Scores

অস্ট্রেলিয়ার সেই ধর্ষক ক্রিকেটারের ৫ বছরের জেল

অবশেষে ২ বছর আগের ধর্ষণ মামলার সাজা দেওয়া হলো অজি খেলোয়াড়কে। গত বুধবার ইংল্যান্ডের একটি আদালতে ধর্ষণের মামলায় পাঁচ বছরের জেলের শাস্তি দেওয়া হয় অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার এলেক্স হেপবার্নকে।

 

রোডসের প্রশ্রয় দেওয়া ধর্ষক ক্রিকেটারের ৫ বছরের জেল
ছবি : এলেক্স হেপবার্ন ও তার গার্লফ্রেন্ড, বিবিসি

 

Also Read - টি-২০ র‍্যাংকিং: টাইগারদের ঘাড়ে নেপালের নিঃশ্বাস


২৩ বছর বয়সী এলেক্স হেপবার্ন ইংলিশ কাউন্টি দল উরচেষ্টারশায়ারের খেলোয়াড় ছিলেন যখন এই ধর্ষণের ঘটনা হয় ২০১৭ সালে। ২০১৭ সালে তার টিমমেট জো ক্লার্কের প্রেমিকা সেই নারীকে ঘুমন্ত অবস্থায় তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে গিয়ে ধর্ষণ করেন এলেক্স হেপবার্ন। পরবর্তীতে এই সংবাদ প্রকাশ পায় আরো কয়েক মাস পর।

 

 

দুই বছর বিচারকার্য চলার অবশেষে গত বুধবার আদালত নির্যাতিতার পক্ষে রায় দেওয়া হয়। আদালতে আরো জানানো হয় হেপবার্নের ও তার বন্ধুদের একটি হোয়াটসএপ গ্রুপ ছিলো যেখানে নারীদের ব্যাপারে অশ্লীল কথাবার্তা বলা হতো ও সেখান থেকেই হেপবার্ন যেন প্রতিযোগিতায় নামেন কত বেশি নারীর সাথে বিছানায় যাওয়া যায়। এই বিচারের রায়ে স্বস্তি জানিয়েছে ইংল্যান্ডের ক্রিকেট ভক্তরা।

উল্লেখ্য, এলেক্স হেপবার্নকে সহায়তা করার অভিযোগে বাংলাদেশ জাতীয় দলের কোচ স্টিভ রোডস তার এক যুগেরও লম্বা সময় ধরে চলে আসা চাকুরি হারান। হেপবার্নের ঘটনার সময় স্টিভ রোডস ছিলেন উরচেষ্টারশায়ারের ডাইরেক্টর অফ ক্রিকেট । স্টিভ রোডস ৩ যুগ ধরে উরচেষ্টারশায়ারের সাথে ছিলেন একজন খেলোয়াড়, পরবর্তীতে একজন কোচ ও ক্রিকেট ডাইরেক্টর হিসেবে।

ধর্ষণের পর পুলিশ যখন ১লা এপ্রিল হেপবার্নকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সেই কথা শুধুমাত্র স্টিভ রোডসই জানতেন, হেপবার্ন তাকে অনুরোধ করেন কথাটি কাউকে না জানাতে। রোডস তার কথা রাখেন ও তার অপরাধের কথা চেপে যান । এই সময় হেপবার্ন উরচেষ্টারশায়ারের সাথে নতুন একবছরের চুক্তিও করে ফেলে। তবে নভেম্বরে টিম ম্যানেজমেন্টও এই ঘটনা জেনে যাওয়ার পর স্টিভ রোডসকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়। তাদের অভিযোগ ছিলো রোডস এই ঘটনা জানার পরও দলকে না জানানোয় তাকে অব্যাহতি দেওয়া হচ্ছে।

স্টিভ রোডসের ২০১৮ সালের অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড দলের কোচিং স্টাফেও থাকার কথা ছিলো, তবে উরচেষ্টারশায়ার তাকে এই ঘটনায় অব্যাহতি দেওয়ার পর ইংল্যান্ডের কোচ হওয়ার সুযোগও হারান স্টিভ রোডস। কয়েক মাস পর জুলাই মাসে বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব গ্রহন করেন স্টিভ রোডস।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

বাংলাদেশ সফরে আসছে না জিম্বাবুয়ে

‘টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দেখাব কতটা ভালো দল আমরা’

বাংলাদেশের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার স্কোয়াডে কেন এত খেলোয়াড়?

প্রস্তুতি ম্যাচেই বড় পরীক্ষা দিতে হবে টাইগারদের

কড়া নিরাপত্তায় কলম্বো পৌঁছাল বাংলাদেশ দল