Scores

‘শোয়েব আখতার আপনি মানুষ হিসেবে ছোট মনের’

কয়েক দিন পরপরই মিডিয়ায় আলোচনায় আসেন শোয়েব আখতার নানান রকম কথাবার্তা বলে। কখনো পাকিস্তানের খেলোয়াড়দের সমালোচনা করে, কখনো আইসিসির সমালোচনা করে, আবার কখনো ভারতের সমালোচনা করে। এইবার আলোচনায় আসলেন শোয়েব আখতার শচীনকে নিয়ে কিছু অদ্ভুত বক্তব্য দিয়ে।

১৯৯৯ সালে শচীনের বিপক্ষে খেলার কথা স্মরন করে সম্প্রতি বক্তব্য দেন শোয়েব।কলকাতা টেস্টে শচীনের বিপক্ষে মুখোমুখি হওয়ার আগে শচীনকে নিয়ে অনেক আলোচনা শুনেছিলেন শোয়েব।

Also Read - ‘বিসিসিআই কি নরেন্দ্র মোদিকেও পদত্যাগ করতে বলেছে?’


সেটি স্মরন করিয়ে দিয়ে শোয়েব বলেন, “আমি শুনেছিলাম শচীন নাকি ইশ্বর। মুখোমুখি হওয়ার পর তাই মনে মনে বললাম, এটিই সেই ইশ্বর? এতো তেমন কিছুই না ।তখন সে আমার পরিচিত ছিল না , আমিও তার পরিচিত ছিলাম না। সে তার মত ছিল, আমিও আমার মত। তবে আমি চেয়েছিলাম তাকে প্রথম বলেই আউট করতে এবং সেটিই করেছিলাম সেই দিন।”

এইদিকে শোয়েবের এই বক্তব্যর পর আলোচনার ঝড় উঠেছে পাকিস্তানের সোশ্যাল মিডিয়াতে। পাকিস্তানের সাংবাদিকেরা বলতে গেলে একপ্রকার ধুয়ে দিয়েছেন শোয়েব আখতারকে শচীনকে নিয়ে এই রকমের কথাবার্তা বলার কারনে।

পাকিস্তানের জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেল মহসিন বনাম মহসিনে সাংবাদিক ফাহিম বলেন, “শোয়েব আখতার হতে পারে বড় খেলোয়াড় ছিলেন, তবে তিনি কোন বড় মনের মানুষ নন। মি. শোয়েব আপনি যত বড় খেলোয়াড় হন না কেন, আপনি মানুষ হিসেবে ছোট মনের। আপনি কয়েকদিন পর পর যা মন চায় তাই বলেন। কোন বড় খেলোয়াড় আপনার মত এইসব কথা বলেনা।

আমার মনে হয় আপনি মিডিয়ায় আলোচনায় থাকার জন্য এইসব কথাবার্তা বলেন। হ্যা আপনি ৯৯ এ শচীনের উইকেট নিয়েছেন তো কি হয়েছে? এর পরের কথা বলেন। এর পরের কথা বলেননা কেন, ২০০৩ এর বিশ্বকাপের কথা যখন শচীন আপনাকে পুরোপুরি ধুয়ে দিয়েছিল। সেই বিশ্বকাপে আপনার বিরুদ্ধে শচীন বড় সফলতা পান তবে কখনো সে এমন কথাবার্তা বলেননা। শচীন কখনো এইসবের উত্তরও দিবেননা। ”

শোয়েবের কয়েকদিন পর পর এই ধরনের বক্তব্য ক্রিকেট ভক্ত ও পাকিস্তানিদের জন্য বিব্রতকর দাবি করেন পাকিস্তানি সাংবাদিক।

Related Articles

‘শোয়েব আখতার পুরোপুরি পাগল হয়ে গিয়েছেন’

‘পাকিস্তানেরও এমন কিছু পা কাঁপাকাপি করা খেলোয়াড় দরকার’

আফ্রিদিকে মুখ বন্ধ রাখতে বললেন পাকিস্তানি সাংবাদিকরা