সবকিছু ত্যাগ করে দেশকে জয় উপহার দিতে চাই : তাসকিন

নিবেদন আর পরিশ্রমের কারণে সাম্প্রতিক সময়ে আলোচনার তুঙ্গে পেসার তাসকিন আহমেদ। জাতীয় দলের এই অভিজ্ঞ ক্রিকেটার জিম্বাবুয়ে সফরেও নিজেকে নিংড়ে দিতে প্রস্তুত।

সবকিছু ত্যাগ করে দেশকে জয় উপহার দিতে চাই তাসকিন

Advertisment

২০১৪ সালে জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক হলেও তাসকিন এবারই প্রথম গেলেন জিম্বাবুয়ে সফরে। জাতীয় দলের জার্সি গায়ে সময়টা ভালো যাচ্ছে তার। সুসময়ে নিজেকে আরও মেলে ধরতে প্রস্তুত তাসকিন।

তিনি বলেন, ‘আমি খুবই রোমাঞ্চিত, ভালো লাগছে, প্রথমবার জিম্বাবুয়েতে আসলাম। সুযোগ-সুবিধাসহ সবকিছু উপভোগ করছি। মুখিয়ে আছি খেলার জন্য।’ 

জৈব সুরক্ষা বলয়ের কারণে ক্রিকেটারদের কাজ হয়ে উঠেছে আগের চেয়েও কঠিন। তবে দেশকে সাফল্য এনে দিতে শত কাঠিন্যেও কোনো আপত্তি নেই তাসকিনের।

তিনি বলেন, ‘আসলে বায়োবাবল জীবন সহজ নয়। ঢাকায় হোম সিরিজ খেললেও পরিবার থেকে দূরে থাকতে হয়। হোম এবং অ্যাওয়ে সিরিজ দুটাই এখন বলয়ে আবদ্ধ। মানসিক চাপের মধ্যেই থাকি আমরা। আর খেলার মধ্যে তো একটা চাপ থাকেই। এর মধ্যেও আমরা দেশের জন্য খেলি, সবকিছু ত্যাগ করে নিজের সেরাটা দেই, ভালো করতে চাই, দেশকে জয় উপহার দিতে চাই।’

মাঠের বাইরের প্রক্রিয়া অনুসরণ করে তাসকিন নিজেকে প্রস্তুত রেখেছেন ভালো পারফরম্যান্সের জন্য। তার মতে, যতটুকু নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব তা নিয়েই থাকা উচিৎ ভাবনা। তাসকিনের ভাষায়, ‘আল্লাহর রহমতে আগের চেয়ে ভালো হচ্ছে। তবে এখনও উন্নতির অনেক জায়গা আছে। আমি মাঠের বাইরের প্রক্রিয়াই সবসময় অনুসরণ করছি। এটাই নিয়ন্ত্রণে আছে, এখানেই শতভাগ দিতে পারব। যদি আরও উন্নত করতে পারি ইনশাআল্লাহ ভবিষ্যতে ভালো কিছু হবে এবং এই সিরিজেও ভালো কিছু করার ব্যাপারে আশাবাদী।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।