রাজশাহী-রংপুরের বড় জয়

শেষ হলো জাতীয় লিগের চতুর্থ রাউন্ড। তৃতীয় দিনেই জয় তুলে নিয়েছিলো ঢাকা বিভাগ আর খুলনা বিভাগ। চতুর্থ দিন বড় জয় পেয়েছে রাজশাহী বিভাগ ও রংপুর বিভাগ।

রাজশাহী বিভাগ বনাম সিলেট বিভাগঃ ৩৩০ রানের লক্ষ্যে নেমেছিলো সিলেট বিভাগ। তৃতীয় দিন শেষ করেছিলো ১ উইকেটে ২৮ রানে। চতুর্থ দিন রাজিন সালেহ ছাড়া আর কেউ বড় স্কোর গড়তে পারেননি। ১৭৮ রানেই অলআউট হয়ে যায় সিলেট।

ওপেনার ইমতিয়াজ ও জাকিরের জুটি ভাঙেন সাকলাইন সজীব। ৩২ রান করে ফিরে যান ইমতিয়াজ। নিজের পরের ওভারেই সাকলাইন ফেরান জাকিরকে। এতেই যেন ভেঙে পড়ে সিলেট।

Also Read - ভারতীয় মিডিয়াঃ মুস্তাফিজ আইসিসি পুরস্কারের অযোগ্য!


দলীয় ৬৬ রানের মাথায় রাহাতুল ফেরদৌসকে ফিরিয়ে দেন ফরহাদ রেজা। ৬৬ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে যায় সিলেট। অধিনায়ক অলোক কাপালি ক্রিজে টিকেছিলেন ৩৩ বল। ৭ রান করে বোল্ড হন সাকলাইনের বলে। এরপর রুমনকে ফেরান মামুন হোসেন। ৯০ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে তখন দিশেহারা সিলেট।

ব্যাট হাতে একাই লড়ে যান রাজিন সালেহ। ১২ চারে ১২৬ বলে ৭৫ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। তবে তার এ ইনিংস শুধু সিলেটের হারের ব্যবধানই কমিয়েছে। সাকলাইন ও সানজামুল ৩ টি করে উইকেট নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর রাজশাহী বিভাগ ২০৪/১০, প্রথম ইনিংস
ফরহাদ ৩৫, মিজানুর ৩২
জায়েদ ৪৮/৬, রাহাতুল ৩০/১
সিলেট বিভাগ ২১৯/১০, প্রথম ইনিংস
আবুল ৫৯*, রুমন ৪১
রেজা ৯১/৫, মামুন ৫১/৪
রাজশাহী বিভাগ ৩৪৪/১০, দ্বিতীয় ইনিংস
ফরহাদ ১৩২, জুনায়েদ ৭৮
জায়েদ ৭৭/৩, রাহাতুল ৫২/২
সিলেট বিভাগ ১৭৮/১০ দ্বিতীয় ইনিংস
রাজিন ৭৫*, মিজান ৩২
সাকলাইন ৪৫/৩, সানজামুল ১৫/৩

রংপুর বিভাগ বনাম চট্টগ্রাম বিভাগঃ তৃতীয় দিনই স্পষ্ট হয়ে উঠেছিলো চট্টগ্রামের পরাজয়। চতুর্থ দিন অলৌকিক কিছু ঘটেনি। কাঙ্খিত জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছে রংপুর বিভাগ।

রংপুরের ৪৫০ রানের জবাবে প্রথ্যম ইনিংসে ১৮২ রানে অলআউট হয়ে গিয়েছিল চট্টগ্রাম। ফলোঅনে পড়ে তৃতীয় দিন শেষ করে ৪ উইকেটে ১৪৯ রানে।

চতুর্থ দিন মাত্র ১৬ রান যোগ করার পর প্রথম উইকেট হারায় চট্টগ্রাম। দলীয় ১৬৫ রানের মাথায় সাজঘরে ফিরে যান সাঈদ। অর্ধশতক পূরণ করা ইয়াসির ফিরে যান ১৯১ রানের মাথায়। ৫৮ রান করেন তিনি। শেষদিকে হাল ধরেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ও ইফতেখার সাজ্জাদ। দুইজনই ৪৩ রান করে সংগ্রহ করেন। সাইফুদ্দিনকে ফেরান সাজেদুল ও সাজ্জাদকে ফেরান আরিফুল। আরিফের ১৯ আর হোসেনের ১৩ রানের সুবাদে ইনিংস ব্যবধানে পরাজয় এড়ায় চট্টগ্রাম।

৩০ রানের লক্ষ্য ৫ ওভার ২ বল খেলেই টপকে যায় রংপুর। সায়মন ও লিটনের ৩৩ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটির কারণে জয় পেতে কোনো উইকেট হারাতে হয়নি তাদের।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ রংপুর বিভাগ ৪৫০/১০ প্রথম ইনিংস
শুভ ১২১, লিটন ৭৩
সাইফুদ্দিন ৯৩/৪, হোসেন ৭৭/৩
চট্টগ্রাম বিভাগ ১৮২/১০, প্রথম ইনিংস
ইরফান ৪৭, অভিষেক ২৮
সাদ্দাম ৩৬/৩, শুভ ৪৮/৩
চট্টগ্রাম বিভাগ ২৯৭/১০, দ্বিতীয় ইনিংস
ইয়াসির ৫৮, পিনাক ৪৫
আরিফুল ৩৪/৪, শুভ ৫০/২
রংপুর বিভাগ ৩৩/০, দ্বিতীয় ইনিংস
সায়মন ১৮*, লিটন ১২*
আলি ১৪/০

ম্যাচসেরাঃ সোহরাওয়ার্দী শুভ

-আজমল তানজীম সাকির, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটিম ডট কম 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন