শিরোপা জয়ের মিশনে মুখোমুখি অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড

0
611

সমাপ্তি থেকে আর মাত্র একটা ম্যাচ দূরে আছে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২১৷ আজ ফাইনালের মহারণে অস্ট্রেলিয়া মুখোমুখি হবে নিউজিল্যান্ডের৷

নতুন বিজয়ীর খোঁজে ক্রিকেট বিশ্ব।
নতুন বিজয়ীর খোঁজে ক্রিকেট বিশ্ব।

দীর্ঘ এক মাস মরুর বুকে ক্রিকেট ঝড় তুলে সমাপ্তির একেবারে দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে আছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসর৷ ক্রিকেটের ক্ষুদ্রত্তম সংস্করণের বৃহত্তম এই ক্রীড়াযজ্ঞ শেষ হয়ে যাওয়ার দুঃখ আর শেষ দেখে ফেলার উত্তেজনার মিশেলে সৃষ্ট এক অদ্ভুত অনুভূতিতে বুঁদ হয়ে আছে পুরো ক্রিকেট বিশ্ব৷

Advertisment

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আরো ছয়টি আসর অনুষ্ঠিত হলেও শিরোপার ছোঁয়া পায়নি এবারের দুই ফাইনালিস্টের কেউ-ই৷ তাই এবার একেবারে নতুন এক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের দেখা পাবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ৷ আর অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড এই ফাইনাল ম্যাচের আগে বেশিরভাগ ক্রিকেট সমর্থক নিশ্চিতভাবে ফিরে যাবেন ২০১৫ একদিনের বিশ্বকাপ ফাইনালে।

সেই ফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে শিরোপা বঞ্চিত রেখে পঞ্চমবারের মত একদিনের শিরোপা ঘরে তুলেছিল অজিরা৷ এবার সেই কষ্ট লাঘবের সুযোগ পাচ্ছে কিউইরা৷ তবে, কষ্ট দিতে সিদ্ধহস্ত অস্ট্রেলিয়া এবারও সহজে ছাড় দিবে না তাদের

রোড টু দ্যা সেমিফাইনাল : এবারের আসরের আগে সবার নজরে না থাকলেও টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই বেশ ধারাবাহিক ছিল অজিরা৷  একটা ম্যাচ হারলেও বাকি চার ম্যাচ জিতে ‘গ্রুপ ১’ রানারআপ হিসেবে সেমিফাইনালে আসে তারা৷ সেই সেমিফাইনাল ম্যাচে ওয়েড ঝড়ে হট ফেভারিট পাকিস্তানকে হারিয়ে ফাইনালের টিকিট কাটে তারা৷

অন্যদিকে, পাকিস্তানের সাথে হারলেও অনেকটা হেসেখেলেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে নিউজিল্যান্ড। সুপার টুয়েলভে অজিদের সমান ঠিক ৪টা ম্যাচ জিতেছে কিউইরা৷ সেমিফাইনালে তারাও হারিয়েছে আরেক হট ফেভারিট ইংল্যান্ড দলকে৷ জয়ের ব্যবধানও ঐ ৫ উইকেটেই

প্লেয়ার টু ওয়াচ : পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে ব্যাট হাতে আলো ছড়িয়েছেন অজি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার৷ আরেক ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ ঠিক ধারাবাহিক না হলেও অস্ট্রেলিয়া দলের গুরুত্বপূর্ণ ভরসার জায়গায় থাকবেন তিনি৷  ফিঞ্চ-ওয়ার্নার জুটির কাঁধেই দায়িত্ব থাকবে ম্যাচের পার্থক্য গড়ে দেওয়ার৷

অজিদের মত কিউইরাও ভরসা রাখতে চাইবে তাদের ওপেনিং ব্যাটার মার্টিন গাপটিলের উপর৷  নিজের অভিজ্ঞতা আর ফর্মের মিশেলে দলের প্রথম শিরোপা নিশ্চিতের সর্বোচ্চ চেষ্টাই করবেন গাপটিল৷ প্রতিশোধ নেশায় মত্ত জেমস নিশামও হয়ে উঠতে পারেন ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারক৷ 

বোলিংয়ে লড়াইটা হবে স্টার্ক-হ্যাজেলউড জুটির সাথে বোল্ট-সাউদি জুটির৷

হেড টু হেড : দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ের হিসেবে স্পষ্ট ব্যবধানে এগিয়ে আছে অস্ট্রেলিয়া। আগের ১৪ দেখার ৯টিই জিতে নিয়েছিল তারা।  নিউজিল্যান্ডের পক্ষে গিয়েছিল ৪টি ম্যাচের ফলাফল৷ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এর আগে মাত্র ১ বার মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। সেই ম্যাচটা জিতে নিয়েছিল নিউজিল্যান্ড।

সম্ভাব্য একাদশ

অস্ট্রেলিয়া : ডেভিড ওয়ার্নার, অ্যারন ফিঞ্চ, মিচেল মার্শ, স্টিভ স্মিথ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মার্কাস স্টয়নিস, ম্যাথু ওয়েড (উইকেটরক্ষক) , প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক, অ্যাডাম জাম্পা ও জস হ্যাজেলউড।

নিউজিল্যান্ড : মার্টিন গাপটিল, ডেরিয়েল মিচেল, কেন উইলিয়ামসন(অধিনায়ক), ডেভন কনওয়ে(উইকেটরক্ষক), গ্লেন ফিলিপ্স, জিমি নিশাম, মিচেল স্যান্টনার, এডাম মিলনে, টিম সাউদি, ইশ সোধি, ট্রেন্ট বোল্ট।

বিশ্বকাপের খেলা সরাসরি দেখতে ক্লিক করুন এখানে।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।