Scores

বিপিএল ২০১৭ তে সিলেট সিক্সার্সের দল

শনিবার দুপুরে রাজধানীর একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়েছে বিপিএলের পঞ্চম আসরের প্লেয়ার্স ড্রাফট। প্লেয়ার্স ড্রাফট থেকে নয়জন ক্রিকেটারকে দলে টেনেছে সিলেট সিক্সার্স। গত আসরে ছিল না সিলেটের কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি। এক আসর পর বিপিএলে ফিরলো সিলেট।

সিলেট সিক্সার্সের দলে নেওয়া নয় ক্রিকেটারের মধ্যে সাতজন বাংলাদেশের এবং দুইজন বিদেশী ক্রিকেটার।

Also Read - সাকিবের ছুটি সম্পর্কে জানতেন না মুশফিক


বাংলাদেশের তিনজন পেসারকে দলে নিয়েছে সিলেট সিক্সার্স। ডানহাতি পেসার আবুল হাসান রাজুকে দলে নিয়েছে তারা। সাথে আরো দুই ডানহাতি পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বি ও মোহাম্মদ শরীফকেও নিয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। বোলিং আক্রমণে এ তিন পেসারের সাথে থাকছেন বাঁহাতি স্পিনার নাবিল সামাদ। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ৩০০ এর বেশি উইকেটের মালিক নাবিল গত আসরে খেলেছিলেন কুমিল্লার হয়ে। এছাড়া ওপেনার ইমতিয়াজ হোসেন তান্নাকে দলে নিয়েছে সিলেট। অলরাউন্ডার শুভাগত হোমও এবারের আসর খেলবেন সিলেট সিক্সার্সের জার্সিতে।

দুই বিদেশীর একজন শ্রীলঙ্কান ও অন্যজন পাকিস্তানের। শ্রীলঙ্কার হয়ে সাত আন্তর্জাতিক ওয়ানডে খেলা বাঁহাতি অলরাউন্ডার চতুরাঙ্গা ডি সিলভাকে দলে ভিড়িয়েছে সিলেট সিক্সার্স। এছাড়া পাকিস্তানের তরুণ ফাস্ট বোলার গোলাম মুদাসসার খানকে নিয়েছে সিলেট।

প্লেয়ার্স ড্রাফট থেকে সিলেট সিক্সার্সের বাছাই করা ক্রিকেটাররা

বাংলাদেশের ক্রিকেটারঃ আবুল হাসান রাজু, শুভাগত হোম, কামরুল ইসলাম রাব্বি, নাবিল সামাদ, মোহাম্মদ শরীফ, ইমতিয়াজ হোসেন তান্না, মোহাম্মদ শরীফুল্লাহ।

বিদেশী ক্রিকেটারঃ চতুরাঙ্গা ডি সিলভা (শ্রীলঙ্কা) এবং  গোলাম মুদাসসার খান (পাকিস্তান)।

বিপিএল ২০১৭ এর জন্য সিলেট সিক্সার্সের দল:

বিপিএল ২০১৭তে সিলেট সিক্সার্সের দল

মূলত প্লেয়ার্স ড্রাফটের আগে বেশ নামীদামী ক্রিকেটারদের দলে ভিড়িয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো যার কারণে ড্রাফট থেকে বেশি ক্রিকেটার কিনে নি। গত দুই আসরের মতো শক্তিশালী দল গঠন করতে পারেনি চিটাগং ভাইকিংস। ড্রাফট থেকে দলে ভিড়িয়েছে সানজামুল, আলামিন, আলাউদ্দিন বাবুদের।

অন্যদিকে প্লেয়ার্স ড্রাফটে ভাগ্য সহায় হয়েছিলো রাজশাহী কিংসের। প্রথম রাউন্ডেই কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমানকে দলে ভিড়িয়েছে তারা। মুস্তাফিজ বাদেও দলে নিয়েছে জাকির হাসান, রনি তালুকদার, নাইম ইসলাম জুনিয়রদের। বিদেশীদের মধ্যে দলে নিয়েছে পাকিস্তানের উসামা মির ও রাজা আলী দারকে।

অন্যদিকে প্লেয়ার্স ড্রাফট থেকে ভাল মানের ক্রিকেটার দলে ভিড়াতে সক্ষম হয়েছে খুলনা টাইটান্স। দলে নিয়েছে আফিফ হোসেন ধ্রুভ, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুক্তার আলি, আবু জায়েদ রাহীর মতো ক্রিকেটারদের। বিদেশীদের মধ্যে দলে নিয়েছে শেহান জয়াসুরিয়া, লুইস রিচিকে।

শাহরিয়ার নাফীস, আব্দুর রাজ্জাক, জিয়াউর রহমান, এবাদতদের দলে ভিড়িয়েছে রংপুর রাইডার্স। শুভাগত হোম, নাবিল সামাদ, আবুল হাসান রাজু, কামরুল রাব্বিদের দলে নিয়েছে সিলেট সিক্সার্স।

এক নজরে ড্রাফটে বিক্রিত ক্রিকেটারদের তালিকাঃ

চিটাগং ভাইকিংসঃ সানজামুল ইসলাম, মোহাম্মদ আলামিন, আলাউদ্দিন বাবু, তানভীর হায়দার খান, ইরফান শুক্কুর, নাঈম হাসান, ইয়াসির আরাফাত, নজিবুল্লাহ জরদান, লুইস রিচি।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সঃ আলআমিন হোসেন, আরাফাত সানি, আলক কাপালি, মেহেদী হাসান, মেহেদী হাসান রানা, এনামুল হক, রকিবুল হাসান, সুলেমান মিরে, রুম্মান রাইস।

ঢাকা ডাইনামাইটসঃ আবু হায়দার রনি, জহুরুল ইসলাম, নাদিফ চৌধুরী, সাকলাইন সজিব, সৈয়দ খালেদ হোসেন, সাদমান ইসলাম, নূর আলম সাদ্দাম, জো ডেনলি, আকিল হোসেন।

খুলনা টাইটান্সঃ নাজমুল হোসেন শান্ত, আবু জায়েদ রাহি, আফিফ হোসেন ধ্রুভ, ইয়াসির আলী, ইমরান আলী, মুক্তার আলী, ধীমান ঘোষ, সাইফ হাসান, শেহান জয়াসুরিয়া, জোফরা আর্চার।

রাজশাহী কিংসঃ মুস্তাফিজুর রহমান, জাকির হাসান, নিহাদ-উজ-জামান, রনি তালুকদার, হোসেন আলী, নাইম ইসলাম জুনিয়র, কাজী অনিক, উসামা মীর, রাজা আলী দার।

রংপুর রাইডার্সঃ শাহরিয়ার নাফীস, নাজমুল হোসেন অপু, জিয়াউর রহমান, ফজলে রাব্বি, আব্দুর রাজ্জাক, এবাদত হোসেন, ইলিয়াস, নাহিদুল, সাম হ্যান, শেনওয়ারী, জহির খান ।

Related Articles

ড্রাফট শেষে যেমন হলো ‘দ্য হান্ড্রেড’ এর দলগুলা

প্রথম রাউন্ড শেষে দলগুলো যেমন হলো

বোলিং আক্রমণ শক্ত করলো কুমিল্লা

তরুণদের নিয়ে দল সাজালো খুলনা টাইটানস

মুস্তাফিজকে নিয়ে বোলিংয়ের ধার বাড়ালো রাজশাহী