Scores

সাকিবের ক্যারিয়ারের সেরা রেটিং

ম্যাচসেরার পুরস্কার হাতে সাকিব
ম্যাচসেরার পুরস্কার হাতে সাকিব

অলরাউন্ডারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে তিন ফরম্যাটে সাকিব আল হাসানের আধিপত্য। সব ফরম্যাটে এক থেকে তিনের মধ্যেই থাকে সাকিব আল হাসানের নাম। টেস্টে অস্ট্রেলিয়া সিরিজের আগে থেকেই ছিলেন শীর্ষে। তাই দারুণ পারফরম্যান্সের পরেও এগিয়ে যাওয়া হচ্ছে না। তবে বেড়েছে রেটিং।

বর্তমানে সাকিব আল হাসানের রেটিং পয়েন্ট ৪৮৯। এটি তার ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ রেটিং। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুই ইনিংস মিলিয়ে ৮৯ রানের পাশাপাশি বল হাতে শিকার করেছেন ১০ উইকেট। ব্যাট হাতে প্রথম ইনিংসে দলের বিপর্যয়ের সময় খেলেছেন ৮৪ রানের এক অসাধারণ ইনিংস। দ্বিতীয় ইনিংসে করেছেন ৫ রান। প্রতি ইনিংসে উইকেট পেয়েছেন পাঁচটি করে।

এমন দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে ৫৮ রেটিং বেড়েছে সাকিবের। ঢাকা টেস্ট শুরু হওয়ার আগে তার রেটিং ছিল ৪৩১।

Also Read - কোহলির সামনে শুধু টেন্ডুলকার ও পন্টিং


কিছুদিন আগে ভারতের অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজার কাছে নিজের শীর্ষস্থান হারিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান।  এরপর জাদেজাকে টপকে আবারো এক নম্বরে ফিরে এসেছিলেন সাকিব। তবে রেটিংয়ের ব্যবধান ছিল মাত্র ১। জাদেজার ৪৩০ ও সাকিবের ৪৩১। সেই ব্যবধান এক থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৯-এ। ব্যবধান বাড়িয়ে অনেক দিনের জন্যই হয়তো শীর্ষস্থানটা দখল করে ফেললেন সাকিব আল হাসান।

এছাড়া অলরাউন্ডারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে তিনে আছেন ভারতীয় অলরাউন্ডার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। চার ও পাঁচে রয়েছেন যথাক্রমে দুই ইংলিশ অলরাউন্ডার মইন আলি এবং বেন স্টোকস।

এর আগে সাকিব আল হাসানের সর্বোচ্চ রেটিং পয়েন্ট ছিল ৪৪৩। এ বছরের শুরু নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ক্রাইস্টচার্চে দ্বিশতক হাঁকানোর টেস্টের পর ৪৪৩ রেটিং অর্জন করেছিলেন সাকিব।

সাকিব আল হাসান র‍্যাঙ্কিংয়ে যে উচ্চতায় আছেন তাতে আর উপরে ওঠা সম্ভব নয়। তবে দারুণ পারফরম্যান্স দিয়ে নিজেকেই ছাড়িয়ে যাচ্ছেন বারবার। নিয়ে যাচ্ছেন অনন্য এক উচ্চতায়। মিরপুরে প্রথম টেস্টে যেন ঘটলো তারই পুনরাবৃত্তি।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

“বিশ্বকাপের পর আমার সমালোচক কম হয়ে গিয়েছে”

টেস্ট র‍্যাকিংয়ে সাকিবের পিছিয়ে পড়ার কারণ

মতামতঃ শুধুই বিশ্বসেরা, নাকি সর্বকালের অন্যতম সেরা?