Scores

শামির হ্যাটট্রিকে ভারতের শ্বাসরুদ্ধকর জয়

সাউদাম্পটনে স্বল্প রানের পুঁজি নিয়েও শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে আফগানিস্তানকে ১১ রানে হারিয়েছে ভারত। ভারতের হয়ে হ্যাট্রিক করেছেন মোহাম্মদ শামি। আফগান অলরাউন্ডার নবী বল হাতে ২ উইকেটের পর, ব্যাট হাতে করেন ৫২ রান। আফগানরা অলআউট হয় ২১৩ রানে।

হ্যাটট্রিক করে দলকে জেতালেন মোহাম্মদ সামি

শুরুতেই রোহিত শর্মার উইকেট হারায় ভারত। ১০ বলে ১ রান করে লেগ স্পিনার মুজিব-উর-রহমানের এক দারুণ ডেলিভারিতে বোল্ড হয়ে যান তিনি। আরেক ওপেনার লোকেশ রাহুল ২য় উইকেটে বিরাট কোহলির সাথে ৫৭ রানের জুটি গড়ে মোহাম্মদ নবীর বলে আউট ব্যক্তিগত ৩০ রানে।

Also Read - আফগানিস্তানের বিপক্ষে সতর্ক থাকার কথা বললেন মিঠুন


৩য় উইকেটেও অর্ধশত রানের জুটি পায় ভারত। ৫৮ রানের জুটি গড়েন কোহলি ও বিজয় শঙ্কর। শঙ্করকেও তুলে নেন নবী। এরপর মাঠে নামেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। তবে দ্রুতই বিদায় নেন কোহলি। নবীর বলে ক্যাচ তুলে দিয়ে ৬৭ রান করে ফেরেন ভারতীয় অধিনায়ক।

৫ম উইকেটে ৫৭ রানের জুটি গড়েন ধোনি ও কেদার যাদব। ইনিংসের ৪৫তম ওভারে নাটকীয় ঘটনার আবির্ভাব হয়। সহজ রান আউটের সুযোগ হাতছাড়া করেন রশিদ খান। তবে সেই ওভারেই ধোনিকে শিকার ফেরান তিনি। ধোনি করেন ২৮ রান।

নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৮ উইকেটের বিনিময়ে ভারত সংগ্রহ করে ২২৪ রান। কেদার করেন ৫২ রান। আফগানিস্তানের হয়ে নবী  ও গুলবাদিন নাইব ২টি। মুজিব, রশিদ, আফতাব আলম ও রহমত শাহ নিয়েছেন ১টি করে উইকেট নেন।

তুলনামূলক স্বল্প লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ২০ রানে হযরতউল্লাহ জাজাইকে হারায় আফগানিস্তান। জাজাইয়ের সাথে ইনিংস উদ্বোধন করতে নামা গুলবাদিন নাইব ২য় উইকেটে রহমত শাহের সাথে ৪৪ রানের জুটি গড়ে বিদায় নেন। তার ব্যাট থেকে আসে ২৭ রান।

ইনিংসের ২৯তম ওভারে জোড়া আঘাত পায় আফগানরা। দুই থিতু ব্যাটসম্যান রহমত ও হাসমতউল্লাহ শহিদিকে শিকার করেন জাসপ্রীত বুমরাহ। তারপরে আসগর আফগানও দ্রুত ফিরে যান। জয় থেকে ৯৪ রান দূরে থাকতেই ৫ উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ে পড়ে নাইবের দল।

তারপরেও আফগানিস্তানের আশা বাঁচিয়ে রেখেছিলেন নবী ও নাজিবুল্লাহ জাদরান। ২৩ বলে ২১ রান করে দলকে জয় থেকে ৫৯ রান দূরে রেখে হার্দিক পান্ডিয়ার শিকার হয়ে ফিরে যান নাজিবুল্লাহ। শেষের দিকে ব্যাট হাতে আফগানিস্তানের জয়ের স্বপ্ন দেখানো রশিদ ফিরে যান ১৬ বলে ১৪ রান করে।

ইনিংসের ৪৭তম ওভারে ঘটে নাটকীয় ঘটনা ঘটে। মোহাম্মদ সামি এসেই ওভারের ১ম বলেই নবীকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন। তবে আম্পায়ার আউট দিলেও রিভিউ নিলে বেঁচে যান নবী।

শেষ ওভার পর্যন্ত আফগানিস্তানের আশা বাঁচিয়ে রেখে ম্যাচ জমিয়ে তোলেন নবী। শেষ ওভারে যখন আফগানদের প্রয়োজন ছিল ১৬ রান তখন ১ম বলেই ৪ মেরে সমীকরণ ৫ বলে ১২ রানে নিয়ে আসেন তিনি। তবে শামির ৩য় বলে লং অনে ধরা পড়ে ফিরে যান এই অলরাউন্ডার। তিনি করেন ৫৫ বলে ৫২ রান।

৩ বলে ১২ রানের সমীকরণে মাঠে নেমেই পরপর ২ বলে বোল্ড হয়ে যান আফতাব আলম ও মুজিব-উর-রহমান। ফলে এই বিশ্বকাপের ১ম হ্যাট্রিকটি করে ফেলেন শামি। তিনি মোট ৪টি উইকেট শিকার করেন।

ইনিংসের ১ বল বাকি থাকতেই ২১৩ রানে অলআউট হয়ে ১১ রানে ম্যাচ হারে আফগানিস্তান। ভারতের হয়ে ২টি করে উইকেট নেন যুযবেন্দ্র চাহাল ও হার্দিক পান্ডিয়া।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত: ২২৪/৮ (৫০ ওভার)
কোহলি ৬৭, কেদার রাহুল ৩০, শঙ্কর ২৯, ধোনি ২৮,
নবী ২/৩৩, নাইব ২/৫৪, মুজিব ১/২৬।

আফগানিস্তান: ২১৩/১০ (৪৯.৫ ওভার)
রহমত ৩৬, নাইব ২৭, শহিদি ২১, নাজিবুল্লাহ ২১, জাজাই ১০।
শামি ৪/৪০, বুমরাহ চাহাল ২/৩৩, পান্ডিয়া ২/৫১।

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ড্রেসিংরুমের ভেতরের কথা বাইরে না যাওয়াই ভালো: মুশফিক

উইলিয়ামসনের সেই রান আউট হাতছাড়া নিয়ে মুখ খুললেন মুশফিক

সাকিবও বলছেন— মাশরাফির নিষ্প্রভতায় পিছিয়ে পড়েছিল বাংলাদেশ

নিজের জন্য নয়, দেশের জন্যই খেলি: সাকিব

নিশামকে একমাস তাড়া করেছে ফাইনালের দুঃস্বপ্ন!