রুবেলের ভয় ‘অঘটন’ নিয়ে

আগামীকাল (১৫ই অক্টোবর) থেকে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশের জিম্বাবুয়ে সিরিজের প্রস্ততি। আর পরেরদিনই দেশে পা রাখবে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল। সাম্প্রতিক সময়ের পারফরম্যান্সে জিম্বাবুয়ের থেকে অনেক এগিয়ে টাইগাররা। তাই, সেটি প্রমাণ করতে চায় বাংলাদেশ। এমনটিই ইঙ্গিত জাতীয় দলের পেসার রুবেল হোসেনের কন্ঠে। 

রুবেল হোসেন © গেটি ইমেজ

 

এশিয়া কাপের পর ইনজুরিতে জর্জরিত বাংলাদেশ দল। ছিঁটকে গেছেন দুই সেরা খেলোয়াড় তামিম-সাকিব। টুকটাক ইনজুরি কাটিয়ে বাকিরা আছেন স্কোয়াডে। এরপরেও সাকিব-তামিমের অভাব কি বোধ করবে বাংলাদেশ?

এমন প্রশ্ন রুবেলের জবাব, ‘সাকিব ভাই-তামিম ভাই আমাদের দলের সেরা খেলোয়াড়। সন্দেহ নেই আমরা তাঁদের মিস করব। কিন্তু আবার অন্য দিক দিয়ে দেখেন এটা একটা সুযোগও। আমাদের দলের বাকি যারা আছে, তারাও যে ম্যাচ জেতাতে পারে, সেটা প্রমাণের সুযোগ। আশা করি, এই সিরিজে তাঁরা দুজন না থাকায় কোনো সমস্যা হবে না।’

Also Read - এনসিএলের পরই অবসর নিচ্ছেন রাজিন সালেহ

এদিকে গত কয়েক বছরের পারফরম্যান্স বিবেচনায় জিম্বাবুয়ের থেকে অনেক এগিয়ে বাংলাদেশ দল। আইসিসি ক্রিকেট র‍্যাংকিংয়ে ৯২ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে সাত নম্বরে আছে বাংলাদেশ। অন্যদিকে ৫৩ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে জিম্বাবুয়ের অবস্থান ১১ নম্বরে। দর্শকরা ধরেই নেন সহজেই জিতবে বাংলাদেশ। ফলাফলও অবশ্য তাই বলছে।

তবে পেসার রুবেলের ভয় ‘অঘটন’ নিয়ে। ম্যাচ যেন হাত থেকে ফসকে না যায়, সেজন্য সেরাটা দেবার প্রত্যয় রুবেলের কন্ঠে।  তিনি বলেন, ‘জিম্বাবুয়ের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স দেখেন আর আমাদেরটা দেখেন। এখন কোনোভাবে যদি একটা অঘটন ঘটে যায় তাহলেই বিপদ। ওদের সঙ্গে আমাদের পারফরম্যান্সটা তাই খুব ভালো হতে হবে। যাতে কোনোভাবেই কোনো ম্যাচ আমাদের হাত ফসকে না যায়। জিম্বাবুয়ের সঙ্গে খেলা মানেই এই চাপটা থাকবেই।’

উল্লেখ্য, ২১ অক্টোবর প্রথম একদিনের ম্যাচে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মাঠে নামবে বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ে। সিরিজের পরের দুই ওয়ানডে হবে চট্টগ্রামে; ২৪ ও ২৬ অক্টোবর।

[আরও পড়ুনঃ “প্রথম শ্রেণিতে খেলা খেলোয়াড়ের জন্য বিনিয়োগ”]

Related Articles

ঢাকায় পা রাখল জিম্বাবুয়ে

জিম্বাবুয়ে সিরিজের প্রস্তুতি শুরু

বিশ্রামের সময়েও ‘পরিশ্রমী’ মুশফিক

জিম্বাবুয়ে সিরিজে দল নিয়ে চলবে পরীক্ষা

নান্নুর কাছে সবচেয়ে ‘কঠিন সিরিজ’