রেকর্ড বই ওলট-পালট করে দিল ইংল্যান্ড

নটিংহ্যামে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দানবীয় ব্যাটিং করেছে ইংল্যান্ড। ব্যাট হাতে তারা ধারণ করেছে বিধ্বংসী রূপ। অজি বোলারদের ওপর ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়ে রানের বন্যা বইয়ে দেন তারা। একের পর এক স্ট্রোক খেলে ছোটান রানের ফোয়ারা। ব্যাটসম্যানদের দাপটে ইংল্যান্ডের বিশ্বরেকর্ড।

৯২ বলে ১৩৯ রানের ইনিংস খেলেন জনি বেয়ারস্টো। সমান বল মোকাবেলা করে অ্যালেক্স হেলস করেছেন ১৪৭ রান। তাদের ঝড়ো শতকের সুবাদে ৪ উইকেট হারিয়ে ৪৮১ রানের এক বিশাল স্কোর গড়েছে ইংল্যান্ড। ওলট-পালট করে দিয়েছে রেকর্ড বই।

এ স্কোর গড়ে নিজেদের ৪৪৪ রানের রেকর্ড টপকে গিয়েছে তারা। পাকিস্তানের বিপক্ষে নটিংহ্যামেই করেছিল ৪৪৪। সেই স্কোরকে ছাড়িয়ে গেল এই নটিংহ্যামেই। ছেলেদের আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ক্রিকেটে এটিই এখন সর্বোচ্চ দলীয় স্কোর।

Also Read - বল টেম্পারিংয়ে চান্দিমালের নিষেধাজ্ঞা ও জরিমানা

ইনিংসে গড়ে প্রতি ওভারে ৯.৬২ করে রান নিয়েছে ইংল্যান্ড। এটিও একটি রেকর্ড। কোনো সম্পূর্ণ ইনিংসে সর্বোচ্চ রানরেট এটি। এর আগের রেকর্ডটাও ছিল তাদের দখলে। পাকিস্তানের বিপক্ষে ৪৪৪ রান করার ম্যাচে ওভার প্রতি গড়ে ৮.৮৮ করে রান নিয়েছিল তারা। যেকোনো দৈর্ঘ্যের ইনিংসে এটি ষষ্ঠ সর্বোচ্চ।

ইংল্যান্ডের ৪৮১ রানের ইনিংসে ছিল ২১ টি ছক্কা। পেরিয়ে গিয়েছে ভারতের বিপক্ষে ২০১৫ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার ২০ ছক্কাকে। ওয়ানডে ক্রিকেটে এক ইনিংসে এটি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ছক্কা। তালিকার শীর্ষে রয়েছে ২০১৪ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের ২২ ছক্কা। তবে এর আগে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এত ছক্কা কেউ মারেনি। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এর আগে সর্বোচ্চ ছয়ের রেকর্ড ছিল ১৯টি।

৪৮১ রানের মধ্যে বাউন্ডারি থেকে ২৯০ রান সংগ্রহ করেছে তারা। এক ইনিংসে বাউন্ডারি থেকে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের রেকর্ডটাও নিজেদের দখলে নিয়ে গেল ইংল্যান্ড। এর আগে ২০১৫ সালে এক ইনিংসে ভারতের বিপক্ষে বাউন্ডারি থেকে ২৭২ রান নিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। সেই রেকর্ড ভেঙেছে বেয়ারস্টো-হেলসরা।

লিস্ট এ ক্রিকেটে এটি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ভারত ‘এ’ দলের ৪৫৮ রান টপকে গিয়েছে তারা। প্রথম স্থানে রয়েছে ২০০৭ সালে সারের করা ৪ উইকেটে ৪৯৬।

চার ও ছক্কা মিলিয়ে ৬২ বার (৪১ টি চার ও ২১ টি ছক্কা) বলকে বাউন্ডারির বাইরে ফেলেছে ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা। এক ইনিংসে এটি সর্বোচ্চ বাউন্ডারির রেকর্ড। এ রেকর্ডটি আগে শ্রীলঙ্কা ও ইংল্যান্ডের ছিল। দুই দলেরই ছিল ৫৯ টি বাউন্ডারির রেকর্ড। এবার রেকর্ডটি একার করে নিল ইংল্যান্ড।

প্রথম উইকেট জুটিতে ১৫৯ রান তোলে ইংল্যান্ড। দ্বিতীয় উইকেট থেকে আসে আরো ১৫১ রান। চতুর্থ উইকেট জুটিতে আরো ১২৪ রান যোগ করে ইংল্যান্ড। এ নিয়ে ওয়ানডে ক্রিকেটে তৃতীয়বারের মতো এক ইনিংসে তিনটি শতরানের জুটি হলো। এর আগে তিনটি শতরানের জুটি গড়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা (২০০৭ সালে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে) ও নিউজিল্যান্ড (২০১৩ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে)।

ব্যাট হাতে যেন রানের উৎসবে মেতেছিল ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরা। রয়েছে বেশ কিছু ব্যক্তিগত রেকর্ডও।

মাত্র ২১ বলেই নিজের অর্ধশতক পূরণ করেছেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক ইয়ন মরগান। ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে এটি দ্রুততম অর্ধশতক। এর আগের রেকর্ডটা ছিল জস বাটলারের। পাকিস্তানের বিপক্ষে ২২ বলে অর্ধশতক হাঁকিয়েছিলেন জস বাটলার। এ ইনিংস খেলে ইয়ান বেলকে টপকে গিয়েছেন মরগান। ওয়ানডেতে ৫৪১৬ রান করেন বেল। মরগানের বর্তমান সংগ্রহ ৫৪৪৩। তিনি এখন ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক।

নিজের সর্বশেষ ছয় ইনিংসে এটি বেয়ারস্টোর চতুর্থ শতক। কমপক্ষে ২০ ইনিংস খেলা ওপেনারদের মধ্যে এখন সর্বোচ্চ গড় বেয়ারস্টোর। ২০ ইনিংসে ৬৫.৭৬ গড় বেয়ারস্টোর। এর আগে এ রেকর্ড ছিল ভারতের ওপেনার রোহিত শর্মার। ৯৬ ইনিংসে ওপেনিংয়ে নেমে তার গড় ৫৩.৮০।

বেয়ারস্টোর স্ট্রাইক রেট ১১৪.১৯। কমপক্ষে ২০ ইনিংস ওপেনিং করা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে এটিই সর্বোচ্চ। এছাড়া ১১৩.৪০ স্ট্রাইক রেট রয়েছে পাকিস্তানের ২৫ ইনিংসে ইনিংস উদ্বোধন করতে নামা শারজীল খানের।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-


আরো পড়ুনঃ ইতিহাস গড়তে যাচ্ছে কারান ভ্রাতৃদ্বয়


 

Related Articles

টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে বড় ধাক্কার সম্মুখীন অস্ট্রেলিয়া

আব্বাসের বোলিংয়ে অজিদের বিপক্ষে পাকিস্তানের সিরিজ জয়

হাস্যকর রান আউটে মজা পেয়েছেন আজহার নিজেও!

আমিরাতে ইতিহাস গড়তে চলেছে অস্ট্রেলিয়া

মারাত্মক ব্যাটিং বিপর্যয়ে পাকিস্তান