যে কারণে বিশ্ব একাদশের হয়ে খেলছেন না সাকিব

0
2492

চলতি মাসের ৩১ তারিখ লর্ডসে হবে বিশ্ব একাদশ বনাম উইন্ডিজের মধ্যকার চ্যারিটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। সেই ম্যাচের জন্য বিশ্ব একাদশের দলে ছিলেন বাংলাদেশের দুই ক্রিকেটার- সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল। কিন্তু গতকাল (১৬ মে) হঠাতই এই চ্যারিটি ম্যাচ না খেলার সিদ্ধান্ত নেন সাকিব।  ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) বিষয়টি নিশ্চিত করলেও সেটার কোনও কারণ উল্লেখ করে নি। তবে জানা গেছে, টানা ম্যাচ খেলার ধকল কাটাতেই এই ম্যাচ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন সাকিব।

Image result for shakib al hasan

Advertisment

সাকিবের জন্য এবারের আইপিএলের আসরটা একটু অন্যরকম। এবার প্রথমবারের মতো সানরাইজার্স হায়দরবাদের হয়ে খেলছেন সাকিব। আগের ছয় আসরে কলকাতার হয়ে খেললেও পান নি পর্যাপ্ত সুযোগ। তবে হায়দরাবাদের হয়ে এবারের আসরে এখন পর্যন্ত সব ম্যাচের একাদশেই ছিলেন সাকিব। ব্যাটে-বলে পারফর্ম করেছেন পাশাপাশি দল আছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে। এদিকে আইপিএলের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে ২৭ মে। অন্যদিকে বিশ্ব একাদশের হয়ে সাকিবের খেলার কথা ছিল ৩১ মে। হায়দরাবাদ ফাইনালে উঠলে ম্যাচের কার্যক্রম শেষ করে ৩০ মে’র আগে লন্ডনে যেতে হবে সাকিবকে। এরপর ৩১ মে বিশ্ব একাদশের হয়ে মাঠে নামতে হবে। তারপর দেশে ফিরে আবার ভারত যেতে হবে আফগানিস্তান সিরিজের জন্য। আফগানদের বিপক্ষে টাইগারদের প্রথম ম্যাচ ৫ জুন। টানা খেলার ধকল কাটাতেই বিশ্ব একাদশের হয়ে না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সাকিব।

জাতীয় দৈনিক ডেইলি স্টারকে সাকিব বলেছেন,  ‘আইপিএলের আগে পরে এত খেলা যে, সিদ্ধান্ত নিলাম একটু বিশ্রাম নিব। তাই বিশ্ব একাদশের ম্যাচটা খেলছি না।’

আইপিএলের পরে দেশে ফিরে কিছুদিন বিশ্রামে থাকতে চান সাকিব। এরপর নেমে পড়বেন দেশের হয়ে আফগানিস্তান সিরিজে।  উল্লেখ্য, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশের মধ্যকার সিরিজটির সূচি চূড়ান্ত করা হয়েছে। বহুল আলোচিত এই দ্বিপাক্ষিক সিরিজে অনুষ্ঠিত হবে মোট তিনটি ম্যাচ, যার ফরম্যাট টি-২০। ম্যাচগুলো মাঠে গড়াবে আগামী ৩, ৫ ও ৭ জুন। সবগুলো ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে ভারতের দেরাদুনে। প্রতিটি ম্যাচ শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত রাত সাড়ে আটটায়।

[আরও পড়ুনঃ রাতে বেঙ্গালোরের মুখোমুখি সাকিবরা]