শেষদিকে রংপুরের পরিকল্পনা ছিল ইয়র্কার লেন্থে বল করা

0
1108

ম্যাচ যখন রংপুরের হাত থেকে অনেকটাই ছিটকে গেছে, তখন কী ভাবছিলেন দলের ক্রিকেটাররা; যা তাদের এনে দিয়েছে অবিস্মরণীয় এক জয়? সামান্য ক্রিকেট সমর্থক মাত্রেই এই প্রশ্ন জাগবে। সেই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন রংপুর রাইডার্সের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় রবি বোপারা।

একটি জয়ই পাল্টে দেবে রংপুরকে!

Advertisment

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক না এসে রংপুরের প্রতিনিধি হয়ে এলেন তিনিই। এসে জানালেন, এমন জয় পেয়ে ভালো লাগছে তার।

বোপারা বলেন, ‘ভালো লাগছে। আমাদের সামনে কোনো বিকল্প পথ ছিল না। সবাই মিলে একটাই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল, যতটা সম্ভব ইয়র্কার লেন্থে বল ফেলার।’

আর পরিকল্পনা অনুযায়ী সেই কাজটাই ভালো মতন করেছেন পেরারা, তাই বোপারা কৃতিত্বও দিলেন তাকে- ‘থিসারা পেরেরা সে কাজটিই অসম্ভব দক্ষতার সাথে করে দেখিয়েছেন। দারুণ বল করেছে পেরেরা।’

এঁকে তো ছোট লক্ষ্য ধরিয়ে দিয়েছে রংপুর, তার উপর অতিরিক্ত খাতে খরচ করেছে ১৯ রান! তার মধ্যে ১২টিই ওয়াইড। এমন খরুচে বোলিংয়ের পরও এই ম্যাচে জয় পাওয়া নির্দ্বিধায় অসাধারণ কিছু। ব্যাপারটিকে বোপারা আখ্যা দিলেন ‘বিরল ঘটনা’ হিসেবে!

তিনি বলেন, ‘আমরা ২০ ওভারের ম্যাচে প্রায় তিন ওভার অতিরিক্ত বল করেছি। এক কথায় ২৩ ওভার ব্যাটিংয়ের সুযোগ পেয়েছে ঢাকা। যা বিরল ঘটনা প্রায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘এমন ঘটবে না প্রতিদিন। তারপরও আমরা জিতে গেছি। সেটাই বড় কথা। তবে এভাবে জেতা যাবে না বা জেতা যায় না।’

তবে শ্বাসরুদ্ধকর এমন ম্যাচকেই তিনি রাখছেন ক্রিকেটের দৃষ্টান্ত হিসেবে, ‘এটাই ক্রিকেট। এ আসরে অমরা এর চেয়ে ভালো টিম পারফরমেন্স করেও হেরেছি। আজ সেরা ক্রিকেট না খেলেও জয় ধরা দিয়েছে। এটাই ক্রিকেটের স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্য।’

উল্লেখ্য, ঢাকা ডায়নামাইটসো রংপুর রাইডার্সের ম্যাচ দিয়ে ইতি ঘটেছে বিপিএলের ঢাকা পর্বের প্রথম দফার খেলার। ২৪ নভেম্বর আবারও শুরু হবে বিপিএল, বন্দরনগরী চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে।

আরও পড়ুনঃ অভিনব অর্জনে রেকর্ড বইয়ে সাকিব