Scores

এমনটাই চেয়েছিলেন সাকিব

উইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে ইনিংস ও ১৮৪ রানে জিতেছে বাংলাদেশ। ব্যাটিং ও বোলিং- দুই বিভাগেই ছিল বাংলাদেশের একক আধিপত্য। তিন দিনেই উইন্ডিজদের কাবু করেছে টাইগাররা। পুরো ম্যাচেই ছিল বাংলাদেশের দাপট। ম্যাচশেষে পুরস্কার বিতরণীতে  অধিনায়ক সাকিব আল হাসান জানিয়েছেন এমন দুর্দান্ত টিমই চেয়েছিলেন তিনি।

এমনটাই চেয়েছিলেন সাকিব

দুর্দান্ত অধিনায়কত্ব ও অলরাউন্ডিং পারফরম্যান্সের জন্য সিরিজসেরা হন সাকিব আল হাসান। দলের কাছ থেকে অধিনায়ক ও কোচদের ঠিক এমনটাই চায়া ছিল বলে জানান তিনি। সাকিব বলেন, “আমি এবং কোচিং স্টাফের সবাই এটাই চেয়েছিল। সব মিলিয়ে দারুণ টিম এফোর্ট। যে ব্যাটসম্যানরা সুযোগ পেয়েছে, প্রত্যেকেই কাজে লাগিয়েছে। চারজন স্পিনারের সবাই ভালো করেছে। 

Also Read - মিরাজের ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে বাংলাদেশের সিরিজ জয়

পরিকল্পনামাফিক বোলিং করতে বোলাররা সফল হয়েছেন বলে মনে করেন তিনি। তিনি বলেন, “আমরা পরিকল্পনা করেছি এবং সেই অনুসারে বোলিং করেছি। বিশেষ করে মিরাজ আর নাঈম সত্যি ভালো করেছে। উইকেটের কলাম হয়তো তা বলছে না। আমি দলের কাছ থেকে আর বেশি কিছু চাইতে পারিনা।সামনে আরো চ্যালেঞ্জ আসছে। আমরা সেই চ্যালেঞ্জগুলো নিতে মুখিয়ে আছি।”

আঙুলের চোট নিয়ে এশিয়া কাপের মাঝপথে দেশে ফিরতে হয়েছিল সাকিবকে। চোটের কারণে খেলতে পারেননি জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। উইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট দিয়ে ফিরেছেন ক্রিকেটে। নিজের ফিটনেস নিয়ে বলেন, “আমি প্রথম টেস্টের আগে এক অথবা দুই সেশন অনুশীলন করেছিলাম। তবে দ্বিতীয় টেস্টে আমি নিজেকে একদম ফিট মনে করছি।”

দ্বিতীয় টেস্টের বিশ উইকেটের বারোটিই শিকার করেন অফ স্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজ। নিজের ক্যারিয়ারের সেরা বোলিং প্রথম ইনিংসে। প্রথম ইনিংসে সাত উইকেট পাওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে তিনি নেন পাঁচ উইকেট। এমন পারফরম্যান্সে খুশি তিনি। তিনি বলেন, ” আমি সত্যি অনেক খুশি। অনেকদিন পর ম্যান অব দ্যা ম্যাচের অ্যাওয়ার্ড পেলাম। আমাদের বোলাররা সত্যি ভালো বোলিং করেছে। বিশেষ করে সাকিব ভাই এবং তাইজুল।” এছাড়া প্রথম ইনিংসে ৫০৮ রান করে ব্যাটসম্যানরা বোলারদের কাজ সহজ করে দিয়েছে বলে মনে করেন তিনি।

 


আরো পড়ুনঃ মাশরাফিকে টপকালেন মিরাজ


Related Articles

ঋণ দিয়ে উইন্ডিজ সফর করেছিল বাংলাদেশ

বাংলাদেশ-উইন্ডিজ ম্যাচের নো বল ইস্যুতে মুখ খুললেন স্টেইনও

যে সকল রেকর্ডের হাতছানি সাকিব, মুশফিকদের সামনে

বিশ্বকাপের শেষ ম্যাচ খেলেই পরের সিদ্ধান্ত নিবেন মাশরাফি

“শেষ ম্যাচ আমাদের বাঁচা-মরার লড়াই”