Scores

এশিয়া কাপে সাকিবকে দলে চান পাপন

উইন্ডিজ সফর শেষে দেশে ফিরে নিজের ইনজুরির অবস্থা জানিয়েছেন সাকিব। এশিয়া কাপের পূর্বেই অস্ত্রপচারের কথা বলেছেন বাংলাদেশ টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক। এদিকে এশিয়া কাপের মত বড় আসর সাকিবকে ছাড়া কল্পনাই করতে পারছেন না বিসিবি পরিচালক।

পাপন papon

চলতি বছর টাইগারদের প্রথম সিরিজেই বড় ইনজুরিতে পড়েছিলেন সাকিব আল হাসান। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে ফিল্ডিং করতে গিয়ে বাঁহাতের কনিষ্ঠ আঙ্গুলে ব্যথা পান সাকিব। এরপর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টিতে খেলেন নি বাংলাদেশ অধিনায়ক। পরে নিদাহাস ট্রফির শেষ দুই ম্যাচে মাঠে নামেন। এরপর আফগানিস্তান সিরিজের পর উইন্ডিজ সফরে গিয়ে সেই ব্যথা আবার দেখা দেয়।  ব্যথানাশক ইনজেকশন দিয়ে উইন্ডিজে খেলেছেন সাকিব। তবে যতদ্রুত সম্ভব অস্ত্রোপচার করে ব্যথামুক্ত হতে চাইছেন তিনি।

Also Read - এশিয়া কাপে বাংলাদেশের ভালো সুযোগ দেখছেন পাপন


দেশে ফিরে সাকিব বলেন, ‘আমি তো মনে করি, অস্ত্রপচার হওয়া উচিৎ।  কারণ আমি ফুল ফিট না থেকে খেলতে চাই না। কাজেই সেভাবে যদি চিন্তা করি এশিয়া কাপের আগে হবে এটাই নরমাল।’

এদিকে দল দেশে ফেরার পর কোচ স্টিভ রোডসকে নিয়ে রাজধানীর ওয়েস্টিন হোটেলে বৈঠক করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। সেখানে আরও উপস্থিত ছিলেন বোর্ডের সদস্যরা।  বৈঠকে অন্যান্য বিষয়ের পাশাপাশি সাকিবের ইনজুরির বর্তমান অবস্থা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। বৈঠক শেষে পাপন বলেন, ‘যে স্ট্রেংথ ওর (সাকিবের) দরকার, সেটা পাচ্ছে না ব্যাটিংয়ে। ইনজেকশন নিয়ে নিয়ে খেলছে। কিন্তু অপারেশন হলে অন্তত ছয় সপ্তাহের বিরতি দরকার। এত লম্বা বিরতি পাওয়াটা কঠিন। প্রথম চেষ্টা করা হচ্ছে যদি কোনো খেলার মাঝখানে ওকে বিরতিটা দেওয়া যায়। আর তা না হলে একটা খেলাই বাদ দিতে হবে। যেটা ওকে ছাড়া খেলা আমরা চিন্তাই করতে পারছি না।’

 

সিরিজসেরার রেকর্ডে সাকিব

এশিয়া কাপের পূর্বে সাকিবের অস্ত্রপচার করা হলে এই বড় টুর্নামেন্ট মিস করবেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার।  যা দলের জন্য ভালো হবে না বলে মনে করেন নাজমুল হাসান পাপন। এশিয়া কাপে সাকিবকে দলে চান বিসিবি সভাপতি, ‘এশিয়া কাপের আগেও হতে পারে, পরেও হতে পারে। জিম্বাবুয়ে সিরিজের সময় হতে পারে। আজকে কোচের সঙ্গে যে কথা হয়েছে, সেও এশিয়া কাপের কথাই বলেছে। আমি বলেছি, এশিয়া কাপের চেয়ে ভালো হয় জিম্বাবুয়ে সিরিজের সময় করলে। তখন নতুন কিছু ক্রিকেটারও দেখতে পারব আমরা। ওটাতে আমার মনে হয় ভালো হবে। এশিয়া কাপ এমনিতেই এবার কঠিন হবে। তার ওপর সাকিবের মতো একজন ক্রিকেটার না খেললে দলের মোরাল আরও দুর্বল হয়ে যেতে পারে। তারপরও আরও কথা হবে। আজ-কালকের মধ্যে সাকিবের সঙ্গে কথা বলব। আমার মনে হয়, অন্য সময় করাটাই ভালো হবে।’

[আরও পড়ুনঃ দুই ট্রফি নিয়ে দেশে ফিরলো বাংলাদেশ]

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

মাধ্যমিকের প্রশ্নপত্রে নিজের নাম দেখে কৃতজ্ঞ তামিম

মেডিকেল রিপোর্টের উপরেই নির্ভর করছে সাকিবের এনওসি

এই মিরাজ অনেক আত্মবিশ্বাসী

মিঠুনের ‘মূল চরিত্রে’ আসার তাড়না

‘আঙুলটা আর কখনো পুরোপুরি ঠিক হবে না’