রাকিবের অভিযোগ মিথ্যা- দাবি তামিমার

0
854

গত কয়েকদিন ধরেই তোলপাড় চলছে নাসির হোসেন ও তামিমা তাম্মির বিয়ে নিয়ে। তামিমার প্রাক্তন স্বামী রাকিব হাসান এখনো নিজেকে তার স্বামী বলে যে দাবি করছেন তা মিথ্যা বলে সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন তামিমা নিজেই। তাদের কাছে প্রমাণ আছে বলেও জানান তামিমা।

রাকিবের অভিযোগ মিথ্যা- দাবি তামিমার

Advertisment

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি বেশ ধুমধাম করেই নাসির ও তামিমার আকদ সম্পন্ন। তারপরে গায়ে হলুদ ও বিবাহোত্তর সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। গত ২০ ফেব্রুয়ারি বিবাহোত্তর সংবর্ধনার আগেই সামনে আসেন রাকিব। মূলত ফেসবুকে একটি পোস্ট থেকেই রাকিবের কথা ছড়িয়ে পড়ে। তারপরে বিভিন্ন গণমাধ্যমে রাকিব নিজের বক্তব্য দিয়েছেন। তিনি বরাবরই নিজেকে তামিমার বর্তমান স্বামী হিসেবে দাবি করে আসছেন এবং সর্বশেষ ২৪ ফেব্রুয়ারি দুপুরে তিনি নাসির ও তামিমার নামে মামলাও করেছেন।

মামলার দিন বিকালেই সংবাদ সম্মেলনে আসলেন নাসির ও তামিমা। নাসিরের বর্তমান স্ত্রী তামিমা বলেন, রাকিবকে তালাক না দিয়েই নাসিরকে বিয়ে করার যে অভিযোগ করা হচ্ছে তা মিথ্যা। রাকিবের সাথে বিয়ে হয়েছিল ও তাদের একটি সন্তান আছে এটা তামিমা নিজেই জানিয়েছেন। তালাকের ব্যাপারে তামিমা জানান ২০১৬ সালেই তিনি তালাকের আবেদন করেছিলেন এবং ২০১৭ সালে সেটি গৃহীত হয়। ফলে এখন আর তারা স্বামী-স্ত্রী না। রাকিব উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়েই এখন এই অভিযোগ করছেন।

তামিমার ভাষায়, ‘মিস্টার রাকিব হাসান যে বলেছেন তাকে তালাক না দিয়েই বিয়ে করেছি, এটি সম্পূর্ণ মিথ্যা কথা। আমি তালাকের জন্য আবেদন করি ২০১৬ সালে, সেটি অনুমোদন হয় ২০১৭-এ। সম্পূর্ণ আইনি নিয়মে তালাক হয় আমাদের। উনি সহ উনার পরিবার সবাই সেটি জানতেন। উনি এসব কেন করছেন সেটা হয়ত সবারই বোঝা হয়ে গেছে। হ্যাঁ, উনাকে বিয়ে এবং বাচ্চা আছে আমাদের সেসব সত্য। বাকি সবই মিথ্যা, বানোয়াট।’

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ যেখানেই তাদের নামে ভুয়া খবর ছড়ানো হচ্ছে সেসব বন্ধ করার জন্যও অনুরোধ করেন তিনি।

তামিমা বলেন, ‘আরেকটি কথা আমি বিশেষভাবে উল্লেখ করতে চাই, ফেসবুকে আমাদের নামে ভুয়া আইডি খুলে বিভিন্নভাবে যে ভুয়া খবরগুলো ছড়াচ্ছে আমাদের বিষয়ে- আসলে আমার কোন ফেসবুক আইডি নেই বর্তমানে এবং নাসিরেরও। কেবল তার একটি পেইজ রয়েছে। আমাদের কোন কিছু যদি জনগণকে জানাতে হয় তাহলে গণমাধ্যম কিংবা তার সত্যায়িত পেইজ থেকে জানিয়ে দেওয়া হবে। অযথা মিথ্যা খবর ছড়ানো বন্ধ করুন।’