Scores

লিটন-আফিফই ছিলেন আমিরের মূল ‘টার্গেট’

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের প্রথম কোয়ালিফায়ারে রাজশাহী রয়্যালসকে ২৭ রানে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে খুলনা টাইগার্স। খুলনার এই জয়ে মূল অবদান পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ আমিরের, যিনি মাত্র ১৭ রানের খরচায় শিকার করেন ৬ উইকেট।

লিটন-আফিফই ছিলেন আমিরের মূল ‘টার্গেট’

শুরুতেই রাজশাহীর ব্যাটিং লাইনআপে হানা দিয়ে মনোবল ভেঙে দেন আমির। সেই সুবিধা কাজে লাগিয়ে দল তুলে নেয় জয়। আমির জানান, রাজশাহীর হয়ে ফর্মে থাকা দুই ওপেনার লিটন দাস ও আফিফ হোসেনকেই আউট করার মূল লক্ষ্য নিয়ে বল হাতে নিয়েছিলেন তিনি।

Also Read - সুজনের বন্দনায় মেতেছেন আমির







সুইং দিয়ে ব্যাটসম্যানদের নাকাল করা আমির বলেন-

‘ফ্লাডলাইটের আলোতে বল করলে আপনি অবশ্যই সুইং করাতে চাইবেন। আমি মনে করি ঠিক জায়গায় বল করতে পারছিলাম। জানতাম- তাদের দুই ওপেনারই ছন্দে রয়েছে, তাই তাদের দুজনকে সাজঘরে ফেরাতে পারলে আমাদের জয়ের সুযোগ বেড়ে যাবে। এটা কাজে দিয়েছে।’





ম্যাচ জেতানো পারফরম্যান্সের পর আমির অবশ্য একা সব কীর্তি মেনে নিতে রাজি নন। তাই কৃতিত্ব দিচ্ছেন বাকি তিন বিভাগের সবাইকেই। বিশেষ প্রশংসা করেছেন ৫৭ বলে ৭৮ রান করা নাজমুল হোসেন শান্তর।

তিনি বলেন, ‘ব্যাটসম্যানদেরই কৃতিত্ব দিতে হবে। ম্যাচের শুরুতে ব্যাটসম্যানদের কাজটা সহজ ছিল না, বোলাররাও সহায়তা পাচ্ছিল। শেষপর্যন্ত ভালোই ব্যাটিং হয়েছে। শান্তকে কৃতিত্ব দিতে চাই। সে এভাবে ব্যাট করাতেই স্কোরবোর্ডে লড়াকু পুঁজি জড়ো করা সম্ভব হয়েছিল, বোলাররা ম্যাচ জেতানোর মত পুঁজি পেয়েছিল। তাই আমার মতে কৃতিত্বটা ব্যাটসম্যানদেরই।’

‘উইকেটে বোলারদের জন্য কিছু সহায়তা ছিলই। আমি ঠিক জায়গাতে বল করার চেষ্টা করেছি, বেশি কিছু ভাবিনি। অন্য বোলারদেরও কৃতিত্ব দেওয়া উচিত। তারাও দারুণ করেছে। রাজশাহীর ইনিংসের একটা পর্যায়ে অবশ্য বোলিং কঠিন হয়ে পড়েছিল, অনেক কুয়াশা ঝরছিল। আর ফিল্ডারদেরও ধন্যবাদ। সম্পূর্ণ দলীয় পারফরম্যান্স ছিল।’

নিজের পারফরম্যান্সকে মূল্যায়িত করে তারকা এই পেসার বলেন, ‘আমি সবসময় ভাগ্যে বিশ্বাস করি। কখনো আপনি ভালো বল করেও উইকেট পাবেন না। কখনো আপনি ফুলটস বা প্রশস্ত বলেই উইকেট পেয়ে বসবেন। বিশেষ করে টি-টোয়েন্টিতে ভাগ্যের ছোঁয়া বেশি প্রয়োজন।’

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

নিলামে গেইল-রিয়াদদের স্বাক্ষরিত ব্যাট

বাংলাদেশকে ‘ধন্যবাদ’ রুশোর, আতিথেয়তায় মুগ্ধ নেওয়াজ

গিবসের বিস্ফোরক মন্তব্য নিয়ে মুখ খুললেন ডমিঙ্গো

সর্বোচ্চ উইকেট শিকারে খুলনা টাইগার্সের দাপট

মুশফিক হাসলেন, মুশফিক চটলেন!