Scores

যেভাবে কাটল সাদমান-মৃত্যুঞ্জয়ের কোয়ারেন্টাইন

স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন সাদমান ইসলাম ও মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী। দুই ক্রিকেটার অস্ট্রেলিয়া থেকে ফিরে নিয়মানুযায়ী ছিলেন ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে। এই সময়ে কাছের মানুষদের থেকে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখেছেন, বের হননি বাড়ির বাইরেও।

যেভাবে কাটল সাদমান-মৃত্যুঞ্জয়ের কোয়ারেন্টাইন
সাদমান ইসলাম। ফাইল ছবি: বিডিক্রিকটাইম

উপমহাদেশে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে মূলত বিদেশ ফেরতদের মাধ্যমে। সতর্কতার অংশ হিসেবে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোতেও বিদেশ ফেরত যাত্রীদের হোম কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক করা হয়। ইঞ্জুরির চিকিৎসা করিয়ে অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফিরেছিলেন দুই ক্রিকেটার সাদমান ও মৃত্যুঞ্জয়। ১৭ মার্চ থেকে ছিলেন ঘরবন্দী।






স্বভাবতই তাদেরও মানতে হয়েছে হোম কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম। অস্ত্রোপচার পরবর্তী পুনর্বাসন প্রক্রিয়া চলেছে নিজ নিজ বাড়িতেই। নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সময় কাটিয়েছেন, এক পা-ও ফেলেননি বাড়ির বাইরে। অবশেষে সেই ‘বন্দীদশা’ থেকে সাদমান ও মৃত্যুঞ্জয় ‘মুক্তি’ পেয়েছেন সফলভাবেই।

Also Read - আফ্রিদির পাশে দাঁড়ানোয় সমালোচিত, মুখ খুললেন যুবরাজ


করোনাভাইরাসের সন্দেহে হোম কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম মেনে ১৪ দিন আবদ্ধ ছিলেন এই দুই বিদেশফেরত ক্রিকেটার। তবে এই সময়ে তাদের মধ্যে করোনাভাইরাস আক্রান্তের কোনো উপসর্গ বা লক্ষণ দেখা দেয়নি। মারাত্মক ছোঁয়াচে এই ভাইরাসটি সাধারণত শরীরে প্রবেশের পর লক্ষণ দেখা দিতে ১৪ দিন পর্যন্ত সময় নেয়।





রিস্ট ইঞ্জুরিতে পড়া সাদমান সিনেমা দেখা, বই পড়া আর গেম খেলার মাধ্যমেই কাটিয়েছেন তার কোয়ারেন্টাইনের সময়গুলো। বের হতেন না নিজের রুম থেকেও। পরিবারের সদস্যরাও থেকেছেন দূরত্ব বজায় রেখে, অন্যান্য সচেতন নাগরিকের মতই। তবে এখনো চোটাক্রান্ত হাতে ড্রেসিং করাননি। কোয়ারেন্টাইন শেষ হওয়ায় শীঘ্রই ড্রেসিং করাবেন। এর পরের লড়াই দ্রুত মাঠে ফেরার ফিটনেস পাওয়ার জন্য।

যেভাবে কাটল সাদমান-মৃত্যুঞ্জয়ের কোয়ারেন্টাইনm
মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী। ফাইল ছবি: বিডিক্রিকটাইম

যুব বিশ্বকাপে কাঁধের চোটে পড়া সাদমান সাতক্ষীরায় নিজের বাড়িতে সময় কাটিয়েছেন। সিনেমা দেখা আর বই পড়া ছিল তারও সময় কাটানোর উপায়। সাতক্ষীরায় আছেন- ব্যাপারটি নিজের বন্ধুদেরও জানাননি। সতর্ক ছিলেন সবসময়।

অবশ্য কোয়ারেন্টাইন শেষ হলেও সাদমান ও মৃত্যুঞ্জয়ের এখন অবাধ বিচরণের সুযোগ নেই। করোনাভাইরাসের ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে বিনা প্রয়োজনে বাড়ির বাইরে বের হতে নিষেধ করেছেন চিকিৎসক, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, স্বাস্থ্যকর্মী, বিশেষজ্ঞরা। দেশের প্রায় সব ধরনের প্রতিষ্ঠানই বন্ধ, কর্মীরা কাজ করছেন ঘরে বসে। বন্ধ হয়ে আছে ক্রিকেটও। তাছাড়া দুজনের চোট সারিয়ে তোলার ব্যাপার তো আছেই। তবে কারও শরীরেই ভয়ংকর করোনাভাইরাস নেই- সফল কোয়ারেন্টাইন শেষে এটাই তো সাদমান-মৃত্যুঞ্জয়ের স্বস্তির বিষয়!

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সেবায় মাশরাফির অনুদান

বোলারদের ‘মাস্ক’ পরে খেলার পরামর্শ মিসবাহর

লকডাউনে নিয়ম ভেঙে তোপের মুখে ভারতীয় পেসার

ঈদে মাশরাফি-সাকিবের অনুরোধ

চার তরুণ স্বপ্ন দেখায় নতুন বাংলাদেশের