সরফরাজকে সরানোর সাথে ইমরান খানের সম্পর্ক নেই : মানি

বড় ট্রফি জিততে না পারার ৮ বছরের আক্ষেপ ঘুচিয়ে দেশকে জিতিয়েছেন চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। ২০১৯ বিশ্বকাপেও দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। কোপটা পড়ল বিশ্বকাপের পারফরম্যান্স বিচার করেই! সরফরাজ আহমেদের অধিনায়কত্ব হারানো নিয়ে এখনও নানা কানাঘুষা শোনা যায়। অবশেষে এ নিয়ে মুখ খুললেন তৎকালীন পিসিবি প্রধান এহসান মানি।

সর্বশেষ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে শিরোপা জিতেছিল পাকিস্তান, সরফরাজের নেতৃত্বে। ফাইল ছবি

পাকিস্তানের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিজয়ী অধিনায়ক সরফরাজকে নেতৃত্ব থেকে সরানোর পেছনে তখনকার প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের হাত ছিল, এমন গুঞ্জন দীর্ঘদিনের। ইমরান নিজেও ক্ষমতা হারিয়ে এখন দেশের একজন সাধারণ নাগরিক। এমন পরিস্থিতিতে মানি জানালেন, সরফরাজের নেতৃত্ব হারানোর পেছনে ইমরানের কোনো ভূমিকা ছিল না।

Advertisment

ক্রিকেট পাকিস্তানকে মানি বলেন, ‘সরফরাজের নেতৃত্ব কেড়ে নেওয়ায় ইমরানের খানের কোনো ভূমিকা ছিল না। সবই হয়েছে পারফরম্যান্সের কারণে। সরফরাজের পারফরম্যান্স দেখুন, তার পারফরম্যান্স পড়তির দিকে ছিল। তাই অধিনায়কত্ব থেকে সরানোর সিদ্ধান্ত ইমরানের, এটা ঠিক নয়। পারফরম্যান্সের কারণেই আমরা সরফরাজের জায়গায় রিজওয়ানকে নিই।’

'কোহলি ও সরফরাজের অধিনায়কত্ব একই ধরনের'
বিশ্বকাপে ভালো না করায় নেতৃত্ব হারান সরফরাজ, একাদশেও জায়গা হারান। ফাইল ছবি

২০১৯ বিশ্বকাপে পাকিস্তানের শুরুটাই ভালো হয়নি। শেষদিকে ঘুরে দাঁড়িয়ে পয়েন্ট টেবিলের পাঁচে থেকে আসর শেষ করলেও একবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা সেমিফাইনালে উঠতে ব্যর্থ হয়। তাই সমালোচনা শুরু হয় সরফরাজের অধিনায়কত্ব নিয়ে। যদিও সরফরাজের নেতৃত্বেই ২০১৭ সালে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জিতেছিল পাকিস্তান।

রিজওয়ান দলে থিতু হলে সরফরাজ একাদশে ব্রাত্য হয়ে পড়েন। এখনও অবশ্য দলের সাথে আছেন তিনি। হাসিমুখে দলের জন্য পানি বইতেও দেখা যায় তাকে।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।