট করা উচিত ম্যাক্সওয়েলের।

Advertisment

বিশ্ব ক্রিকেটের বর্তমান প্রেক্ষাপটে গ্লেন ম্যাক্সওয়েল বড় এক নাম। তবে সেটি তার মারকুটে ব্যাটিংয়ের জন্য। বোলারদের তুলোধুনো করতে অভ্যস্ত বলে ওয়ানডে ও বিশেষ করে টি-২০ ফরম্যাটে তার জুড়ি মেলা ভার। তবে সেই ম্যাক্সওয়েলই টেস্ট ফরম্যাট এলেই কেমন যেন চুপসে যান।

ম্যাক্সওয়েলের এই অনৈচ্ছিক চুপসে যাওয়া হয়ত ফরম্যাটের সাথে তার ব্যাটিং মেজাজ না মেলার কারণেই। টেস্টে তো আর মারকুটে ব্যাট করতে পারেন না! টেস্টের সৌন্দর্যই যে ধীর-স্থিরতায়। তবে দেশের ক্রিকেটের মূল্যবান সম্পদ ম্যাক্সওয়েলের উপর থেকে আস্থা হারায়নি দেশটির ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। আর তাই বাংলাদেশ সফরের দলেও বেশ পাকাপোক্তভাবেই জায়গা পেয়েছেন ম্যাক্সওয়েল।

ওয়ানডে কিংবা টি-২০ ফরম্যাটের মতো টেস্টে ম্যাক্সওয়েলের পরিসংখ্যান খুব একটা সমৃদ্ধ নয়। ৫ টেস্টের ক্যারিয়ারে একটি সেঞ্চুরি আছে বটে, তবে নেই কোনো হাফসেঞ্চুরি। গড়টাও যেন তার নামের পাশে মানানসই নয়, মাত্র ২৩.৯০। টি-২০ তে ‘স্পেশালিষ্ট ব্যাটসম্যান’ ম্যাক্সওয়েল টপ অর্ডারকে নেতৃত্ব দিলেও টেস্টে সাধারণত খেলেন ছয় নম্বরে। মাইক হাসি মনে করছেন, বাংলাদেশ সিরিজেও ম্যাক্সওয়েলের ছয় নম্বরেই ব্যাট করা উচিত।

ম্যাক্সওয়েলকে মেধাবী ক্রিকেটার আখ্যা দিয়ে হাসি বলেন, ‘ম্যাক্সওয়েল একজন মেধাবী ক্রিকেটার। অস্ট্রেলিয়া দলের ছয় নম্বরে দীর্ঘ দিন খেলে যেতে পারবে বলে আমার বিশ্বাস।

তবে ছয় নম্বর পজিশনের জন্য দাবিদার অবশ্য ম্যাক্সওয়েল একাই নন, আছেন ইল্টন কার্টরাইটও। তবে হাসির মতে, এই পজিশনের জন্য ম্যাক্সওয়েলই সেরা, বাংলাদেশ সফরে ছয় নম্বর পজিশন নিয়ে ম্যাক্সওয়েল ও কার্টরাইটের মধ্যে লড়াই হবে। আমি মনে করি, ম্যাক্সওয়েল এই পজিশনে সুযোগ পেতে পারে।

দলের হাল ধরতে ম্যাক্সওয়েল সাহায্য করবেন- এটিই হাসির প্রত্যাশা। তবে হাসির মারকুটে ব্যাটিংয়ের মেজাজ পাল্টানোর বিরোধীই মনে হল তাকে। বরং নিজের মতো করে খেলার পরামর্শ দিলেন হাসি। তিনি বলেন, নতুন বলে সে ভালো করবে। তাছাড়া দ্রুত রান তুলতে তার জুড়ি নেই।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম