লর্ডসে অ্যান্ডারসনের শতক

মুত্তিয়া মুরালিধরনের পর টেস্ট ইতিহাসের দ্বিতীয় বোলার হিসেবে এক ভেন্যুতে একশ উইকেট শিকারের কীর্তি গড়েছেন ইংলিশ ডানহাতি পেসার জেমস অ্যান্ডারসন। ভারতের বিপক্ষে লর্ডসে দ্বিতীয় টেস্টে এ কীর্তি গড়েন তিনি।

ভারতের দ্বিতীয় ইনিংসের তৃতীয় ওভারেই ভারতের ওপেনার মুরালি বিজয়কে সাজঘরে ফেরান জেমস অ্যান্ডারসন। অ্যান্ডারসনের বলে রানের খাতা খোলার আগেই উইকেটরক্ষক জনি বেয়ারস্টোর হাতে ক্যাচ দিয়ে মাঠ ছাড়েন মুরালি বিজয়। এ উইকেট দিয়েই লর্ডসে উইকেটের শতক হাঁকান অ্যান্ডারসন।

লর্ডসে একশ উইকেট নেওয়া প্রথম বোলার তিনি। লোকেশ রাহুলকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে সাজঘরে ফেরানোর পর লর্ডসে এ পেসারের উইকেটসংখ্যা ১০১। এছাড়া লর্ডসে ৭৯ টেস্ট উইকেট রয়েছে আরেক ইংলিশ পেসার স্টুয়ার্ট ব্রডের।

Also Read - “সিরিজটি অনেক স্মরণীয় হয়ে থাকবে”

মুরালি বিজয়ের উইকেট শিকার করে টেস্টে ৫৫০ উইকেটের মাইলফলকও স্পর্শ করেছেন অ্যান্ডারসন। এছাড়া এ নিয়ে ১৫১ বারের মতো কোনো ওপেনারকে সাজঘরে ফেরালেন তিনি।

এর আগে তিনবার এ কীর্তি গড়েন শ্রীলঙ্কার কিংবদন্তী স্পিনার মুত্তিয়া মুরালিধরন। কলম্বোর সিংহলিজ স্পোর্টস গ্রাউন্ড, ক্যান্ডির আসগিরিয়া স্টেডিয়াম এবং গলে আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে একশ উইকেট রয়েছে মুরালিধরনের। কলোম্বোতে তার ১৬৬ উইকেট এক মাঠে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারের তালিকায় প্রথমে রয়েছে। এছাড়া সাদা পোশাকে ক্যান্ডিতে ১১৭টি এবং গলেতে ১১১টি উইকেট নিয়েছেন তিনি।

লর্ডস টেস্টে চালকের আসনে রয়েছে ইংল্যান্ড। বল হাতে ভারতকে বেশ ভুগিয়েছেন জেমস অ্যান্ডারসন। প্রথম ইনিংসে পাঁচ উইকেট শিকার করে ভূমিকা রাখেন ১০৭ রানে অলআউট করতে। দ্বিতীয় ইনিংসেও তার বোলিংয়েই নাকাল ভারত। মধ্যাহ্ন বিরতির আগে ১৭ রানেই দুই উইকেট হারিয়েছে তারা। দুইটি উইকেটই পেয়েছেন জেমস অ্যান্ডারসন। সাজঘরে ফিরিয়েছেন বিজয় ও রাহুলকে।

দ্বিতীয় ইনিংসে এখনো ২৭২ রানে পিছিয়ে আছে সফরকারীরা। ব্যাট হাতে দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতে যে বিপর্যয়, তা কাটিয়ে না উঠতে পারলে ভারতের জন্য ইনিংস ব্যবধানের পরাজয় অনিবার্য।


আরো পড়ুনঃ লিডের পাহাড় গড়ছে ইংল্যান্ড


 

Related Articles

জিম্বাবুয়ে সিরিজের টাইটেল স্পন্সর ইউসিবি

আব্বাসের বোলিংয়ে অজিদের বিপক্ষে পাকিস্তানের সিরিজ জয়

জয় ছাড়া কিছু ভাবছে না জিম্বাবুয়ে

অজিদের বিপক্ষে পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি দলেও নেই আমির

আজহার আলির হাস্যকর আউটে টুইটারে সমালোচনার ঝড়