শর্ত মেনে জাতীয় দলে ফিরতে পারবেন আমির

0
983

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াসিম খানের সাথে বৈঠকের পর মোহাম্মদ আমিমের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার গুঞ্জন আরও জোরালো হচ্ছে। পাকিস্তান জাতীয় দলের প্রধান কোচ মিসবাহ-উল-হক বেশ কিছু শর্তসাপেক্ষে আমিরকে দলে ফেরানোর নিশ্চয়তা দিয়েছেন।

দল থেকে বাদ পড়ে মিসবাহর প্রতি তোপ দাগলেন আমির

Advertisment

গত বছরের ডিসেম্বরে প্রধান কোচ মিসবাহ ও বোলিং কোচ ওয়াকার ইউনিসের বিরুদ্ধে মানসিক চাপ সৃষ্টির অভিযোগ এনে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দেন আমির। মিসবাহ-ইউনিস কোচিং প্যানেলের অধীনে জাতীয় দলে ফিরবেন না বলে জানিয়ে দেন তিনি। তবে চলতি জুনে পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খানের সাথে বৈঠককালে জাতীয় দলে ফেরার বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেন এই পেসার।

মিসবাহ-ইউনিসের কোচিং প্যানেল এখনও পাকিস্তান জাতীয় দল পরিচালনা করে যাচ্ছেন। তাইতো প্রশ্ন জেগেছে, পুরনো দ্বন্দ্ব ভুলে এই দুই কোচ আমিরকে জাতীয় দলে ফেরার সুযোগ দেবেন তো? প্রধান কোচ মিসবাহ অবশ্য আমিরের সাথে দ্বন্দ্বের বিষয়টিকে উড়িয়ে দিয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে মিসবাহ বলেন, “ ওর সাথে আমার ব্যক্তিগত কোনো দ্বন্দ্ব নেই, এই কথা আমি আগেও বলেছি। আমি জানি না সমস্যাটি কিভাবে তৈরি হয়েছে কিংবা আমির কেন এটা মনে করে। আমি পাকিস্তান দলের অধিনায়ক থাকাকালীন ও কোচ হয়ে আসার পরও সে দলে ছিল। গত বছর কিছু পারিবারিক সমস্যার কারণে আমাদের সঙ্গে ইংল্যান্ড সফরে যেতে পারেনি, কিন্তু পারিবারিক সমস্যাগুলো কেটে যেতেই তাকে আমরা দলে যুক্ত করেছিলাম।”

আমিরের অবসরের পেছনের কারণ হিসেবে কোচদের মানসিক চাপ সৃষ্টির কথা উড়িয়ে দিয়ে এই কোচ বলেন,

“ অতীতেও আমি যেমনটা বলেছি, ইঞ্জুরি ও পারফরম্যান্সের কারণেই আমিরকে দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছিল। এরপর তো সে অবসরই ঘোষণা করল।”

সেই সাথে আমিরের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার জন্য আগে অবসরের ঘোষণা প্রত্যাহার করে নেওয়ার শর্ত দিয়েছেন মিসবাহ। অবসর থেকে ফেরার পর ফিট থাকলে এবং ভালো পারফর্ম করতে পারলে অন্য ক্রিকেটারদের মতো আমিমের জন্যও জাতীয় দলের দরজা উন্মুক্ত থাকবে থাকবে বলে নিশ্চিত করেছেন তিনি।

যদি অবসরের ঘোষণা ফেরত নেয়, ভালো পারফর্ম করতে থাকে, সে ক্ষেত্রে অন্য যে কোনো খেলোয়াড়ের মতো ওর জন্যও জাতীয় দলের দরজা সবসময় উন্মুক্ত থাকবে। আমরা যদি থাকি (বর্তমান কোচিং প্যানেল), সেও যদি ফিট থেকে ভালো খেলতে থাকবে এবং দলের প্রয়োজন হলে জাতীয় দলের জন্য তাকে বিবেচনা করা হবে। আমি অতীতের কোন কিছু মনে রাখবো না।” যোগ করেন পাকিস্তান জাতীয় দলের প্রধান কোচ।