Scores

যে কারণে স্যালুট দিচ্ছিলেন কটরেল

একটা একটা করে উইকেট পাচ্ছেন, আর একবার করে স্যালুট দিচ্ছেন শরীর টানটান করে। উইন্ডিজ দলের ক্রিকেটাররা বরাবরই সুঠাম দেহের অধিকারী। শেলডন কটরেলের বডি ফিটনেস একটু বেশিই ভালো। সোমবার দুপুরে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বারবার স্যালুট জানিয়ে কটরেল নজরও কাড়লেন বারবার।

যে কারণে স্যালুট দিচ্ছিলেন কটরেল

কেন এমন স্যালুট জানাচ্ছিলেন কটরেল? চার উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা হয়েছেন। চারবারই উদযাপনের অংশ হয়ে থাকল এই স্যালুট। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে দলের প্রতিনিধি হয়ে আসেন কটরেলই। ম্যান অব দ্যা ম্যাচের অ্যাওয়ার্ড পাওয়া এই ক্রিকেটার তখন জানান তার স্যালুটের কারণ।

জ্যামাইকার ডিফেন্স ফোর্সের একজন সেনা কটরেল। সেখানে সাফল্যের উদযাপনে স্যালুট দেওয়ার রীতি। ডিফেন্সের সৈন্য ক্রিকেট মাঠের সৈন্যতে রূপ নিলেও বদলাচ্ছে না উদযাপনের রীতি।

Also Read - বাংলাদেশের কাল হয়েছে আত্মবিশ্বাস!

কটরেল বলেন, স্যালুটটা যেভাবে এসেছে- আমি জ্যমাইকান ডিফেন্স ফোর্সের একজন সেনা। সফলতার পর সতীর্থদের কৃতিত্ব জানানোর একটি উপায় এয় স্যালুট দেওয়া। ক্রিকেটে আমি আন্তর্জাতিক পর্যায়ে একটি দায়িত্ব পালন করি। তাই এখানেও কৃতজ্ঞতা জানানোর একটি উপায় এই স্যালুট

ম্যাচে দুর্দান্ত বল করেছেন কটরেল ও তার সতীর্থরা। যেন টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজে খেলা দলই নয় এটি! কটরেল জানিয়েছেন, ভালো করার পেছনের গল্প, আমাদের পরিকল্পনা ছিল অ্যাটাকিং বল করা- যেভাবে আমরা সবসময় করে থাকি। ইয়র্কার, লেংথ, শর্ট- যেমনই হোক; অ্যাটাকিং বল করতে হবে। এই পরিকল্পনা কাজে লেগেছে

তিনি বলেন, পেসারদের জন্য এখানকার উইকেট স্বর্গ নয়। তাই আমাদের ভেবেচিন্তে বল করতে হয়। বাংলাদেশ ভুল শট খেলবে এটাই ছিল আমাদের প্রত্যাশা। আমরা বোলিং ভালো করেছি এবং পরিকল্পনা কাজে লাগিয়েছি

সিরিজ জয় তো বটেই, পরের দুটি ম্যাচই জিততে চায় উইন্ডিজ। ক্যারিবীয় পেসার বলেন, জয়ের ছন্দ নিয়ে আমরা পরের দুটি ম্যাচও জিততে চাই। দলেও এ নিয়ে কথা হচ্ছে। এই জয় বাকি দুটা ম্যাচের জন্য ভালো প্রেরণা জোগাবে

আরও পড়ুন: দিনটিই বাংলাদেশের ছিল না!

Related Articles

টি-টোয়েন্টি সিরিজেও হোয়াইটওয়াশ হলো শ্রীলঙ্কা

হাথুরুসিংহেকে চাকরি হারাতে হচ্ছে না!

টেস্ট জার্সিতে নাম-নম্বরের ব্যবহারে আইসিসির সবুজ সংকেত

শেবাগের কাছে বাংলাদেশ ‘শিকারি বাঘ ‘

ইতিহাস গড়ে নিজেদের প্রথম ক্রিকেট বিশ্বকাপে নাইজেরিয়া