SCORE

সর্বশেষ

সাকিবের পরামর্শেই অপুর কারিশমা

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ১৯৩ রানের রেকর্ড স্কোর করে বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে নিজেদের সর্বোচ্চ রানের স্কোর গড়েও বড় ব্যবধানে হেরেছে রিয়াদরা। এইদিনে বোলাররা ছিলেন ব্যর্থ। তবে ব্যতিক্রম ছিলেন একজন- নাজমুল ইসলাম অপু। রানবন্যার ম্যাচে ৪ ওভারে মাত্র ২৫ রান দিয়ে ২টি উইকেট নিয়েছেন এই বামহাতি স্পিনার। আর অপুর এমন স্পেলের মূলে ছিলেন সাকিব আল হাসান।

ইনজুরির কারণে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল থেকে মাঠের বাইরে সাকিব। টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত তা হয় নি। তবে মাঠে খেলতে না পারলেও টাইগারদের সাথে ছিলেন এই ক্রিকেটার। গতকাল (১৫ ফেব্রুয়ারি) শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে টাইগারদের সমর্থন দিতে মাঠে ছিলেন সাকিব। দেখা গিয়েছিলো ড্রেসিং রুমেও। এরই এক ফাঁকে অভিষিক্ত অপুকে পরামর্শ দিয়েছিলেন সাকিব।

Also Read - তরুণদের উপরই আস্থা রাখছে বিসিবি

এই প্রসঙ্গে অপু জানান, ‘আমি অনেক ভাগ্যবান। হঠাৎ করে দেখি ড্রেসিংরুমে সাকিব আসছে। সাকিবের সাথে আলাপ করলাম, কি বোলিং করলে ভালো হবে? ও (সাকিব) বললো যে, উইকেট অনেক ভালো। তাই পায়ে পায়ে বল করলে ভালো হবে। সাকিবের এই কথা শুনে আমি শুধু এটাই করার চেষ্টা করেছি, আর বেশি কিছু করি নি।’

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে অপু ছাড়া বাংলাদেশের সব বোলারদের স্পেল ছিল বাজে। সাইফুদ্দিন ২ ওভারে রান দেন ৩৩ (ইকোনোমি ১৬.৫০), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ২ ওভারে ২৩ (ইকোনোমি ১১.৫০), রুবেল হোসেন ৩.৪ ওভারে ৫২ (ইকোনোমি ১৪.১৮), মুস্তাফিজুর রহমান ৩ ওভারে ৩২ (ইকোনোমি ১০.৬৬), আফিফ হোসেন ২ ওভারে ২৬ (ইকোনোমি ১৩.০০)। অন্যদিকে অপু একমাত্র বোলার হিসেবে ৪ ওভারের পুরো স্পেল করেছেন, ইকোনোমি ছিল ৬.২৫।

এদিকে প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের বোলাররা পাত্তা না পেলেও দ্বিতীয় ম্যাচে ভালোভাবে ফিরে আসবে বলে মনে করেন অপু, ‘এইসব উইকেটে একটা জায়গায় বল করলে ভালো। আমাদের এখন পরিকল্পনা এটাই। ইন শা আল্লাহ পরের ম্যাচে আমরা ভালোভাবে কামব্যাক করবো।’

[আরও পড়ুনঃ ইতিহাস গড়ে জিতল অস্ট্রেলিয়া]

Related Articles

তিন সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে অপু

অপুর হাতে ২৫ সেলাই!

লিটনের ক্যারিয়ার সেরা রেটিং, র‍্যাঙ্কিংয়ে সাকিব-তামিমের উন্নতি

বাঁহাতি-ডানহাতিতে সমস্যা দেখেন না অপু

অপুর আরও বেশি ‘নাগিন নৃত্য’র আশা