লিটনের ব্যাটিং নৈপুণ্যে আবাহনীর বড় জয়

0
637

Liton-Man-of-the-Match

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ২০১৬-১৭ মৌসুমের ‘সুপার লিগ’ রাউন্ডের নিজেদের প্রথম ম্যাচে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের বিপক্ষে জয় তুলে নিয়েছে ডিপিএলের অন্যতম শক্তিশালী দল আবাহনী লিমিটেড। প্রিমিয়ার লিগে প্রথম পর্বে পয়েন্ট টেবিলের তৃতীয় স্থানে থেকে সুপার লিগে উঠে এসেছে এই শক্তিশালী দল। সাভারে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন প্রাইম ব্যাংক অধিনায়ক আসিফ আহমেদ।

Advertisment

প্রিমিয়ার লিগের গত মৌসুমে ব্যাট হাতে খরা কাটলেও এবারের মৌসুমে উজ্জ্বল লিটন দাস। চলতি মৌসুমে ইতিমধ্যে দুটি শতকও রয়েছে এই ব্যাটসম্যানের। ওপেনার সাদমানের বিদায়ের পর ব্যাট হাতে প্রাইম ব্যাংক বোলারদের শাসান সাইফ হাসান ও লিটন দাস। লিটনদের ব্যাটিং ধারাবাহিকতা দেখে এবারের মৌসুমে তৃতীয় শতক কেবল সময়ের ব্যাপার মনে হয়েছিল অনেকের তবে লিটনকে ৮৫ রানে থামিয়ে দেন নাজমুল ইসলাম অপু।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের চলতি মৌসুমে ধারাবাহিক পারফর্ম করছেন তরুণ ক্রিকেটার নাজমুল হাসান শান্ত। খেলেন ৬৫ রানের ইনিংস। অর্ধশতক ছুঁতে পারেননি সাইফ হাসান। লিটন, শান্তর পর ব্যাট হাতে এইদিনে জ্বলে উঠেন আবাহনী অধিনায়ক মোহাম্মদ মিঠুন। ব্যক্তিগত ৬০ রানে আরিফুলের বলে সাজঘরে ফিরেন তিনি। দুই দফায় বৃষ্টির কারণে ৪৭ ওভারে ৬ উইকেটে ৩২১ রান সংগ্রহ করে আবাহনী। প্রাইম ব্যাংকের হয়ে দুটি করে উইকেট পান আল-আমিন হোসেন এবং আরিফুল হক।

৩২২ রানের লক্ষ্য ব্যাটিং করতে নেমে ইনিংসের শুরুটা ভালো করেন প্রাইম ব্যাংকের দুই ওপেনার মেহেদী মারুফ ও জাকির হাসান। ব্যক্তিগত ২৮ রান করে মেহেদীকে সাজঘরে ফেরান শুভাগত। অর্ধশতক পান প্রাইম ব্যাংকের তরুণ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান জাকির হাসান। নাহিদুলকে সঙ্গে নিয়ে ৫৩ রানের জুটি গড়েন জাকির। ৫৭ রান করা জাকিরকে ফেরান আফিফ এবং ৪৩ রান করা নাহিদুলকে ফেরান মানান শর্মা। প্রাইম ব্যাংকের হয়ে জাকির বাদে ৫০ ছুঁতে পারেননি আর কেউই।

অর্ধশতক থেকে ৭ রান দূরে থেকে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের বলে সাজঘরে ফেরেন ইশ্বরন (৪৩)। জাকির, ইশ্বরন, নাহিদুল বাদে বড় সংগ্রহ পাননি আর কেউই। ২৪ রান করা সালমান হোসেনকে ফেরান সাকলাইন সজিব,  ১৯ রান করে সাজঘরে ফেরেন আল-আমিন। শেষদিকে প্রাইম ব্যাংকের অধিনায়ক আসিফ আহমেদের ৩২ রানে শুধু পরাজয়ের ব্যবধান কমায় প্রাইম ব্যাংক। আবাহনীর হয়ে ৩টি লাভ করেন ইশ্বরন এবং দুটি করে উইকেট লাভ করেন সাইফউদ্দিন, আফিফ, শুভাগত।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

আবাহনী লিমিটেড ৩২১/৬ (ওভার ৪৭)

লিটন দাস ৮৫, শান্ত ৬৫ঃ আল-আমিন ২-৪৩

প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব ২৭৩ (ওভার ৪৩.৩)

জাকির হাসান ৫৫, নাহিদুল ৪৩ঃ ইশ্বরন ৩-৫৪

ফলাফলঃ ৬০ রানে জয়ী আবাহনী লিমিটেড।

ম্যাচ সেরাঃ লিটন দাস (আবাহনী লিমিটেড)