রিয়াদ-কায়েস জুটিতে লড়ছে বাংলাদেশ

লিটন দাসের আউটের পর পরপর সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিমের টানা দুই রান-আউটে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৮৭ রানে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। খাদের কিনারা থেকে দলকে টেনে তুলতে এরপর ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে লড়ে যাচ্ছেন ইমরুল কায়েস ও বাংলাদেশের বিপদের বন্ধু মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

মাহমুদউল্লাহ

আবুধাবির শেখ আবু জায়েদ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্তের পর সচেতনার সাথে শুরু করেন লিটন দাস ও নাজমুল হোসেন শান্ত। তবে ক্রিজে এদিনও বেশিক্ষণ নিজেকে শান্ত করে ধরে রাখতে পারেননি নাজমুল। যার খেসারত তাকে দিতে হয় দলীয় ১৬ রানে আফতাব আলমের বলে আউট হয়ে।

এরপর ক্রিজে আসেন মোহাম্মদ মিঠুন। ব্যাটিং অর্ডারে উপরের দিকে খেলার সুযোগ পেলেও এদিন টিম ম্যানেজমেন্টের প্রতিদান দিতে পারেননি তিনি। ১ রান করে মুজিব উর রহমানের ফাঁদে পা দিয়ে সাওঘরে ফিরেন তিনি। আর এতে ১৮ রানে দ্বিতীয় উইকেটের পতন ঘটে বাংলাদেশের।

Also Read - নতুন ফাইলফলক স্পর্শ করলেন মুশফিক

এরপর তৃতীয় উইকেট জুটিতে প্রাথমিক বিপর্যয় কাটিয়ে দলকে লড়াইয়ে ফেরান মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাস। আত্মবিশ্বাসের সাথে ব্যাট করতে থাকা লিটন ৪৩ বলে ৪১ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলে রশিদ খানের ফাঁদে পা দিলে বিচ্ছিন্ন হয় দুজনের মধ্যকার ৬৩ রানের জুটির।

দলীয় ৮১ রানে তিন উইকেট হারানো বাংলাদেশ এরপর আবারও সম্মুখীন হয় ব্যাটিং বিপর্যয়ের। সাকিব আল হাসান ও মুশফিকের ভুল বুঝাবুঝিতে রানের খাতা না খুলতেই সাজঘরে ফিরেন সাকিব। এরপর মুশফিকেরও হয় একই পরিণতি। ৩৩ রান করা মুশফিক রান আউট হলে ৮৭ রানে পঞ্চম উইকেটের পতন ঘটে বাংলাদেশের।

এরপর কায়েসের সাথে ক্রিজে যোগ দিয়ে দলের ব্যাটিং বিপর্যয় এড়াতে লড়াই শুরু করেন মাহমুদউল্লাহ। ইতোমধ্যে ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে ৫০+ রান যোগ করে ব্যাট করে চলেছেন এ দুজন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৩৫.১ ওভারের খেলা শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৫ উইকেটের বিনিময়ে ১৫০ রান।

২৯ রান নিয়ে কায়েস ও ব্যক্তিগত ৩৭ রানে অপরাজিত রয়েছেন মাহমুদউল্লাহ।

Related Articles

এই মিরাজ অনেক আত্মবিশ্বাসী

মিঠুনের ‘মূল চরিত্রে’ আসার তাড়না

‘আঙুলটা আর কখনো পুরোপুরি ঠিক হবে না’

এক নয় মাশরাফির তিন ইনজুরি

‘বিশ্ব ক্রিকেটে সম্মানজনক জায়গা আদায় করেছে বাংলাদেশ’