শরিফুলের চোখে ‘অস্ট্রেলিয়া-বধ’ বিশ্বকাপ জয়ের সমতুল্য

0
747

ক্রিকেটে তো বটেই, দেশের ক্রীড়া ইতিহাসেও কোনো বিশ্বকাপ জয়ের কীর্তি ছিল না। শরিফুল-আকবররা সেই আক্ষেপ ঘুচিয়ে ২০২০ সালে বাংলাদেশকে জেতান অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ। যদিও বিশ্বজয়ের সেই আনন্দের মতই শরিফুলকে আনন্দ এনে দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জাতীয় দলের টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়। 

Advertisment

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৫ম টি-টোয়েন্টির আগে শরিফুল জানান, অজিদের বিপক্ষে প্রথম দ্বিপাক্ষিক টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে নেমে জয়ী হওয়া বড় অর্জন। ক্যাটাগরি অনুযায়ী হয়ত দুটিকে একসাথে রাখার কোনো উপায় নেই। কিন্তু শরিফুলের কাছে দুই অর্জনই স্মরণীয়, বরণীয়।

তিনি জানান, অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ জয় দুটিই ‘প্রথম’ অর্জন বলে বিশ্বকাপ ও অজি-বধের স্বাদ তার কাছে একইরকম।

শরিফুল বলেন, ‘দুইটা আমার কাছে একই মনে হয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার সাথে আমরা আগে কখনও সিরিজ খেলিনি। প্রথম সিরিজেই আমরা জিতেছি। এটা একটা বড় বিষয়। প্রথম দ্বিপাক্ষিক খেলতে নেমে প্রথম টি-টোয়েন্টি জিতেছি, সিরিজও জিতেছি।’

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপও বাংলাদেশের ক্রিকেট তথা ক্রীড়া ইতিহাসের সবচেয়ে বড় অর্জন। শরিফুল তাই দুটিকেই রাখছেন সমান মর্যাদায়, ‘আমরা আগে কখনও বিশ্বকাপ জিতিনি। তাই অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ জয়কে আমি সমানভাবে দেখব। দুটোই আমাদের জন্য সমান মর্যাদার।’

ঐতিহাসিক সিরিজে দলের অংশ হয়েই শুধু নন, শরিফুল বল হাতে রাখছেন অবদানও। তিনি অবশ্য কৃতিত্ব দিলেন গোটা দলকেই।

শরিফুল বলেন, ‘সবাই পারফর্ম করছে। সবাই সবার ওপর ভরসা রাখছে, একজনের ওপর ছেড়ে দিচ্ছে না। এই জিনিসটা খুব ভালো লাগে এই জিনিসটা যতদিন থাকবে ততদিন জয় পাওয়াটাও সহজ হবে।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।