Score

রশিদকে চ্যালেঞ্জ মানছেন না মাশরাফিও

এশিয়া কাপে আবারো আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ঐ ম্যাচে আবারো রশিদ জুজু রয়েছেই। তবে রশিদকে ভয় পাচ্ছেন না বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা। রশিদ খানের বিপক্ষে ভালো করার মন্ত্রও জানা আছে মাশরাফির। সেটিই এশিয়া কাপে কাজে লাগাতে চান তিনি।

শুরুতেই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জয় চান মাশরাফি

আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে বড় ভয়ের কারণ ছিল আফগান লেগস্পিনার রশিদ খানকে নিয়ে। ম্যাচে সফলও হয়েছেন রশিদ। আসছে এশিয়া কাপে আবারো দেখা হবে রশিদের সঙ্গে। বরাবরের মত রশিদকে নিয়ে আলাদা চ্যালেঞ্জ সবারই রয়েছে। তবে ফরম্যাটটা ভিন্ন হওয়ায় রশিদকে বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবে নেয়নি বাংলাদেশ দলের তরুণ ব্যাটসম্যান লিটন কুমার দাস।

লিটনের মত এশিয়া কাপে রশিদকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখছেন না বাংলাদেশ দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজাও। মিরপুরে আজ সংবাদ সম্মেলনে রশিদের প্রসঙ্গ উঠতেই এমনটা জানিয়েছে দলের অধিনায়ক। রশিদ জুজু কীভাবে কাটাবে সেটা জানা রয়েছে মাশরাফির। নিজেদের প্রথম শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জিততে পারলে রশিদ জুজুটা কেটে যাবে মনে করছেন তিনি।

Also Read - সাকিবের মন্তব্যে বিব্রত বিসিবি

“রশিদ খান বিশ্বমানের স্পিনার। তবে আমি মনে করে টি-টোয়েন্টিতে আমাদের বিপক্ষে তার সফল হওয়ার কারণ ছিল ২০ওভারের খেলায় রানের তাড়া ও শটস খেলার তাগাদা থাকে। তবে ওয়ানডেতে এটা থাকে না। দুই-তিন ওভার দেখেও খেলা যায়। তবু সে বিশ্বমানের স্পিনার। তার গুগলি ও লং-রান পিক করা বড় চ্যালেঞ্জ। তবে আমরা বিশ্বাস করি যদি শ্রীলঙ্কার সাথে জয় দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করি তাহলে রশিদ খানের বিপক্ষে ভালো খেলার বিশেষ সাহস পাব।”

বাংলাদেশের জন্য এশিয়া কাপে শুধু রশিদই না, রয়েছে অফ-স্পিনার মুজিব-উর-রহমানও। রশিদের সঙ্গে মুজিব জুজুটা কীভাবে কাটায় বাংলাদেশ সেটাই দেখার বিষয়। আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে গ্রুপ পর্বের প্রথমটা খেলবে বাংলাদেশ। তারপরে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে মাশরাফি-সাকিবদের। গ্রুপ পর্ব পার করতে পারলে তবেই জায়গা মিলবে ‘সুপার ফোরে’।

আরও পড়ুনঃ বাংলাদেশ ক্রিকেটের নতুন স্পন্সর ‘ইউনিলিভার’

Related Articles

মেডিকেল রিপোর্টের উপরেই নির্ভর করছে সাকিবের এনওসি

এই মিরাজ অনেক আত্মবিশ্বাসী

মিঠুনের ‘মূল চরিত্রে’ আসার তাড়না

‘আঙুলটা আর কখনো পুরোপুরি ঠিক হবে না’

এক নয় মাশরাফির তিন ইনজুরি