শরিফুল-হৃদয়দের বোলিং তান্ডবে অল-আউট ভারত

0
3035

অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপের প্রথম সেমি-ফাইনালে আগে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের বোলারদের বোলিং তান্ডবে ১৭২ রানে গুটিয়ে গেছে ভারত। 

বাংলাদেশের অনূর্ধ্ব-১৯ দল @এসিসি

 

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সকালে টসে জিতে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন ভারতের অধিনায়ক সিমরান সিং। তবে সূচনাটা ভালো হয় নি। দলীয় ৩ রানে প্রথম উইকেট হারায় ভারত। বাংলাদেশের বামহাতি পেসার শরিফুল ইসলামের বলে উইকেট রক্ষক আকবর আলির হাতে ১ রানে ক্যাচ দিয়ে আউট হোন পারিক্কাল।

Advertisment

এরপর ওপেনার যশসভী জয়সওয়ালের সাথে ৬৬ রানের জুটি গড়েন অনুজ রায়াত। দলীয় ৬৯ রানের মাথায় স্পিনার রিশাদ হোসেনের বলে জয়সওয়াল বোল্ড হলে এই জুটি ভাঙ্গে। ৬৯ বলে ৩৭ রান করেছিলেন তিনি। এই উইকেট পতনের সাথে সাথে ভারতের ইনিংসে মারাত্মক ধস নামে। মাত্র ৮ রানে ৪ উইকেট হারায় ভারত। দলটির অধিনায়ক সিমরান সিং শূন্য রানে রিশাদ হোসেনের বলে লেগ বিফোর উইকেটের ফাঁদে পড়ে সাজঘরে ফিরেন।

বাংলাদেশ-ভারত সেমিফাইনালের এক মুহূর্ত; @বিডিক্রিকটাইম

ধসের পরে ৫৩ রানের জুটি গড়ে লজ্জার হাত থেকে ভারতকে বাঁচান আয়ুস বাদনী ও সামির চৌধুরী। ৩৯ বলে ২ ছক্কায় ২৮ রান করা বাদনীকে আউট করে এই জুটি ভাঙ্গেন মিনহাজুর রহমান। এরপর বেশিক্ষণ টিকতে পারেন সামির চৌধুরীও। ৬৭ বলে ৩৬ রান করেন তিনি। সামিরকে ফিরিয়ে ম্যাচের দ্বিতীয় উইকেট দখল করেন শরিফুল। এরপর ৮ রান করা হার্শ তিয়াগীকেও ফিরিয়েছেন এই বামহাতি পেসার।

টেইল এন্ডাররা খুব বেশি অবদান রাখতে না পারায় ৪৯.৩ ওভারে ১৭২ রানেই গুটিয়ে যায় ভারত। বাংলাদেশের পক্ষে ১০ওভার বোলিং করে মাত্র ১৬ রানে তিনটি উইকেট নিয়েছেন শরিফুল ইসলাম। এছাড়া অধিনায়ক তৌহিদ হৃদয় ৩ ওভারে মাত্র ৪ রানে ২টি ও মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী ২৭ রানে ২টি ও রিশাদ হোসেন ৩৬ রানে ২টি উইকেট নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ
ভারতঃ ১৭২/১০ (৪৯.৩ ওভার)
যশসভী জয়সওয়াল ৩৭, আয়ুস বাদনী ৩৬, অনুজ রায়াত ৩৫
শরিফুল ৩/১৬, তৌহিদ ২/৩, মৃত্যুঞ্জয় ২/২৭, রিশাদ ২/৩৬

টার্গেটঃ ১৭৩

 

 

[আরও পড়ুনঃতিন সপ্তাহেই ফিরবেন মাশরাফি; দেবাশীষের প্রত্যাশা]