শাহীনের সাথে মাঠেই লেগে গেলেন সরফরাজ

0
2182

পাকিস্তান সুপার লিগে লাহোর কালান্দার্স বনাম কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্সের মধ্যকার ম্যাচে মাঠেই বাকবিতণ্ডায় জড়াতে দেখা গেছে সরফরাজ আহমেদ ও পেসার শাহীন শাহ আফ্রিদিকে। মূলত শাহীনের বাউন্সার মাথায় আঘাত হানার পর এমন প্রতিক্রিয়া দেখান সরফরাজ।

কথার লড়াই চলে সরফরাজ ও শাহীনের মধ্যে। ছবিঃ টুইটার

ঘটনাটি ঘটে ম্যাচের ১৯তম ওভারের শেষ বলে। ওভারের শেষ বলটি করতে আসেন লাহোরের বাঁহাতি পেসার শাহীন শাহ আফ্রিদি, স্ট্রাইকে ছিলেন কোয়েটার অধিনায়ক সরফরাজ। তাঁর করা ১৪৭ কিলোমিটারের গতির ঐ বলটি আঘাত হানে সরফরাজের হেলমেটে। যদিও নো বল ডাকা হয় ঐ বলটি। শাহীনের করা বাউন্সারটি সরফরাজের হেলমেটে আঘাত হানলে এক রান নিয়ে নন-স্ট্রাইক প্রান্তে যান সরফরাজ।

Advertisment

তখনই শাহীনকে উদ্দেশ্য করে কিছু একটা বলার চেষ্টা করেন সরফরাজ। কোয়েটার অধিনায়কের কথা মানতে না পেরে তাঁর দিকেই তেড়ে আসেন শাহীন আফ্রিদি। দুই ক্রিকেটারের মধ্যে বেশ কিছুক্ষণ বাক বিতর্ক হলে আম্পায়ার আলিম দার এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেন। পরবর্তীতে টিভি ফুটেজে দেখা যায় সরফরাজকে কিছু  একটা বোঝানোর চেষ্টা করছেন লাহোরের অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান হাফিজ।

এদিকে এমন ঘটনার পর বিষয়টি ভালো চোখে নেননি সরফরাজ ভক্তরা। অনেকের দাবি সিনিয়র ক্রিকেটার হিসেবে সরফরাজের প্রতি সম্মান দেখানো উচিত ছিল শাহীন আফ্রিদির। অন্যদিকে অনেক পাকিস্তানীদের দাবি মাঠের লড়াইয়ে নেই কোন সিনিয়র-জুনিয়র। এই ইস্যূতে আফ্রিদির পক্ষেই কথা বলেছেন পাকিস্তানের পেসার উসামা মীর।

দুই ক্রিকেটারের মধ্যে কথার উত্তাপ ছড়ালেও সেটি ছাপিয়ে মাঠের লড়াইয়ে জয় পেয়েছে কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্স। উসমান শেনওয়ারী, মোহাম্মদ হাসনাইন ও শেহজাদের বোলিং নৈপুণ্যে ১৫ রানের জয় পেয়েছে সরফরাজের কোয়েটা। ব্যাট হাতে ২৭ বলে ৩৪ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছেন সরফরাজ আহমেদ।