Scores

শুভ জন্মদিন নাজমুল

Nazmul

আজমল তানজীম সাকির

২০০৪ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ম্যাচ। এজবাস্টনে দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি বাংলাদেশ। বাংলাদেশের অভিষেক হয় একজন ব্যাটসম্যান ও একজন বোলারের। বোলারের তখন বয়স সবে ২০ । নাম নাজমুল হোসেন।

Also Read - দ্বিতীয় রাউন্ডের ২য় দিনে ব্যাটসম্যানদের দাপট!


টস জিতে ব্যাট করতে নেমে বংলাদেশ ৯৩ রানেই অলআউট। প্রোটিয়াদের লক্ষ্য মাত্র ৯৪।  ৯৪ সংগ্রহ করতে গিয়ে মাত্র একটি উইকেট হারায় গ্রায়েম স্মিথের দল। নাজমুল সেদিন কোনো উইকেট পাননি কিন্তু ছয় ওভার বোলিং করে রান দিয়েছেন মাত্র ১৭। ওয়ানডের দৃষ্টিকোণে তিনের কম ইকোনমি অসাধারণ বটে।

একই বছর ডিসেম্বরে টেস্ট অভিষেক ঘটে নাজমুলের। প্রতিপক্ষ ভারত। গৌতম গম্ভীর ও হারভাজন সিংকে আউট করেন প্রথম ইনিংসে।  দ্বিতীয় ইনিংসে বোলিং করা হয়নি। তারপর টেস্ট জগতে কোথায় যেন হারিয়ে গেলেন। দলে ফিরলেন সাত বছর পর।  দুই ইনিংসে মিলিয়ে নাজমুল শিকার করেন তিন উইকেট। রান দেন ৮০। বোলিং ছিল বেশ ইকোনোমিক্যাল। তারপর আবারও হারিয়ে যাওয়া। এখনও ফিরেননি টেস্ট দলে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে প্রায় তিন বছর দূরে তিনি। সর্বশেষ খেলেছিলেন ২০১২ সালে অনুষ্ঠিত হওয়া  এশিয়া কাপে। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে মাত্র ৩২ রানের বিনিময়ে শিকার করেন তিন উইকেট। দিলশান-সাঙ্গাকারা-জয়াবর্ধনেকে সাজঘরের রাস্তা দেখিয়ে দুমড়ে মুচড়ে দিয়েছিলেন লঙ্কানদের টপ অর্ডার  ফাইনালে ৩৬ রানের বিনিময়ে একটি উইকেট পান।  ইনজুরির কারণে ১০ ওভারের নির্ধারিত কোটা পূরণ করার আগেই মাঠ ছাড়েন। সেই মাঠ ছাড়ার পর আর আসেননি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটপাড়ায়। বল হাতে আর দেখানো হয়নি জাদু।

২০০৪ এ কার্ডিফে অস্ট্রেলিয়া বধে হেইডেনকে বোল্ড করা আর  একে একে দিলশান-সাঙ্গা-জয়াবর্ধনের মতো ব্যাটসম্যানদের প্যাভিলিয়নের রাস্তা দেখানো  নাজমুল আজ স্মৃতি। যে স্মৃতির সাথে মিশে রয়েছে কিছু মন খারাপের গল্প।

সর্বোপরি পরিসংখ্যানও খারাপ নয় তার। ৩৮ ওয়ানডেতে উইকেট ৪৪ টি, বোলিং  গড় ৩১.৫০। আর দুই টেস্টে উইকেট শিকার করেছেন পাঁচটি।
দলকে যতটুকু দেয়ার সামর্থ্য ছিল নাজমুলের ততটুকু দিতে পারেননি তিনি। ১৯৮৭ সালের ৫ অক্টোবর জন্মগ্রহণ করেন নাজমুল।  আজ ২৮ বছর পূর্ণ হলো তার। নবীন ক্রিকেটারদের ভীড়ে দলে ফিরা আসাটা দুঃসাধ্য ব্যাপার।  তবে নাজমুলের হারিয়ে যাওয়া নিয়ে হতাশা হয়তো রয়েই যাবে।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে হাসপাতালে মাশরাফি

এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতলো ভারত

মেডিকেল রিপোর্টের উপরেই নির্ভর করছে সাকিবের এনওসি

শঙ্কা কাটিয়ে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলছেন মুস্তাফিজ

দুদকের শুভেচ্ছাদূত হলেন সাকিব