Scores

সাকিবের তুলে ধরা প্রসঙ্গে পন্টিংয়ের জবাব

অস্ট্রেলিয়ার সিডনি ক্রিকেট মাঠে মেরিলেবোন ক্রিকেট ক্লাব (এমসিসি) কমিটির নতুন সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৯ ও ১০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত এই সভাতে প্রথমবারের মতো অংশ নিয়েছেন বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান, নিউজিল্যান্ডের নারী ক্রিকেটার সুজি বেটস ও শ্রীলঙ্কান আম্পায়ার কুমার ধর্মসেনা। ২ দিনের সভা শেষে আলোচ্য বিষয়গুলো জানানো হয়েছে।

 

সিডনিতে এমসিসির সভার পূর্বে সদস্যরা

 

Also Read - অশনি সংকেতের বার্তা দিয়েছেন সাকিব


প্রথমবারের মতো অংশ নিয়ে বাংলাদেশের ক্রিকেটের কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তুলে ধরেছিলেন সাকিব। যেখানে ছিল- টেস্ট ক্রিকেট খেলা দেশগুলোর বেতনের বিশাল পার্থক্য, টেস্টের থেকে অর্থ বেশি আসায় তরুণ প্রজন্মের টি-টোয়েন্টিতে বেশি আগ্রহ কিংবা টি-টোয়েন্টিকেই লক্ষ্য নির্ধারণ।

সাকিবের এই বিষয়গুলো নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক রিকি পন্টিং বলেছেন, ‘এটা তো স্বাভাবিকভাবেই বোঝা যায় যে, ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট খেলোয়াড়দের অনেক বেশি আর্থিক নিরাপত্তা দিচ্ছে। সেখানে তারা অনেক বেশি পারিশ্রমিক পাচ্ছে। যে কারণে জাতীয় দলের চেয়ে এসব ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে খেলাই বেশি নিরাপদ মনে করছে তারা। আপনি খেলোয়াড়দের এসব টুর্নামেন্টে খেলার কারণে দোষও দিতে পারবেন না। ইংলিশ কিংবা অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটারদের আপনি জাতীয় দল ছেড়ে আইপিএল খেলতে দেখবেন না। এর কারণ তারা (বোর্ড) খেলোয়াড়দের সন্তোষজনক পারিতোষিক দিয়ে থাকে। তাই বছরের বেশির ভাগ সময় ধরে টেস্টে সেরা খেলোয়াড় পেতে ইংল্যান্ড কিংবা অস্ট্রেলিয়ার কাছাকাছি চুক্তি নিশ্চিত করা উচিত। এতে তাদের দেশের প্রতিনিধিত্ব করার আগ্রহে ভাটা পড়বে না।’

পন্টিং আরও যোগ করে বলেছেন,  ‘আমরা দেখতে চাই, টাকা যেখানে যাওয়া উচিত, সেই খেলোয়াড়দের পর্যন্ত পৌঁছে দেওয়ার ব্যাপারে আরও সম্পৃক্ত হবে আইসিসি। এটাও বুঝতে হবে, ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টগুলো খেলোয়াড়দের দেশের প্রতিনিধিত্ব না করার ব্যাপারটি আরও সহজ করে দিচ্ছে, সেটা আরও ভালো বেতন-ভাতা দেওয়ার মধ্য দিয়ে। আইপিএল এ ক্ষেত্রে সম্ভবত সবচেয়ে বড় ভূমিকা রেখে অন্যান্য দেশের ঘরোয়া টুর্নামেন্টকেও প্রভাবিত করছে।’

পাশাপাশি পন্টিং আশা প্রকাশ করেছেন, আইসিসি দ্রুত এইসব বিষয়ে পদক্ষেপ নিবে, ‘আমরা আশা করবো, আইসিসি খেলোয়াড়দের আর্থিক নিরাপত্তার বিষয়টি আরও ভালোভাবে অনুধাবন করবে এবং এ বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।’

উল্লেখ্য, প্রথমবারের মতো এমসিসির সভায় যোগ দিতে ৭ জানুয়ারি অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশে দেশ ছাড়েন সাকিব আল হাসান।

[আরও পড়ুনঃ এমসিসির সভায় অশনি সংকেতের বার্তা দিয়েছেন সাকিব]

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
Tweet 20
fb-share-icon20

Related Articles

আইসিসির ভারতপ্রীতি নিয়ে টুইটারে ক্ষোভ

ক্রিকেট ভক্তদের দুঃসংবাদ দিল আইসিসি

বিশ্বকাপের ভাগ্য নির্ধারণ চলতি মাসেই

বন্ধ হয়ে গেল আইসিসিও

করোনার প্রভাবে আইসিসির বোর্ড সভা স্থগিত