রাজা-মুজারাবানির দুর্দান্ত পারফর্মে জিম্বাবুয়ের জয়

0
692

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে জয় দিয়ে শুরু করল জিম্বাবুয়ে। আগে ব্যাটিং করে জিম্বাবুয়ে সংগ্রহ করে ৭ উইকেটে ২৬৬ রান। জবাবে আয়ারল্যান্ড অলআউট হয়েছে ২২৮ রানে। জিম্বাবুয়ে ৩৮ রানে জয়ী।

রাজা-মুজারাবানির দুর্দান্ত পারফর্মে জিম্বাবুয়ের জয়
জিম্বাবুয়ে

বেলফাস্টে টস জিতে আগে বোলিং করতে নামে আয়ারল্যান্ড। ১১ বলে ২ রান করে আউট হন রেগিস চাকাভবা। তবে আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করতে থাকেন ব্রেন্ডন টেইলর, সঙ্গ দেন অধিনায়ক ক্রেইগ আরভিন। তাদের ৭১ রানের জুটি ভাঙেন সিমি সিং। ৪৫ বলে ৪৯ রান করেন টেইলর। ডিওন মেয়ার্স দ্রুতই ফিরে যান। ১০১ রানে ৩ উইকেট হারায় জিম্বাবুয়ে।

Advertisment

চতুর্থ উইকেটে ৪৯ রানের ধীরগতির জুটি গড়েন আরভিন ও শেন উইলিয়ামস। ৫৭ বলে ৩৩ রান করে জশুয়া লিটলের বলে বোল্ড হন উইলিয়ামস। সিকান্দার রাজার সাথে ৩২ রানের জুটি গড়ে সাজঘরে ফেরেন আরভিন। ফেরার আগে তিনি করেন ৯৬ বলে ৬৪ রান।

ওয়েসলে মাধিভেরে ও লুক জঙ্গুয়ে সাথে নিয়ে ইনিংসের বাকিটা সময় দ্রুত রান তোলেন রাজা। মাধিভেরে করেন ১৭ বলে ১৯ রান। জঙ্গুয়ে করেন ৯ বলে ১৮ রান। রাজা অপরাজিত থাকেন ৪৪ বলে ৫৯ রান করে। তার ঝলমলে ইনিংসটি সাজানো ছিল ৫টি চার ও ২টি ছক্কা।

নির্ধারিত ৫০ ওভারে জিম্বাবুয়ে সংগ্রহ করে ৭ উইকেটে ২৬৬ রান। আয়ারল্যান্ডের সব বোলাররা একটি করে উইকেট পান।

জবাবে আয়ারল্যান্ড দারুণ শুরু করে। তাদের উদ্বোধনী জুটিতে আসে ৬৪ রান। পল স্টার্লিং করেন ৪৭ বলে ৩২ রান। অধিনায়ক অ্যান্ড্রু বালবির্নি ২০ বলে ১২ রান করে বিদায় নেন। তৃতীয় উইকেটে উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড ও হ্যারি টেক্টর ৭১ রানের জুটি গড়েন।

পোর্টারফিল্ড ও টেক্টর আউট হওয়ার পরে আর কেউ দলের হাল ধরতে পারেননি। ফলে ভালো শুরু করেও ৩৮ রানের ব্যবধানে ম্যাচ হারলো আয়ারল্যান্ড। তারা অলআউট হয়েছে ২২৮ রানে। পোর্টারফিল্ড করেন ১১০ বলে ৭৫ রান। টেক্টর ৫৫ বলে ৫০ রান করেন।

জিম্বাবুয়ের পক্ষে ব্লেসিং মুজারাবানি নিয়েছেন ৪টি উইকেট। ২টি করে উইকেট নিয়েছেন শেন উইলিয়ামস ও ওয়েলিংটন মাসাকাদজা। দ্রুতগতির ইনিংসের জন্য ম্যাচ সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছে সিকান্দার রাজা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

জিম্বাবুয়ে ২৬৬/৭ (৫০ ওভার)
আরভিন ৬৪, রাজা ৫৯*, টেইলর ৪৯, উইলিয়ামস ৩৩;
সিমি ১/২২, ডকরেল ১/২৩, ম্যাকব্রায়েন ১/২৬।

আয়ারল্যান্ড ২২৮/১০ (৪৮.৪ ওভার)
পোর্টারফিল্ড ৭৫, টেক্টর ৫৫, স্টার্লিং ৩২;
মুজারাবানি ৪/২৯, মাসাকাদজা ২/৪০, উইলিয়ামস ২/৪২।

জিম্বাবুয়ে ৩৮ রানে জয়ী।