সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উইকেট নিয়েছেন সাকিব!

0
1811

শুক্রবার ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে হারিয়ে ফাইনালে উত্থিত হয় লিগ পর্বে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। এই জয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন বাংলাদেশি ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান।

রশিদ-সাকিবে ভর করে ফাইনালে হায়দরাবাদ

Advertisment

ব্যাটে বলে দারুণ পারফরমেন্স করে ম্যাচের মূল নায়ক অবশ্য আফগান ক্রিকেটার রশিদ খান। তবে সাকিবের অবদানকেও ছোট করে দেখার সুযোগ নেই। বরং ক্রিকইনফোর বিশেষজ্ঞ অজিত আগারকারের মতে, ম্যাচের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উইকেটটি সাকিবই নিয়েছিলেন প্রতিপক্ষ দলপতি দীনেশ কার্তিককে সাজঘরের পথ দেখিয়ে।

আগারকার বলেন-

‘হ্যাঁ, রশিদ খানই ছিলেন এই ম্যাচের নায়ক। তবে অবশ্যই ভুলে যাওয়া উচিৎ নয় যে, সাকিব কিন্তু দিনেশ কার্তিকের মতো গুরুত্বপূর্ণ উইকেটটি নিয়েছেন। আমার মতে এটিই ছিলো ম্যাচের সবচেয়ে বড় উইকেট।’

আগারকারের মতে, আন্দ্রে রাসেলকে আউট করার চেয়েও বেশি কার্যকরী ছিল কার্তিককে আউট করা। তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ, এখন হয়তো আন্দ্রে রাসেলের কথা আসবে। কিন্তু চলতি মৌসুমে রান তাড়ার ক্ষেত্রে আপনি কার্তিকের রেকর্ড দেখুন। তখনই বুঝবেন তার উইকেটের মাহাত্ম্য।’

শুক্রবার ব্যাটে-বলে যৌথ অবদান রেখে সাকিব জিতে নেন ‘স্টাইলিশ প্লেয়ার অব দ্যা ম্যাচ’ অ্যাওয়ার্ড। চার নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমেছিলেন সাকিব। দলের রান তখন দুই উইকেট ৬০। এক ওভারে দুই উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

তৃতীয় উইকেটে ঋদ্ধিমান সাহাকে নিয়ে সাকিব আল হাসান যোগ করেন ২৪ রান। পিযূষ চাওলার বলে ঋদ্ধিমান সাহা স্টাম্পিং হলে এ জুটি ভাঙে। এরপর দীপক হুদাকে নিয়ে সাকিব আল হাসান গড়েন ২৯ রানের জুটি। ৪ চারে সাজানো ২৪ বলে ২৮ রানের ইনিংস খেলে রান আউট হন সাকিব।

বোলিংয়েও দারুণ পারফরম্যান্স করে দলের জয়ের অবদান রাখেন সাকিব। করেন কৃপণ বোলিং। কলকাতা নাইট রাইডার্সের ব্যাটসম্যানদের দারুণভাবে আটকে রাখেন সাকিব। তিন ওভার বোলিং করে মাত্র ১৬ রান দেন তিনি। নিজের দ্বিতীয় ওভারে বোল্ড করেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের অধিনায়ক দীনেশ কার্তিককে।

আরও পড়ুনঃ ছিটকে গেলেন বাবর আজম