সাইফউদ্দিন ঝলকে হ্যাটট্রিক শিরোপা জিতল আবাহনী

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) সুপার লিগের শেষ রাউন্ডের খেলায় প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবকে ৮ রানে হারিয়ে শিরোপা ধরে রাখল আবাহনী লিমিটেড। এই জয়ে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থান নিশ্চিত করে এবারের আসর সম্পন্ন করল আবাহনী। ২২ পয়েন্ট নিয়ে রানার-আপ হয়েছে প্রাইম ব্যাংক।বিশাল জয়ে ডিপিএলের শ্রেষ্ঠত্ব অক্ষুণ্ণ রাখল আবাহনী

‘হোম অব ক্রিকেট’ খ্যাত মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন আবাহনীর অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ৩১ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গেলেও আবাহনীকে পথ দেখান নাজমুল হোসেন শান্ত ও মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।

Advertisment

চতুর্থ উইকেটে ৭০ রানের পার্টনারশিপ গড়ে বিপর্যয় প্রতিরোধ করেন তারা। ভালো ব্যাটিং সত্ত্বেও কেউই অবশ্য অর্ধশতকের দেখা পাননি। শান্ত ৪০ বলে ৪৫ রান ও মোসাদ্দেক ৩৯ বলে ৪০ রান করে সাজঘরে ফেরেন।

অন্যান্যদের মধ্যে লিটন দাস ১৩ বলে ১৯, আফিফ হোসেন ধ্রুব ৭ বলে ১২ ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ১৩ বলে অপরাজিত ২১ রান করেন। শেষপর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে আবাহনীর সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৫০ রান। প্রাইম ব্যাংকের পক্ষে  ২২ রানের খরচায় ২ উইকেট শিকার করেন রুবেল হোসেন।

সাইফউদ্দিন ঝলকে হ্যাটট্রিক শিরোপা জিতল আবাহনী

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে দলীয় ১২ রানে ওপেনার রনি তালুকদারের উইকেট হারায় প্রাইম ব্যাংক। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকলে খেই হারিয়ে ফেলে দলটি। আরেক ওপেনার রুবেল মিয়া এক প্রান্ত আগলে রেখে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে গেলেও ৪৩ বলে ৪১ রান করে তিনি বিদায় নিলে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে প্রাইম ব্যাংক।

১৯তম ওভারে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন পড়েছিলেন অলক কাপালির মারকুটে ব্যাটিংয়ের মুখে। ৩৬ রান খরচ করলেও তিনি একাই শিকার করেন নেন প্রাইম ব্যাংকের চারটি উইকেট। এছাড়া দুটি উইকেট শিকার করেন মেহেদী হাসান রানা। শেষ ওভারে প্রাইম ব্যাংকের প্রয়োজন ছিল ১৬ রান। শহিদুল ইসলামের করা সেই ওভারে আসে ৭ রান। বৃথা যায় ২টি চার ও ৩টি ছক্কায় গড়া অলকের ১৭ বলে ৩৪ রানের ক্যামিও।

শেষপর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৯ উইকেট হারিয়ে প্রাইম ব্যাংকের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৪২ রান। এতে ৮ রানের জয়ে শিরোপা নিশ্চিত হয় আবাহনীর। ডিপিএলে এটি আবাহনীর টানা তৃতীয় শিরোপা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর 

টস : আবাহনী লিমিটেড

আবাহনী লিমিটেড : ১৫০/৭ (২০ ওভার)
শান্ত ৪৫, মোসাদ্দেক ৪০, সাইফউদ্দিন ২১*
রুবেল ২২/২, রুবেল ১৮/১

প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব : ১৪২/৯ (২০ ওভার)
রুবেল ৪১, অলক ৩৪*, নাঈম ১৯
সাইফউদ্দিন ২২/৪, রানা ৩০/২

ফল : আবাহনী লিমিটেড ৮ রানে জয়ী।