শিষ্যদের নিয়ে গর্বিত রোডস

তিনি দায়িত্ব নিয়েছিলেন দলের কঠিন সময়ে। দায়িত্ব নেওয়ার পর দলকে নিয়ে এসেছেন ভালো এক অবস্থানে। শিষ্যদের নিয়ে স্টিভ রোডসের গর্ব করাই মানায়। এশিয়া কাপ মিশন শেষে দেশের ফেরার আগে বাংলাদেশ দলের কোচ জানালেন টাইগারদের নিয়ে তার মুগ্ধতার কথা।

শিষ্যদের নিয়ে গর্বিত রোডস

ব্যাটিংয়ে মাত্র ২২২ রানের পুঁজি নিয়ে শেষ বল পর্যন্ত যে ম্যাচ গড়িয়েছে, এটিই জানান দিচ্ছে বোলারদের নৈপুণ্য। নৈপুণ্যের চিত্রটাই যেন ফুটে উঠল রোডসের কথার মাঝেও। তিনি বলেন, গতকাল বোলাররা তাদের জাত চিনিয়েছে, বিশেষ করে পেসাররামাশরাফি, মুস্তাফিজ ও রুবেল অসাধারণ বল করেছে২২২ রান করেও ম্যাচটা নিয়ন্ত্রণে নেওয়া কঠিন ছিল আমাদের পক্ষেতবু আমরা প্রাণপণ লড়াই করেছি জিততেভারতকে আমরা চাপে ফেলতে পেরেছি

অন্য ম্যাচগুলোতে মিডল অর্ডারই ছিল ত্রাতা, এই ম্যাচে যদিও ভিলেনের ভূমিকায়। তবুও দলের উপর আস্থা হারাচ্ছেন না রোডস। একইসাথে শিষ্যদের নিয়ে গর্বিতও তিনি, মিডল অর্ডারে আমাদের বড় ভরসা ছিলোকিন্তু ভারতের বিপক্ষে ব্যর্থ হয়েছে মিডল অর্ডারযদিও লিটন ছন্দে ফিরেছেআমাদের বোলাররা অসাধারণ খেলেছেআমি আশাবাদী হতে চাইনিশ্চয় দেশের মানুষও আত্মবিশ্বাস হারাবে নাছেলেদের নিয়ে আমি গর্বিত

Also Read - ভারতের গণমাধ্যমে টাইগারদের প্রশংসা

দুই ওপেনারের প্রশংসা করে তিনি বলেন, ম্যাচগুলোর দিকে ফিরে তাকানআমরা বিপদে পড়েছিলাম, সেখান থেকে দলকে টেনে তুলেছে মুশফিক-মিঠুন জুটিআর গতকাল লিটন আর মিরাজের শুরুটা ছিল দারুণ

বারবার ভারতের কাছে ফাইনালে পরাজয়। এটি কি কোনো মানসিক বাঁধা? রোডসের উত্তর, কখনও মানসিক বাঁধা ভাবা উচিত নয়আমি নিশ্চিত, পুরো দেশবাসী এই পারফরম্যান্সকে উন্নতি হিসেবে দেখবেআমরা হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করেছিবড় দলের বিপক্ষে এটা সহজ নয়আমাদের চেয়ে তো তারা র্যাংকিংয়ে বেশ এগিয়ে

রোডস আরও বলেন, আমাদের আরও উন্নতি করতে হবে, খেলোয়াড়দের আরও অভিজ্ঞ হতে হবেতাহলেই আমরা ফাইনালে জেতা শুরু করবোআমাদের আরও ফাইনালে খেলতে হবেআরও প্রচেষ্টা ও অভিজ্ঞতার সমন্বয়ে সাফল্য আসবেআশা করি, বাংলাদেশের মানুষ এটা বুঝবে

আরও পড়ুন: ওয়ালটন জাতীয় লিগের সূচি প্রকাশ

Related Articles

মান বাঁচানোর ইনিংস দিয়েই জাত চেনালেন ইমরুল

ইমরুলের বীরত্বে বাংলাদেশের জয়

লিটন ও রাব্বিকে হারানোর পর লড়ছেন ইমরুল-মুশফিক

২০২৩ বিশ্বকাপেও অংশ নেবে ১০টি দল

পরাজয়ের বৃত্তে বন্দী থেকে শ্রীলঙ্কার সিরিজ হার