Score

"সাকিব ছাড়াও আমরা যথেষ্ট শক্তিশালী" -সুজন

পাঁচ বছর আগে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগ (ডিপিএল) জিতেছিল আবাহনী লিমিটেড। ২০১০-২০১১ ছিল তাদের সফলতার বছর। এরপর ডিপিএলের টানা চারটি সফল টুর্ণামেন্ট সম্পন্ন হয়েছে।

এবারের আসরে পুনরায় শিরোপা ঘরে তুলতে চায় আবাহনী। এ লক্ষ্যে দলটি একটি দারুণ কর্মপরিকল্পনা সাজিয়েছে। আবাহনী দলে রয়েছেন সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, লিটন দাশ, মোসাদ্দেক হোসাইন, তাসকিন আহমেদ এবং জুবায়ের হোসেনের মতো জাতীয় দলের তারকা ক্রিকেটার।

উল্লেখ্য, তাদের দলে রয়েছে খালেদ মাহমুদের মতো দক্ষ কোচ, যিনি তাদের চ্যাম্পিয়নশীপের জন্য কঠিন ও শক্তিশালী দল হিসেবে তৈরী করছেন। যদিও আবাহনীর কোচ হিসেবে সুজনের নাম আসার পর বেশ বিতর্কের সৃষ্টি হয়।
abahani-take-top

Also Read - আইপিএলের টাকা এখনো পায়নি বিসিবি

ডিপিএলে কোচ হিসেবে সুজনের রয়েছে গৌরবোজ্জল ইতিহাস। সর্বশেষ আসরে তিনি প্রাইম ব্যাকের দায়িত্বে ছিলেন। আবাহনী সর্বশেষ যে শিরোপা জিতেছিল, সে সময় দলের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। ফলে নি:সন্দেহে ডিপিএলের এবারের আসরে আবাহনীকে বেশ শক্তিশালী দল হিসেবে দেখা হচ্ছে।

তবে সুজনের মতে, তাদের প্রধান কাজ হলে মাঠে নিজেদের প্রমাণ করা, এবং প্রত্যাশা পূরণ করা। সুজন বলেন, “কাগজে-কলমে আমারা সেরা দল তাতে কোন সন্দেহ নেই। কিন্তু ক্রিকেট এমন একটি খেলা, যা মাঠে খেলতে হয়। সুতরাং তুমি তোমার সফলতার বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারবে না। তোমাকে তোমার সেরাটাই খেলতে হবে, যেটা আমরা করতে চাই। একটা বিষয়ে আমি নিশ্চিত করে বলতে পারি, শিরোপার জন্য আমরা লড়ব।”

শুক্রবার মীরপুর একাডেমি গ্রাউন্ডে আনুষ্ঠানিকভাবে আবাহনী তাদের প্র্যাকটিসে ক্যাম্প শুরু করেছে। তবে তাদের প্রধান কয়েকজন খেলোয়াড় অনুপস্থিত ছিলেন। দলের কোচ জানিয়েছেন, “আজ আমাদের প্রথম প্র্যাকটিস ছিল। কিন্তু সবাই উপস্থিত ছিলেন না। তামিম উমরাহ পালন করতে গেছেন, মোসাদ্দেকের মা অসুস্থ, সে ১৭ তারিখ প্র্যাকটিসে যোগ দেবে।” তামিম ইকবাল ও তার ভালো বন্ধু সাকিব আল হাসান আবাহনীর অন্যতম খেলোয়াড়।

কিন্তু সাকিব বর্তমানে কোলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে আইপিলে খেলছেন। বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার কবে নাগাদ ফিরছেন সে বিষয়ে নিশ্চিত নন সুজন। তিনি বলেন, “আমি জানি না সাকিবকে আমরা কবে থেকে পাব। কিন্তু আমরা তাকে ছাড়াও যথেষ্ট শক্তিশালী। দলে তামিম, মোসাদ্দেক, লিটন, শান্ত (নাজমুল হোসাইন) এর মতো খেলোয়াড় রয়েছে। আমারদের তরুণ খেলোয়াড়াও বেশ খেলছে করছে। বাংলাদেশের সাবেক এই অধিনায়ক আরও বলেন, “আমাদের পেসাররা বেশ অভিজ্ঞতা সম্পন্ন। যেখানে রয়েছেন তাসকিন , বৈশ্য (তাপস) এবং রাজু। সাকলাইন সজীব আছেন স্পিনার । জুবায়ের এবং অমিতাভ (কুমার) দীর্ঘ সময় যাবৎ ডিপিএলে খেলছেন।”

 

আবাহনী স্কোয়াড: লিটন কুমার দাস, মোসাদ্দেক হোসেন, তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, তাসকিন আহমেদ, আবুল হাসান রাজু, অভিষেক মিত্র, তাপস বৈশ্য, অমিতাভ কুমার নয়ন, আবু বকর সিদ্দিকী, জুবায়ের হোসেন লিখন, সাকলায়েন সজীবসহ আরও অনেক খেলোয়াড়।

-রাসেল আহমেদ

Related Articles

তিন সপ্তাহ মাঠের বাইরে রাজ্জাক!

ভেন্যু পরিবর্তন মোহামেডান-শেখ জামাল ম্যাচের

ইনজুরিতে পড়েছেন এনামুল হক বিজয়

কলাবাগানকে হারিয়ে শীর্ষে মুশফিকের মোহামেডান

লেস্টার সিটি থেকে অনুপ্রেরণা নিচ্ছেন মাশরাফি