Scores

রবির টানা শতকে খেলাঘরের জয়


খেলাঘর বনাম শেখ জামালের ম্যাচে ব্যাট হাতে আলো ছড়িয়েছেন রবিউল ইসলাম রবি। হাঁকিয়েছেন টানা দ্বিতীয় শতক। এক ম্যাচ আগে পাঁচ উইকেট পাওয়া শেখ জামালের স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক। আবারো জ্বলে উঠেন বল হাতে। তিন ম্যাচের মধ্যে দ্বিতীয় বারের মতো পাঁচ উইকেট শিকার করেন রাজ্জাক। কিন্তু জয়োল্লাসে মাততে পারেননি।
প্রথমে ব্যাট করতে নেমে দুই ওপেনার সালাহউদ্দিন পাপ্পু ও রবিউল ইসলাম রবি উদ্বোধনী জুটিতে ৮৩ রান সংগ্রহ করেন। তাদের বড় জুটিতে দারুণ সূচনা পায় খেলাঘর। ছন্দপতন ঘটান আব্দুর রাজ্জাক ও সোহাগ গাজী। ৪৬ রান করে রাজ্জাকের বলে বোল্ড হন পাপ্পু। দলীয় ৯৬ রানের মাথায় গাজীর বলে স্টাম্পিং হন নাফীস ইকবাল (৩)। এরপর অমিত মজুমদারকে নিয়ে ১২৬ রানের জুটি গড়েন রবি। এ জুটিতে বড় সংগ্রহের দিকে এগিয়ে যায় খেলাঘর।

দলীয় ২২২ রানের মাথায় অমিতকে ফেরান রাজ্জাক। ২১ ওভার পর উইকেট পায় শেখ জামাল। শতক হাঁকানো রবিকে পরের বলেই লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন রাজ্জাক। ১০৩ রান করে ফিরে যান রবি।

নিজের পরের ওভারে প্রথম বলটিতে ছিল রাজ্জাকের হ্যাটট্রিক করার সুযোগ। প্রথম বলে উইকেট নিতে না পারলেও পরের বলেই নাজমুস সাদাতকে ফেরান তিনি। ইলিয়াস সানি ও রাজ্জাক মিলে শেষে চেপে ধরলে ২৬৬ এর বেশি করা সম্ভব হয়নি খেলাঘরের। শেষ ওভারে রেজাউল করিমকে ফিরিয়ে দিয়ে পাঁচ উইকেট পূর্ণ করেন রাজ্জাক।

লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতে ধুঁকতে থাকে শেখ জামাল। দ্বিতীয় ওভারে তানভির ইসলামের বলে ফিরে যান ফজলে। পরের ওভারে রান আউট হন আরেক ওপেনার মাহবুবুল। ১৪ রানের মাথায় পতন ঘটে দ্বিতীয় উইকেটের। পরের ওভারে আব্দুল্লাহ আল মামুনকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন তানভির। ২২ রানেই ৩ উইকেট হারায় শেখ জামাল।

প্রশান্ত চোপড়া ও রাজিন সালেহ ৫৩ রানের জুটি গড়েন। ৪৪ রানের ইনিংস খেলে ডলারের বলে বোল্ড হন প্রশান্ত। এরপর হাল ধরেন জিয়াউর রহমান। জিয়াউর ও রাজিন সালেহ মিলে ১০৮ রান যোগ করলে খেলায় ফিরে আসে শেখ জামাল। দুজনই পান অর্ধশতকের দেখা। ৬২ বলে ৭৫ রান করে রান আউট হন জিয়াউর। সোহাগ গাজি বোল্ড হয়ে যান ৮ রান করে। ২১৯ রানের মাথায় ফিরে যান তানবির হায়দার (১২)। রাজিন সালেহকে সঙ্গ দেন রাজ্জাক। তারা ১৬ রান যোগ করার পর রান নিতে গিয়ে চোট পান রাজ্জাক। মাঠের বাইরে চলে যেতে হয় তাকে। আর ফিরেননি তিনি।

৭৫ রান করা রাজিন সালেহ দলীয় ২৪৩ রানের মাথায় ফিরে যান। তখন ২৩ বলে ২৪ রান প্রয়োজন ছিল শেখ জামালের। পরের ওভারেই শাহাদাত রান আউট হলে ২৪৬ রান করে গুটিয়ে যায় শেখ জামাল।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ খেলাঘর ২৬৬/৮, ৫০ ওভার
রবি ১০৩, অমিত ৫৮, পাপ্পু ৪৬
রাজ্জাক ৫/৫২, সানি ২/৪১

শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব ২৪৬/১০ ৪৭.২ ওভার
রাজিন ৭৬, জিয়াউর ৭৫, প্রশান্ত ৪৪
তানভির ৪/৪১, ডলার ১/৩৪


আরো পড়ুনঃ প্রথম জয় পেল পারটেক্স


-আজমল তানজীম সাকির, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম ডট কম 

Related Articles

মারুফের টানা দ্বিতীয় শতকে রূপগঞ্জের জয়

অঙ্কনের ৮৫ রানে বিফলে জহুরুলের শতক

জোড়া অর্ধশতকে কলাবাগানের জয়

খেলাঘরকে হারাল রূপগঞ্জ

গুরুতর আহত আব্দুর রাজ্জাক হাসপাতালে