Scores

ম্যাচ পাতানোর উদ্দেশ্যে ভারতে ভুয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট!

ভারতের মোহালির একটি গ্রামে ভুয়া টি-টোয়েন্টি লিগ আয়োজনের অভিযোগ উঠে। টুর্নামেন্টটির সঙ্গে কোন সম্পৃক্ততা নেই বলে দাবি করে লাইভ স্ট্রিমিং অ্যাপস ফ্যানকোড। বিসিসিআই ও শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের দুর্নীতি দমন ইউনিট টুর্নামেন্টটির ব্যাপারটি খতিয়ে দেখছে।

বর্তমানে জুয়াড়িদের টাকা উপার্জনের বড় মাধ্যম বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট। বাড়তি আয় করতে টুর্নামেন্টগুলোতে বাড়ছে ফিক্সিংও। আর এরই জের ধরে শ্রীলঙ্কার একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠে। তবে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড পরিষ্কার করে জানিয়ে দেয় টুর্নামেন্টটির সঙ্গে কোন সম্পৃক্ততা নেই বোর্ডের।

Also Read - ক্যারিয়ার বাঁচাতে আর দুই ম্যাচ সুযোগ পাবেন বাটলার!


শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের এমন মন্তব্যের পর নড়েচড়ে বসেছে টুর্নামেন্টটির লাইভ স্ট্রিমিং পার্টনার ফ্যানকোড। ভারতের বিভিন্ন দৈনিকের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয় আসলে টুর্নামেন্টটির শ্রীলঙ্কায় নয়, আয়োজন করা হয়েছে ভারতের মোহালির একটি গ্রামে। টুর্নামেন্টটির মূল উদ্দেশ্য ম্যাচ পাতিয়ে টাকা আয় করা।

এই টুর্নামেন্ট যে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে সম্পৃক্ততা নেই সেটি পরিষ্কার জানিয়ে দেওয়া হয় ফ্যানকোডকে। মূলত এই টুর্নামেন্টের শ্রীলঙ্কার নামীদামী ক্রিকেটাররাও খেলবেন এই আশ্বাস দেওয়া হয় ফ্যানকোডকে। সেই প্রতিশ্রুতির উপর ভিত্তি করেই চুক্তি করে ফ্যানকোড। তাই তদন্তে উঠে এসেছে ফ্যানকোড অ্যাাপসের নামও।

শুধু তাই নয়, আকসুর তদন্তে উঠে এসেছে ড্রিল এলেভেনের নামও। কেননা টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী সবকটি দলের জার্সি স্পন্সর ‘ড্রিম এলেভেন’। এই কাণ্ডের সঙ্গে ড্রিম এলেভেন এবং ফ্যানকোড জড়িত কিনা সেটি তদন্ত করছে বিসিসিআই ও শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের দুর্নীতি দমন ইউনিট।

তবে নিজেদের বিরুদ্ধে অভিযোগ অস্বীকার করে ড্রিম এলেভেন। এক কর্তা জানায়, ভুয়া টুর্নামেন্টটির সঙ্গে তাদের কোন সম্পৃক্ততা নেই।

Related Articles

ফিক্সিং প্রমাণিত হওয়ায় বড় শাস্তির মুখে সাবেক লঙ্কান ক্রিকেটার

ন্যাশনাল টি-২০ কাপে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাবের অভিযোগ

আইপিএলে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব, তদন্ত শুরু

আইপিএলে ফিক্সিং রুখতে বিশেষ ব্যবস্থা বিসিসিআইয়ের

‘৭’ বছর পর ফিক্সিংয়ের শাস্তি থেকে মুক্ত শ্রীশান্ত