শেষ হল বিসিএসএ-র ক্রিকেট উৎসব

0
785

বুধবার শেষ হয়েছে সমর্থকদের সবচেয়ে বড় সংগঠন বাংলাদেশ ক্রিকেট সাপোর্টারস অ্যাসোসিয়েশন (বিসিএসএ) আয়োজিত বাংলাদেশ ক্রিকেট ফেস্টিভ্যাল ২০১৭। চারদিনব্যাপী এই আয়োজনটি বসেছিল রাজধানীর শাহবাগস্থ জাতীয় জাদুঘরে।

শেষ হল ক্রিকেট উৎসব

Advertisment

আয়োজনের উদ্দেশ্য ছিল বাংলাদেশ ক্রিকেটের ইতিহাস নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরা। আয়োজক সংগঠনটির সমন্বয়ক রাফসানজানি রানা বিডিক্রিকটাইমকে বলেন, ‘আমাদের ফেস্টিভ্যালের উদ্দেশ্য ছিল নতুন প্রজন্মের কাছে আমাদের ক্রিকেটের ইতিহাসকে তুলে ধরা। দেশে ও দেশের বাইরে আমাদের স্মরণীয় মুহূর্তগুলো, যেগুলোর উপর ভিত্তি করে আজকের ক্রিকেট এতদূর এগিয়েছে, এটা সবাইকে জানানো। সবার সহযোগিতায় আমরা সফলভাবেই উৎসবটি আয়োজন করতে পেরেছি।’

২৪ সেপ্টেম্বর শুরু হওয়া এই ক্রিকেট উৎসবে ছিল ভিন্নমাত্রার বেশ কিছু আয়োজন। বাংলাদেশ-সহ অন্যান্য ক্রিকেট খেলুড়ে দেশগুলোর ক্রিকেট স্মারক প্রদর্শনীর পাশাপাশি ক্রিকেট অঙ্গনের স্বনামধন্য ব্যক্তিরা সমর্থকদের কাছাকাছি আসার দারুণ এক সুযোগ সৃষ্টি হয়েছিল উৎসবে।

আয়োজনের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য বিষয় ছিল বীরবিক্রম উপাধিতে ভূষিত শহীদ মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হালিম চৌধুরী জুয়েলের ব্যবহৃত ব্যাট, ছবি এবং জার্সি ক্যাম্পেইন।

এছাড়াও দেশের ক্রিকেটভিত্তিক দশটি অনলাইন গ্রুপকে নিয়ে সেমিনার আয়োজন করা হয় এই উৎসবে। সেমিনারে প্রতিটি গ্রুপ প্রদর্শন করে ক্রিকেট নিয়ে তাদের ভালোলাগা-ভালোবাসা এবং এই অবস্থানে উঠে আসার গল্প।

উৎসবের অন্যতম আয়োজন ছিল ক্রিকেট সাংবাদিকতা, ধারাভাষ্য এবং উপস্থাপনা বিষয়ক কর্মশালা। পাশাপাশি দেশের ক্রিকেটের নিখাদ সমর্থক হিসেবে ছয়টি পুরস্কার দেওয়া হয়, যেখানে সম্মাননা পেয়েছেন গ্যালারিতে বাঘ সেজে খেলা দেখতে যাওয়া শোয়েব আলি বুখারী, বিসিএসএ-র সহ-সভাপতি তানভির আহমেদ, খোরশেদ মাদবর আলমগীর, মেজর তানিম হাসান, মোহাম্মদ শাহীন এবং বিসিএসএ যুক্তরাজ্য শাখা (সংগঠন)।

প্রশংসনীয় এই ক্রিকেট উৎসবটির পৃষ্ঠপোষণ করেছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ- বিপিএলের জনপ্রিয় দল এবং রংপুর অঞ্চলের প্রতিনিধিত্বকারী ফ্র্যাঞ্চাইজি রংপুর রাইডার্স। উল্লেখ্য, এর আগে ২০১৪ ও ২০১৫ সালেও এমন দুটি ক্রিকেট উৎসবের আয়োজন করেছিল বিসিএসএ।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম