Scores

রিয়াদের ব্যাটে চড়ে বাংলাদেশের লড়াকু সংগ্রহ

ত্রিদেশীয় টি-২০ সিরিজে ফাইনাল নিশ্চিতের ম্যাচে টপ অর্ডারে ছন্দপতনের পর ৪১ বলে ৬২ রানের দারুণ ইনিংস খেলে দলকে লড়াকু সংগ্রহ এনে দিয়েছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।  জিম্বাবুয়েকে ১৭৬ রানের লক্ষ্য দিয়েছে বাংলাদেশ।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টস হেরে প্রথমে ব্যাটিং করে বাংলাদেশ। দলে অভিষেক হয় নাজমুল হোসেন শান্ত এবং আমিনুল ইসলাম বিপ্লবের। উদ্বোধনী জুটিতে অভিষিক্ত নাজমুল হোসেন শান্তকে নিয়ে দলকে দারুণ সূচনা এনে দেন লিটন দাস। নাজমুল হোসেন শান্তকে ফিরিয়ে দিয়ে এ জুটি ভাঙেন কাইল জারভিস।  জারভিসের বলে ফ্লিক করতে চেয়েছিলেন শান্ত। কিন্তু ব্যাটের কানায় লেগে চলে যায় জারভিসের হাতে। ৯ বলে ১১ রানের ইনিংস দিয়ে আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্যারিয়ার শুরু করলেন শান্ত।

Also Read - পাকিস্তানের ‘স্বপ্নবাহক’ পিএসএল নিয়ে এত বড় দুর্নীতি!


পরের ওভারে লিটনও ধরেন সাজঘরের পথ। ক্রিস্টোফার এমপফুর বলে উড়িয়ে মারতে গিয়ে ধরা পড়েন নেভিলে মাদজিভার হাতে। এক ওভার পর অধিনায়ক সাকিব আল হাসানও ফিরে যান। রায়ান বার্লের বলে ডাউন দ্যা উইকেটে এসে তুলে মারতে গিয়ে সাকিব ধরা পড়েন শন উইলিয়ামসের হাতে। ৯ বলে ১০ রান করেন তিনি। হঠাৎ যেন ছন্দপতন ঘটে বাংলাদেশ দলের। বিনা উইকেটে ৪৯ থেকে ৬৫ রানে আসতে গিয়ে হারায় তিন উইকেট।

আগের ম্যাচে ওপেনিংয়ে নামা মুশফিকুর রহিম ফিরে আসেন চারে। পাঁচে নামা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সঙ্গে বাঁধেন জুটি। ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথম বলেই ছক্কা মারেন মাহমুদউল্লাহ। রায়ান বার্লের বলে উইকেট ছেড়ে বেরিয়ে এসে বলকে পাঠান বাউন্ডারির বাইরে।

দুই ব্যাটসম্যানই চড়াও হচ্ছিলেন জিম্বাবুয়ের বোলারদের ওপর। বাউন্ডারি হয়েছে প্রায় প্রতি ওভারেই। বাজে বল পেলে কিংবা মাঠের ফাঁকা জায়গা পেলেই সুযোগ কাজে লাগিয়েছেন দুজন। তাদের জুটিতে ভর করে লড়াকু সংগ্রহের দিকে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। ১৩ ও ১৪ তম ওভারে দুই ছক্কা মারেন রিয়াদ। পরের ওভারে পছন্দের শট স্লগ সুইপ খেলে ছক্কা মারেন মুশফিক। পরের বলে আবারো তুলে মারতে গিয়ে ক্যাচ দিলেও জীবন পান মুশফিক।

জীবন পাওয়ার পর বেশীক্ষণ টিকেননি মুশফিক। তিনোতেন্দা মুতুম্বোদজির বলে সুইপ করতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ব্রেন্ডন টেলরের হাতে ক্যাচ দেন তিনি। ২৬ বলে ৩২ রান করে সাজঘরে ফিরেন মুশফিক। ভাঙে ৭৮ রানের জুটি। ১৪৩ রানের মাথায় পতন ঘটে চতুর্থ উইকেটের।

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ তুলে নেন অর্ধশতক। এম্পফুর বলে ছক্কা মেরে অর্ধশতকে পৌছান তিনি। তবে যে হার্ডহিটিং ব্যাটিংয়ের প্রয়োজন ছিল সেটা করতে পারেননি আফিফ হোসেন ধ্রুব। ৮ বলে ৭ রান করে এমপফুর অফ স্টাম্পের বেশ বাইরের বলে ড্রাইভ করতে গেলে বল কানায় লেগে চলে যায় টেলরের গ্লাভসে। ঐ ওভারের শেষ বলে আরেকটি ছক্কা হাঁকান রিয়াদ।

শেষ ওভারে জারভিসের বলে ফিরেন রিয়াদ। ফুল্টস বলে ছক্কা মারার জন্য ব্যাট ঘুরালেও ধরা পড়েন শন উইলিয়ামসের হাতে।  তার ৬২ রানের ইনিংসে চার ছিল ১ টি আর ছক্কা ছিল ৫ টি। পরের বলটি যেন ছিল তার রিপ্লে। রিয়াদের মতো ফুল্টস তুলে মারতে গিয়ে বিদায় নেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। তিনি করেন ৩ বলে ২। শেষ ২ বল খেলে এক চারের সুবাদে সাইফুদ্দিন ৬ রান করেন। ৭ উইকেটে ১৭৫ রান তুলে বাংলাদেশ। টি-২০ তে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে এটিই বাংলাদেশের জন্য সর্বোচ্চ স্কোর। শেষ ১০ ওভারে ৪ উইকেটের বিনিময়ে ৯২ রান তুলে বাংলাদেশ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বাংলাদেশ ১৭৫/৭, ২০ ওভার
রিয়াদ ৬২, লিটন ৩৮, মুশফিক ৩২, শান্ত ১১
জারভিস ৩/৩২, এমপফু ২/৪২, বার্ল ১/১৩

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
Tweet 20
fb-share-icon20

Related Articles

টপ অর্ডারে বিপর্যয়, মিঠুনের ব্যাটে মান বাঁচাল বাংলাদেশ

জাকির-রাব্বির ব্যাটে ‘এ’ দলের লড়াকু সংগ্রহ

হেটমেয়ারের শতকে বড় লক্ষ্য ছুঁড়ে দিল উইন্ডিজ