Scores

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে শেষ হাসি অস্ট্রেলিয়ার

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ এর দ্বিতীয় দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে আগে ব্যাটিং করে স্টিভ স্মিথের দুর্দান্ত শতকে ২৯৭ রানের লড়াকু সংগ্রহ দাঁড় করায় অস্ট্রেলিয়া। জস বাটলার, জেমস ভিঞ্চের লড়াকু ইনিংসের পরেও ১২ রানের শ্বাসরুদ্ধকর জয় পেয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

স্মিথের শতকে রান পাহাড়ে অস্ট্রেলিয়া

সাউদাম্পটনে টস জিতে অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় স্বাগতিকরা। শুরুটা খুব একটা হয়নি সফরকারীদের। দলীয় ১৯ রানেই অধিনায়ক ফিঞ্চকে হারায় তারা। ২য় উইকেটে ৬৪ রানের জুটি গড়েন ওয়ার্নার ও শন মার্শ। ওয়ার্নার ৪৩ রানে (৫৫ বল) ফিরলে ভাঙে তাদের জুটি। তারপরে বেশিক্ষণ টেকেননি মার্শও। স্মিথের সাথে ২৬ রানের জুটি গড়ে ব্যাক্তিগত ৪৪ বলে ৩০ রান করে আউট হন তিনি।

Also Read - স্মিথ-ওয়ার্নার, মাঠ ছাড় তোমরা!


৪র্থ উইকেটে স্মিথের সাথে ৭৯ রান যোগ করেন ব্যাটিং অর্ডার বদলে ৫ এ নামা খাজা। তার ব্যাট থেকে আসে ৩৮ বলে ৩৪। ৬ষ্ঠ উইকেটে স্মিথের সাথে ৪২ রানের ঝড় জুটি গড়েন অ্যালেক্স ক্যারি। এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ১৪ বলে ৩০ রান করেন।

সতীর্থদের আসা-যাওয়া দেখতে থাকা আগলে রেখে বেন স্টোকসের বলে ৬ হাঁকিয়ে ৯৪ বলে তিন অঙ্ক স্পর্শ করেন স্মিথ। এই অজি তারকার ইনিংসে ছিল ৮টি চার ও ৩টি ছয়ের মার। টম কারানের বলে ফিরতি ক্যাচ দিয়ে ফেরার আগে ১০২ বলে ১১৬ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন।

নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে অজিরা সংগ্রহ করে ২৯৭ রান। স্বাগতিক পক্ষে ওয়ার্নারের উইকেটসহ মোট ৪টি উইকেট তুলে নেন লিয়াম প্লাঙ্কেট। এছাড়া ১টি করে উইকেট নেন কারান, মার্ক উড ও ডওসন।

ইয়ন মরগান, জো রুটবিহীন ইংলিশ টপ অর্ডার খুব একটা ভালো করতে পারেনি। ব্যর্থ হয়েছেন উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান জনি বেয়ারস্টো। ১৭ বলে ১২ রান করে ফেরেন তিনি। জেসন রয়ের ব্যাট থেকে আসে ৩২ রান। ব্যাটিং অর্ডারে এগিয়ে আসা স্টোকসের ব্যাট থেকে আসে ২০ রান।

৪র্থ উইকেটে জস বাটলার ও জেমস ভিঞ্চের ৭১ রানের জুটি ইংল্যান্ডকে জয়ের পথ দেখায়। ৩১ বলে ৫২ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক বাটলার। তার ইনিংসে ছিল ৫টি চার ও ৩টি ছয়। ভিঞ্চের ব্যাট থেকে আসে ইনিংস সর্বোচ্চ ৬৪ রান (৭৬ বল)।

ব্যাট হাতে ঝড় তুলেও দলের হার এড়াতে পারেননি বাটলার।
ব্যাট হাতে ঝড় তুলেও দলের হার এড়াতে পারেননি বাটলার।

দলীয় ২৩৯ রানে অ্যাডাম জাম্পার বলে মঈন আলি ফিরে গেলে শঙ্কা দেখা দেয় ইংল্যান্ডের জয় নিয়ে। তার ব্যাট থেকে আসে ২২ রান। পেস অলরাউন্ডার টম কারান এসেই ফিরে যান। ৮ম উইকেটে ভালোই দলকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন ক্রিস ওকোস ও প্লাঙ্কেট। তবে ৪৪ বলে ৪০ রানে ওকোস রান আউট হয়ে ফিরে গেলে ম্যাচ হেলে যায় অস্ট্রেলিয়ার দিকে।

শেষ ওভার পর্যন্ত গড়ায় ম্যাচ। জয়ের জন্য স্বাগতিকদের প্রয়োজন ছিল ৬ বলে ১৫ রান। ৫০তম ওভারের ১ম বলেই প্লাঙ্কেট ফিরে গেলে সমীকরণ আরও কঠিন হয়ে যায়। ইনিংসের ৩ বল বাকি থাকতেই জোফরা আর্চার রান আউট হয়ে গেলে ১৩ রানের রোমাঞ্চকর জয় পায় অস্ট্রেলিয়া।

জেসন বেহরেনডরফ ও কেন রিচার্ডসন ২টি করে উইকেট নেন। ১টি করে উইকেট নেন জাম্পা, নাথান লায়ন, মার্কাস স্টইনিস ও নাথান কোল্টার নাইল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: (৫০ ওভার) অস্ট্রেলিয়া ২৯৭/৯
স্মিথ ওয়ার্নার ৪৩, খাজা ৩১, মার্শ ৩০, ক্যারি ৩০।
প্লাঙ্কেট ৪/৬৯, ডওসন ১/৫০, কারান ১/৫৪,  উড ১/১৯।

ইংল্যান্ড: (৪৯.৩ ওভার) ২৮৫/১০
ভিঞ্চ ৬৪, বাটলার ৫২, ওকোস ৪০, রয় ৩২, স্টোকস ২০, প্লাঙ্কেট ১৯।
বেহরেনডরফ ২/৪৩, রিচার্ডসন ২/৫১, লায়ন ১/৩৭।

ফল: ১২ রানে জয়ী অস্ট্রেলিয়া।

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

‘আমি সর্বদা বলি, সমর্থকরা আমাদের দ্বাদশ খেলোয়াড়’

আইসিসিকে নিশামের খোঁচা

সুপার ওভারের নিয়মে পরিবর্তন আনল আইসিসি

বিশ্বকাপ-ফাইনালের বিতর্কিত নিয়ম ‘চলবে না’ বিগ ব্যাশে!

ড্রেসিংরুমের ভেতরের কথা বাইরে না যাওয়াই ভালো: মুশফিক