Scores

রান করেই জাতীয় দলে ফিরতে চান শান্ত

পারফর্ম করতে ব্যর্থ হওয়ায় সীমিত ওভারের ফরম্যাট থেকে বাদ পড়েছেন নাজমুল হোসেন শান্ত। জাতীয় দলে ফিরতে হলে রান করেই ফিরতে হবে তাঁকে। আর সেটি ভালোই করেই এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের।

রান করার অভ্যাস গড়তে চান নাজমুল। ছবিঃ শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট

ভবিষ্যতের কথা পরিকল্পনা করেই তাঁকে তিন নম্বরে ভাবা হচ্ছিল। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে সেই সুযোগ পেলেনও। তবে সাকিবের পরিবর্তে যে সুযোগটা পেয়েছিলেন হয়ত চাপেই রান করতে ব্যর্থ হয়েছিলেন। পরের সিরিজে ওয়ানডে দলে থাকলেও খেলানো হয়নি তাঁকে। অবশ্য নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ টি-টোয়েন্টিতে সুযোগ পেয়েও ব্যর্থ।

ফলস্বরূপ ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের দল থেকে বাদ পড়লেন তিনি। দলের অধিনায়ক তামিম তো সরাসরি বলেই দিয়েছেন রান করেই ফিরতে হবে তাঁকে। সেই লক্ষ্য নিয়ে ডিপিএলে নামবে নাজমুল। দল থেকে বাদ পড়লেও ব্যাটিং নিয়ে আলাদা কোন কাজ করার প্রয়োজনীয়তা দেখছেন না তিনি। তবে প্রিমিয়ার লিগে রান করেই জাতীয় দলে ফিরতে চান নাজমুল।

Also Read - তামিমকে আইসিসির জরিমানা

“আলাদা করে কাজ করার কিছু নাই। আমার কাছে যেটা মনে হয় যেখানেই খেলি না কেন পারফর্ম করাটা গুরুত্বপূর্ণ। নিয়মিত যেন রান করতে পারি, নিয়মিত যেন পারফর্ম করতে পারি, সেটা ঘরোয়া ক্রিকেট হতে পারে বা সেটা ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেট হতে পারে, যেকোন খেলাই হতে পারে। ওইটাই লক্ষ্য যে নিয়মিত রান করব, রান করতে চাই। রান করেই দলে ফিরতে চাই।”

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরির দেখা পান। তবে বাকি তিন ইনিংসে যেন অধারাবাহিকতার ভূত চেপে বসে নাজমুলের ঘাড়ে। ক্রিকেটটাররা কেন নিয়মিত রান করতে পারছেন না সেটির একটি কারণও ব্যাখ্যা করেন নাজমুল। তাঁর চাওয়া ঘরোয়া ক্রিকেটে নিয়মিত রান করার অভ্যাসটা তৈরি করতে পারলেই জাতীয় দলে রান করার অভ্যাসটা তৈরি হবে।

“আমি যেটা বললাম আমরা যখন ঘরোয়া ক্রিকেট খেলি ওই জায়গাগুলোতে আমাদের নিয়মিত রান করার অভ্যাসটা তৈরি করতে হবে। তাহলে আমার মনে হয় জাতীয় দলে যখন যাব তখন ওই নিয়মিত রান করার অভ্যাসটা তৈরি হবে। আমার কাছে মনে হয় রান করাটা একটা অভ্যাসের ব্যাপার। এই টুর্নামেন্টে আমরা ১৬টা ম্যাচ খেলব। এই ম্যাচগুলোতে যদি নিয়মিত রান করতে পারি তাহলে সেই অভ্যাসটা তৈরি হবে আস্তে আস্তে। তখনই জাতীয় দলে আমরা যখন ম্যাচ খেলব তখন নিয়মিত রান করতে পারব বলে মনে করি।”

আগামী ৩১ মে শুরু হতে যাচ্ছে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ। ডিপিএলে আবাহনীর হয়ে খেলবেন তিনি। আবাহনীতে তাঁর সতীর্থ হিসেবে রয়েছে মুশফিক, লিটন,নাঈম তাইজুলের মতো জাতীয় দলে নিয়মিত খেলা ক্রিকেটাররা।

Related Articles

সাইফউদ্দিন ঝলকে হ্যাটট্রিক শিরোপা জিতল আবাহনী

মহারণে ‘আকর্ষণীয়’ লড়াইয়ের অপেক্ষায় প্রাইম ব্যাংক

আবাহনীর শিরোপা জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী সুজন

আশরাফুলের ঝড়ো অর্ধশতকে ম্লান লিটন, আবাহনীর হার

দোলেশ্বরকে হারিয়ে আবারও শীর্ষে লিটন-সাইফউদ্দিনরা