রাজ্জাকের ‘৭’ উইকেট; তামিমের সেঞ্চুরি মিসের আক্ষেপ

0
987

বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) ফাইনাল ম্যাচে আব্দুর রাজ্জাকের দাপুটে বোলিংয়ে এগিয়ে গিয়েছে বিসিবি দক্ষিণাঞ্চল। ইসলামি ব্যাংক পূর্বাঞ্চলের পক্ষে বড় ইনিংস খেলেন বিশ্বকাপজয়ী উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান তানজিদ হাসান তামিম। তৃতীয় দিন শেষে ৩৩৮ রানে এগিয়ে আছে দক্ষিণাঞ্চল।

 

Advertisment
তানজিদ হাসান তামিম। ফাইল ছবি

৩ উইকেটের বিনিময়ে ১১০ রান নিয়ে দিন শুরু করেন পূর্বাঞ্চল। ২১ রানে অপরাজিত থাকা মাহমুদুল হাসান বিদায় নেন ৩৩ রানে। পঞ্চম উইকেটে তামিমকে সাথে নিয়ে ৬৫ রানের জুটি গড়েন আফিফ হোসেন ধ্রুব। ৪৭ রান করে ধ্রুব ফিরলে ভেঙে যায় এই জুটি।

তারপর থেকেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে পূর্বাঞ্চল। ফলে স্কোরকার্ডে বড় রান যোগ করতে ব্যর্থ হয় তারা। দলের পক্ষে এক মাত্র অর্ধশতকটি হাঁকান তামিম। রাজ্জাকের শিকারে পরিণত হওয়ার আগে তিনি করেন ৮৭ বলে ৮২ রান। তার ইনিংসে ছিল ৭টি চার ও ২টি ছয়।

মূলত পূর্বাঞ্চলের ব্যাটিং লাইনআপ গুড়িয়ে দিয়েছেন আব্দুর রাজ্জাক। এই স্পিনার শিকার করেছেন ৭ উইকেট, পূর্বাঞ্চল অলআউট হয়েছে ২৭৩ রানে।

২১৩ রানের লিড নিয়ে ব্যাটিং করতে নেমে বিপাকে পড়েছে দক্ষিণাঞ্চলও। অবশ্য ইতোমধ্যে স্কোরকার্ডে বড় লিডও দাঁড় করিয়ে ফেলেছে তারা। তৃতীয় দিন শেষে দক্ষিণাঞ্চলের সংগ্রহ ৮ উইকেটের বিনিময়ে ১২৫ রান, লিড ৩৩৮ রানের।

৮০ রানের মাথায় ৭ উইকেট হারিয়ে ফেলে দক্ষিণাঞ্চল। এনামুল হক বিজয় ১০ (৮), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ১৭ (১১), শামসুর রহমান ১৬ (২৫) রান করে সাজঘরে ফেরেন। দিনশেষে অপরাজিত আছেন মেহেদী হাসান। তার নামের পাশে ৬৮ বলে অপরাজিত ৪১ রান। মেহেদীর সাথে ক্রিজে আছেন অধিনায়ক রাজ্জাক। তাদের সংগ্রহ ৮ উইকেটের বিনিময়ে ১২৫ রান।

পূর্বাঞ্চলের পক্ষে আবু হায়দার রনি ৪টি এবং হাসান মাহমুদ ও রুয়েল মিয়া ২টি করে উইকেট শিকার করেছেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

দক্ষিণাঞ্চল ৪৮৬/১০ ও ১২৫/৮
মেহেদী ৪১*, রিয়াদ ১৭, শামসুর ১৬, বিজয় ১০;
রনি ৪/৫১, হাসান ২/২২, রুয়েল ২/২২।

পূর্বাঞ্চল ২৭৩/১০ (১ম ইনিংস)
তামিম ৮২, ধ্রুব ৪৭, পিনাক ৩৮, আশরাফুল ২৮, কায়েস ২২;
রাজ্জাক ৭/১০২, শফিউল ২/৭২।

বিসিবি দক্ষিণাঞ্চল ৩৩৮ রানে এগিয়ে।