শ্রীলঙ্কার স্কোয়াডে তরুণদের ছড়াছড়ি, ফিরেছেন কুশল

0
807

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সীমিত ওভারের সিরিজের জন্য ঘোষিত শ্রীলঙ্কার দলে ডাক পেয়েছেন কুশল পেরেরা। করোনা পজিটিভ হওয়ার পর এই সিরিজ দিয়েই মাঠে ফিরবেন কুশল।

শ্রীলংকার স্কোয়াডে তরুণদের ছড়াছড়ি, ফিরেছেন কুশল

Advertisment

তবে কুশল শুধু ওয়ানডে নাকি টি-টোয়েন্টিতেও খেলবেন তিনি তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আরও কিছু পরীক্ষার পর ফিটনেস বিবেচনায় নেওয়া হবে সিদ্ধান্ত। এছাড়া অভিজ্ঞ পেসার নুয়ান প্রদীপ ও ব্যাটসম্যান দীনেশ চান্দিমালও দলে ফিরেছেন। দুজনই সম্প্রতি ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে ভালো করেছেন।

অভিজ্ঞদের পাশাপাশি তরুণরাও আছেন স্কোয়াডে। ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে যৌথভাবে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী লেগস্পিনার পুলিনা থারাঙ্গা এবং দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী কামিন্দু মেন্ডিসও দলে আছেন। তিন ইনিংসে ব্যাট করে ১৬৮ স্ট্রাইকরেটে ১৯৩ রান তুলেছেন মেন্ডিস। অফস্পিনার মাহিশ ঠেকশানা আর পেসার লাহিরু মাদুশাঙ্কা সেরকমভাবে আলো ছড়াতে না পারলেও স্কোয়াডে জায়গা পেয়েছেন।

স্কোয়াড থেকে বাদ পড়েছেন বাঁহাতি চায়নাম্যান বোলার লক্ষ্মণ সান্দাকান, পেসার কাসুন রাজিথা এবং মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান আশেন বান্দারা। এদের কেউই জুলাইয়ে শেষ হওয়া ভারত সিরিজে আশানুরূপ পারফরম্যান্স দেখাতে পারেননি।

দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটার প্রদীপ আর চান্দিমাল ভালো পারফর্ম করেই ফিরেছেন জাতীয় দলে। ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে ৮.১৮ ইকোনমি রেটে উইকেট নিয়েছেন ৭টি। আরেকদিকে চান্দিমাল ছিলেন এসএলসি রেডসের নেতৃত্বে। ফাইনাল খেলেছে তার দল, সেখানে বেশ দারুণ ভূমিকাই রেখেছেন চান্দিমাল। ৬ ইনিংসে ১৮৩ রান তুলেছেন ১২০ স্ট্রাইক রেটে। ২০১৯ সালের পর মাত্র তিনটি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন চান্দিমাল।

শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক দাসুন শানাকাও বেশ ভালো ফর্মে ছিলেন ঘরোয়া টুর্নামেন্টটিতে। ১৮৪ স্ট্রাইক রেটে রান করেছেন ২৫৮, হয়েছেন টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকও। সাউথ আফ্রিকার সাথে হোম সিরিজে শ্রীলংকা খেলবে তিনটি করে ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি। প্রথম ওয়ানডে দিয়ে সিরিজ শুরু হচ্ছে আগামী ২ সেপ্টেম্বর।

একনজরে শ্রীলঙ্কা স্কোয়াড : দাসুন শানাকা(অধিনায়ক), ধনঞ্জায়া ডি সিলভা, কুশল পেরেরা, দীনেশ চান্দিমাল, আভিষ্কা ফার্নান্দো, ভানুকা রাজাপাকশা, পাথুম নিসাঙ্কা, চারিথ আসালাঙ্কা, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, কামিন্দু মেন্ডিস, মিনোদ ভানুকা, রমেশ মেন্ডিস, চামিকা কারুনারত্নে, নুয়ান প্রদীপ, বিনুরা ফার্নান্দো, দুশমন্ত চামিরা, আকিলা দানাঞ্জায়া, প্রভীন জয়াভিক্রমা, লাহিরু কুমারা, লাহিরু মাদুশাঙ্কা, পুলিনা থারাঙ্গা, মাহিশ ঠেকশানা।