Scores

শরিফুল-মোসাদ্দেকদের আগুনে বোলিংয়ে নিষ্প্রভ ঢাকা

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের চতুর্থ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে বেক্সিমকো ঢাকা ও গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম। ঢাকার পক্ষে নাঈম শেখ দুর্দান্ত ব্যাটিং করলেও চট্টগ্রামের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সামনে ম্লাম ঢাকা ২০ ওভারে সংগ্রহ করেছে কেবল ৮৮ রান। বোলারদের ব্যবহারে বেশ চৌকস ছিলেন চট্টগ্রামের অধিনায়ক মোহাম্মদ মিঠুন।

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের চতুর্থ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে বেক্সিমকো ঢাকা ও গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম। ঢাকার পক্ষে নাঈম শেখ দুর্দান্ত ব্যাটিং করলেও চট্টগ্রামের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সামনে



টস জিতে ঢাকাকে আগে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান চট্ট্রগামের অধিনায় মিঠুন। শুরুতেই চট্ট্রগ্রামের মুখে হাসি ফোটান বিশ্বকাপ জয়ী পেস তারকা শরিফুল ইসলাম। বন্ধু তানজিদ হাসান তামিমকে স্লিপে সৌম্য সরকারের তালুবন্দী করান তিনি। নিজের দ্বিতীয় ওভারে ফিরেই শিকার করেন সাব্বির রহমানকে। ১০ বল খেললেও রানের খাতা খোলার আগেই ফিরে যান সাব্বির। পরের বলেই নাহিদুল ইসলামের শিকার হয়ে গোল্ডেন ডাক নিয়ে ফিরে যান মুশফিকুর রহিম।

Also Read - সাকিবের উইকেট পেলেও তৃপ্ত নন মুগ্ধ

২১ রানের মাথায় ৩ উইকেট হারিয়ে অশনি সংকেত দেখা ঢাকাকে এগিয়ে নিয়ে যান মোহাম্মদ নাঈম শেখ। তাইজুল-মুস্তাফিজদের ছক্কা ভাসায় আত্মবিশ্বাস যোগান এই তরুণ ব্যাটসম্যান। তাকে সঙ্গ দেন আকবর আলি। পাওয়ারপ্লের ৬ ওভারে ঢাকা সংগ্রহ করে ৩ উইকেটের বিনিময়ে ৪২ রান।

এই দুই তরুণ-তুর্কির ৪৪ রানের জুটি ভাঙেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ১৩ বলে ১৫ রান করে আকবর বোল্ড হন মোসাদ্দেকের স্পিন ঘূর্ণিতে। একই ওভারে নাঈমকেও বোল্ড করেন মোসাদ্দেক। দুর্দান্ত এক ঘূর্ণি বলে পুরোপুরি পরাস্ত হন ঝড়ো গতিতে রান তুলতে থাকা নাঈম। এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান তিনটি করে চার ও ছক্কায় করেন ২৩ বলে ৪০ রান।

৬৭ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ফেলে আবারও চাপে পড়ে ঢাকা। ইয়াসির আলির বদলি হিসাবে দলে সুযোগ পাওয়া শাহাদাত হোসেন দীপু করেন ১৩ বলে ২ রান।

প্রথম ওভারে ১২ রান খরচ করলেও দ্বিতীয় ওভারে ফিরে আসেন মুস্তাফিজ। দীপুর বিপক্ষে ওভারটি মেডেন দেন তিনি। তারপরের ওভারে কেবল ১ রান দিয়ে ঢাকাকে আরও ব্যাকফুটে ঠেলে দেন শরিফুল।

নাসুম আহমেদ ও মুক্তার আলি স্পিনারদের সাবলীলভাবে খেলায় আক্রমণে সৌম্যকে আনেন মিঠুন। প্রথম ওভারেই সাফল্য এনে আস্থার প্রতিদানও দেন সৌম্য। ঢাকা অলআউট হয় মাত্র ৮৮ রানে। ঢাকার শেষ ভরসা মুক্তার করেন ১২ রান।

চট্টগ্রামের পক্ষে দুইটি করে উইকেট শিকার করেন মোসাদ্দেক, শরিফুল, মুস্তাফিজ ও তাইজুল। মুস্তাফিজ ও শরিফুল একটি করে মেডেন ওভারও উপহার দেন।

বেক্সিমকো ঢাকা ৮৮/১০ (১৬.২ ওভার)
নাঈম ৪০, আকবর ১৫, মুক্তার ১২, নাসুম ৮, তানজিদ ২, দীপু ২;
মোসাদ্দেক ২/৯, শরিফুল ২/১০, মুস্তাফিজ ২/১৩, তাইজুল ২/৩২, সৌম্য ১/২, নাহিদুল ১/১৩।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।


Related Articles

মুস্তাফিজের কাছ থেকে অনেক কিছু শিখেছেন শরিফুল

বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপের ‘সেরা একাদশ’

রুদ্ধশ্বাস জয়ে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে চ্যাম্পিয়ন খুলনা

রিয়াদের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস, খুলনার লড়াকু পুঁজি

অধিনায়ক মিঠুনের ‘মাথা’র প্রশংসায় সালাহউদ্দিন