Score

শেষদিনের রোমাঞ্চে নিজেদেরই এগিয়ে রাখছেন মিরাজ

আলোচিত ঢাকা টেস্ট গড়িয়েছে শেষ দিনে। এর আগে সিলেটে সিরিজের প্রথম টেস্ট চার দিনেই ইতি দেখলেও ঢাকা টেস্ট শেষদিনের দিকে তাকিয়ে ঝুলে আছে পেন্ডুলামের মত।

শেষদিনের রোমাঞ্চে নিজেদেরই এগিয়ে রাখছেন মিরাজ

এই ম্যাচ জিততে বাংলাদেশের প্রয়োজন ৮ উইকেট, জিম্বাবুয়ের ৩৬৭ রান। দুটির যেকোনোটিই আসলে সম্ভব, আবার অসম্ভব নয় ড্র-ও। তবে ম্যাচের পঞ্চম দিন বলে অনেক হিসেবনিকেশও থেকে যায়। আর সেসব বিবেচনা করেই মিরাজ শেষদিনের রোমাঞ্চে এগিয়ে রাখছেন বাংলাদেশকেই।

বুধবার চতুর্থ দিনের খেলা শেষে সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ দলের প্রতিনিধি হয়ে আসেন তিনিই। এ সময় তিনি জানান ম্যাচ সম্পর্কে তার এবং দলের অভিমত সম্পর্কে।

Also Read - ব্যাটিং প্র্যাকটিস শুরু করেছেন সাকিব

মিরাজের মতে, ম্যাচটি হেলে আছে বাংলাদেশের দিকেই। পুরো একটি দিন অর্থাৎ তিনটি সেশনকে বোলাররা কাজে লাগালে ম্যাচটি শেষ দিনেও বাংলাদেশের দিকে থাকবে বলে প্রত্যাশা তার।

মিরাজ বলেন, এখন পর্যন্ত ম্যাচ আমাদের দিকেই হেলে আছেকাল একটা দিন আছে, তিনটা সেশন আছেআমাদের বোলাররা যদি ভালো লেংথে বোলিং করতে পারে, তাহলে ম্যাচটা আমাদের দিকেই থাকবে।’

দ্বিতীয় ইনিংসে ২২৪ রান সংগ্রহের পর বাংলাদেশ নিজেদের ইনিংস ঘোষণা করেছে। চা বিরতির পর জিম্বাবুয়ে খেলেছে চতুর্থ দিনের কেবল শেষ সেশনটি। অনেকের মতে, ড্রয়ের দিক থেকে চিন্তা করলে জিম্বাবুয়েকে ব্যাট করার জন্য যথেষ্ট সময় দেওয়া হয়ে গেছে। প্রায় অসম্ভব লক্ষ্যে ছোটা জিম্বাবুয়েকে আরও একটু কম লক্ষ্য দিয়ে চতুর্থ দিনের দ্বিতীয় সেশনেই বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করতে পারতো কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে মিরাজের জবাব, আমি বলব, এটা যথেষ্টচতুর্থ ইনিংসে ১২০ ওভার মানে কিন্তু অনেক ওভারআর আমাদেরও তো একটা ভারসাম্য রেখে ছাড়তে হতো।’

শেষদিনের রোমাঞ্চে নিজেদেরই এগিয়ে রাখছেন মিরাজ

মিরাজ জানান, জিম্বাবুয়ে যাতে ঝড়ো গতিতে খেলে জেতার সুযোগ না পায় সেটি নিশ্চিত করতে চেয়েছে দল। তাই তার অভিমত, দল যে সময়ে ইনিংস ঘোষণা করেছে সেটিই সঠিক সময়। তিনি বলেন, ওরা কোনোভাবেই যেন জেতার চেষ্টা করতে না পারে আমাদের সেটাও ভাবতে হয়েছেআমরা ঠিক সময়েই ইনিংস ঘোষণা করেছি।’

ম্যাচ জয়ের জন্য মিরাজ শেষ দিন পাওয়া সব সুযোগ কাজে লাগাতে চান। যদিও ফিল্ডিং করার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ দুই ইনিংসেই রেখেছে সুযোগ হাতছাড়ার বাজে দৃষ্টান্ত। ‘হাফ চান্স’ কাজে লাগিয়ে ম্যাচ পকেটে পুড়ে নেওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করে বাংলাদেশের জুনিয়র ক্রিকেটারদের মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় মিরাজ বলেন, আমাদের সুযোগগুলো নিতে হবেএ ম্যাচে আমরা অনেক ক্যাচ মিস করেছিএই ব্যাপারে উন্নতির আমাদের এখনও সুযোগ আছেকাল আমরা হাফ চান্সগুলোও কাজে লাগাতে সবটুকু দিয়ে চেষ্টা করব।’

আর এ কারণে বোলিংটা হওয়া চাই ভালো। মিরাজ তাই জোর দিলেন বোলারদের ভালো জায়গায় বল ফেলার উপর। তার মতে, (বাংলাদেশের) প্রত্যাশা কিংবা (জিম্বাবুয়ের) আশঙ্কা অনুযায়ী উইকেট এখনও বোলারদের অনুকূলে আসেনি। আর তাই বোলিং এডভান্টেজ পাওয়া যাবে না- এমন মানসিকতা নিয়েই খেলতে চান মিরাজ।

তার ভাষ্য, কাল সবার আগে আমাদের ভালো জায়গায় বোলিংটা করতে হবেকারণ উইকেট দেখেন, চারদিন গেছে তারপরও অতটা স্লো হয়নি। দুই একটা বল হচ্ছে, এটা হবেই স্বাভাবিকআমাদের মানসিকতা সেভাবে থাকতে হবে।’

এই ম্যাচ জিতলে টেস্ট সিরিজ ড্র হবে, বাংলাদেশ বাঁচবে সিরিজ পরাজয়ের হাত থেকে। সবার চোখ তাই এখন ঢাকা টেস্ট জয়ে। তবে ‘পাখির চোখ’ স্বরূপ এই জয়কে হাতের মুঠোয় পেতে হলে যে মূল কাজ করতে হবে বোলারদের, সেটিও মনে করিয়ে দিয়েছেন ২১ বছর বয়সী তরুণ ক্রিকেটার, বোলারদের অনেক কষ্ট করতে হবেকারণ কাল উইকেট আরো পাল্টাবেতাই আমাদের টার্গেট থাকবে স্ট্যাম্প টু স্ট্যাম্প বল করাতাছাড়া কাল একটা নতুন দিনসেভাবেই চ্যালেঞ্জটা নিতে হবেআমরা চেস্টা করব সবটা দিয়ে ম্যাচ জিততে।’

আরও পড়ুন: সেরা করদাতা হতে পেরে গর্বিত সাকিব

Related Articles

পার্থ টেস্টে থাকছেন না রোহিত-অশ্বিন, নেই পৃথ্বীও

টিভির সামনে শাস্ত্রীর অশ্লীল মন্তব্যে টুইটারে ঝড়

ভারতীয় বোলারদের নো বল ‘দেখেন না’ আম্পায়াররা!

রমিজ রাজাকে ‘উড়িয়ে মারলেন’ কেন উইলিয়ামসন

শন মার্শের লজ্জার রেকর্ড