শীর্ষ ব্যাটসম্যান ও বোলার উভয়ই বাংলাদেশের

ভারতের মাটিতে অনুষ্টিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর্দা ৩ এপ্রিল কলকাতার ইডেন গার্ডেন্স-এ ফাইনালের মধ্যে দিয়ে নামলেও, এরই মধ্যে এবারের আসর থেকে বিদায় নিয়েছে বাংলাদেশ। বাছাইপর্বে দারুণ ক্রিকেট খেলার পর দল হিসেবে সুপার টেন পর্বে ব্যর্থতার চাঁদর থেকে বের হতে না পারলেও, ক্রিকেটাররা এবারের আসরটিকে ভক্তদের মনে ফুটিয়ে তুলেছেন ব্যক্তিগত অর্জন দিয়ে।

Tamim-Sabbir-Shakib

Advertisment

সুপার টেন পর্বের বাঁধা অতিক্রম না করতে পারলেও টাইগার ক্রিকেটাররা ব্যক্তিগত অর্জন দিয়ে ঠিকই দখল করে নিয়েছেন শীর্ষস্থানগুলো। ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ সংগ্রাহকের শীর্ষস্থান দখল করার সাথে তালিকায় যোগ হয়েছে বল হাতে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারেরও শীর্ষস্থান। এছাড়া প্রথমবারের মতো উভয় তালিকার শীর্ষ দশে উঠে এসেছে একাধিক টাইগার ক্রিকেটারের নাম।

টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই ব্যাট হাতে উজ্জ্ব্ল ছিলেন তামিম ইকবাল। পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে ব্যাট হাতে ধারাবাহিকতার আলো ছড়িয়ে দখল করেছেন আসরে সর্বাধিক রান সংগ্রাহকের শীর্ষস্থান। আসরের ৬ ম্যাচে অংশ নিয়ে ৭৩.৭৫ গড়ে ১৪২.৫১ স্ট্রাইক রেটে করেছেন ২৯৫ রান। শুধু তাই নয় টুর্নামেন্টে এক অর্ধশতকের পাশাপাশি প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে ক্রিকেটের ছোট এই ফরম্যাটে দেখা পেয়েছেন শতকের।

সমান ম্যাচ খেলে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে থাকা আফগান ক্রিকেটার মোহাম্মদ শেহজাদের সংগ্রহ ১৯৮ রান। এছাড়া শীর্ষ দশের এই তালিকায় সাব্বির রহমানের পাশাপাশি জয়গা করে নিয়েছেন সাকিব আল হাসান। সমান সংখ্যক ৭ ম্যাচ খেলে ২৪.৫০ গড়ে ১৪৭ রান নিয়ে সাব্বিরের অবস্থান তালিকার চতুর্থস্থানে আর ৩২.২৫ গড়ে ২৯ রান করে সাকিবের অবস্থান তালিকার ৬ষ্ঠ স্থান।

Shakib-Mustafiz-AlAmin

ব্যাটসম্যানদের সাথে সমান পাঙ্গা দিয়ে বাংলাদেশী বোলাররাও দখল করে নিয়েছেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীর শীর্ষস্থান। এছাড়া একাধিক বাংলাদেশের বোলার উঠে এসেছেন শীর্ষ দশ উইকেট শিকারীর এই তালিকায়। ৭ ম্যাচে অংশ নিয়ে ১০ উইকেট শিকার করে মোহাম্মদ নবীর সাথে যৌথভাবে সাকিব আল হাসান দখল করেছেন এই তালিকার শীর্ষস্থান। এক ম্যাচ কম খেলে এই অর্জন পেলেও সাকিবের সাথে আপাতত মোহাম্মদ নবীকে ভাগ করে নিতে হচ্ছে শীর্ষস্থান।

সবচেয়ে বেশি কৌতূহল জাগিয়ে মুস্তাফিজুর রহমান দখল করে নিয়েছেন তালিকায় দ্বিতীয়স্থান। মাত্র ৩ ম্যাচে অংশ নিয়ে উইকেট শিকারের সংখ্যা ৯ তার। শুধু  এতেই ক্ষান্ত নয় প্রাপ্তির খাতায় যোগ হচ্ছে  প্রথম বাংলাদেশী বোলার হিসেবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এক ইনিংসে প্রতিপক্ষের ৫ ব্যাটসম্যানকে সাজঘরে ফেরানোর স্বাদ। মুস্তাফিজুর রহমানের পর শীর্ষ দশ উইকেট সংগ্রাহকের তালিকায় আছেন আরেক পেসার আল-আমিন। টুর্নামেন্ট জুড়ে বল হাতে দ্যুতি ছড়ানো আল-আমিন হোসেনের অর্জন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারের ৩য় স্থান। ৭ ম্যাচে অংশ নিয়ে ৮ উইকেট নিয়ে এই তালিকায় যৌথভাবে নিউজিল্যান্ডের উদীয়মান স্পিনার সোদির সাথে অবস্থান তার।

-ইমরান হাসান, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটিম ডট কম