Score

শ্রীলঙ্কাকে উড়িয়ে যুব এশিয়া কাপের ‘চ্যাম্পিয়ন’ ভারত

শ্রীলঙ্কা অনূর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেট দলকে ১৪৪ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে বড়দের দেখানো পথে হেঁটে যুব এশিয়া কাপের শিরোপাও নিজেদের দখলে নিল ভারত। এর ফলে সাত আসরের মধ্যে ছয়বারই শিরোপা জয়ের ‘বিরল কীর্তি’ গড়লো ভারতের যুবারা।

যুব এশিয়া কাপের চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স-আপ দলের শিরোপা।
যুব এশিয়া কাপের চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স-আপ দলের শিরোপা।

মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল আয়োজিত অনূর্ধ্ব ১৯ এশিয়া কাপের সপ্তম আসরের ফাইনালে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় ভারত।

ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকে দুর্দান্ত খেলতে থাকে দলটি। সেমিফাইনালে বাংলাদেশের বিপক্ষে ব্যাটম্যানদের বাংলাদেশি বোলারদের সামনে অগ্নিপরীক্ষার সম্মুখীন হতে হলেও এদিন দেখা যায় উলটো চিত্র। লঙ্কান বোলারদের ওপর চড়াও হয়ে ম্যাচের পুরোটা সময়জুড়েই ব্যাট করে ভারতের ব্যাটসম্যানরা।

উদ্বোধনী জুটিতে যশ্বসী জয়সওয়ালের ও অনুজ রাওয়াত মিলে যোগ করেন ১২১ রান। ব্যক্তিগত ৫৭ রানে অনুজ আউট হওয়ার পর দলীয় ১৮০ রানের সময় সাজঘরে ফিরেন জয়সওয়ালও। ব্যক্তিগত ৮৫ রানে আউট হয়ে যাওয়ার পর দলীয় ১৯৪ রানে ৩১ রান করা দেবদূতের উইকেট হারালেও খেলার নিয়ন্ত্রণ নিজেদের নাগালে নিতে পারেনি শ্রীলঙ্কা।

Also Read - যেসকল চ্যানেলে দেখা যাবে এপিএল

চতুর্থ উইকেট জুটিতে সিমরান সিং ও আইয়ুস বাদুনি মিলে লঙ্কানদের খেলার গতি ছন্নছড়া করে বড় সংগ্রহ এনে দেয় ভারতকে। দুই ওপেনারের পর এ দুই ব্যাটসম্যানও তুলে নেন অর্ধশতক। টপ-অর্ডারের ৫ জনের মধ্যে চার ব্যাটসম্যানের অর্ধশতক হাঁকানোতে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৩ উইকেটের বিনিময়ে ৩০৪ রানের পুঁজি পায় ভারত।

ম্যাচ শুরুর আগে জাতীয় সঙ্গীতের সময় দুই দলের ক্রিকেটাররা।

চতুর্থ উইকেট জুটিতে দ্রুতগতিতে মাত্র ৫৫ বলে ১০০ রান যোগ করে ৩৭ বল মোকাবেলায় ৩ চার ও ৪ ছয়ে ৬৫ রানে অপরাজিত থাকেন সিমরান। অন্যদিকে ২ চার ও ৫ ছক্কায় ২৮ বলে ঝড়ো ৫২ রান করে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন আইয়ুস।

প্রথমবারের মতো শিরোপা জয়ের বড় লক্ষ্য নিয়ে জবাবে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ২০ রানে প্রথম উইকেট হারান লঙ্কানরা। দ্রুত উইকেট হারানোর পর দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে নিশান মাধুশঙ্কা ও পাসিন্দু সোরিয়াবান্ডারা মিলে প্রাথমিক বিপর্যয় কাটিয়ে খেলায় ফেরান লঙ্কানদের।

তবে এ উইকেট বিচ্ছিন্ন হওয়ার পর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় শ্রীলঙ্কা। ভারতের পেসার হার্শ ত্যয়াগীর বোলিং তোপে শেষ পর্যন্ত ৩৮.৪ ওভারে স্কোরবোর্ডে সবকয়টি উইকেট হারিয়ে ১৬০ রাম করতে সক্ষম হলে ১৪৪ রানের জয়ে মাঠ ছাড়ে ভারত।

ভারতের বোলারদের মধ্যে একাই ৬ উইকেট শিকার করেন হার্শ।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-

ভারত অনূর্ধ্ব ১৯ দল: ৫০ ওভারে ৩০৪/৩
জয়সওয়াল ৮৫, রাওয়াত ৫৭, পাদিক্কাল ৩১, সিমরান ৬৫*, বাদোনি ৫২*; কালানা পেরেরা ১/৫৫,  সেনারত্নে ১/৪৫, ওয়েলালাগে ১/২৪।

শ্রীলঙ্কা অনূর্ধ্ব ১৯ দল: ৪৮.৩ ওভারে ১৬০/১০
নিশান ফার্নান্দো ৪৯, পারানাভিথানা ৪৮; মোহিত ১/১৮, দেশাই ২/৩৭, হার্শ ৬/৩৮।

ফলাফল: ভারত ১৪৪ রানের ব্যবধানে জয়ী ও এসিসি অনূর্ধ্ব এশিয়া কাপ ২০১৮ আসরের বিজয়ী।

আরও পড়ুনঃ যেসকল চ্যানেলে দেখা যাবে এপিএল

 

Related Articles

যুব এশিয়া কাপের সেমিফাইনাল লাইন-আপ চূড়ান্ত

পাকিস্তানের হারে সেমিফাইনালে বাংলাদেশ

পাকিস্তানকে ১৮৭ রানে গুটিয়ে দিলো বাংলাদেশ যুবারা

বাংলাদেশে অনুষ্ঠিতব্য যুব এশিয়া কাপের সময়সূচি প্রকাশ