Scores

‘সাকিব-ভক্ত’ কারাগারে, রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ

চট্টগ্রাম টেস্টে আইন ভেঙে মাঠে প্রবেশ করে নিজেকে সাকিব আল হাসানের ভক্ত দাবি করা ফয়সাল বেশ বিপাকেই পড়েছেন। শুক্রবার (৬ সেপ্টেম্বর) আটকের পর এবার চট্টগ্রামের এই ‘উন্মাদ’ ক্রিকেট সমর্থককে প্রেরণ করা হয়েছে কারাগারে, চাওয়া হয়েছে রিমান্ডও।

‘সাকিব-ভক্ত’ কারাগারে, রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ

শুক্রবার (৬ সেপ্টেম্বর) অনধিকার সত্ত্বেও মাঠে প্রবেশ করে সাকিব আল হাসানের দিকে ছুটে গিয়েছিলেন ভক্ত ফয়সাল। এরপর তাকে পাকড়াও করে পুলিশ। নিয়ম ভঙ্গ করে মাঠে প্রবেশের অপরাধে গ্রেপ্তারও দেখানো হয়। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা ঐ ভক্তের বিরুদ্ধে স্টেডিয়ামে অনধিকার প্রবেশ ও খেলোয়াড়দের মধ্যে ভীতির সঞ্চার করার অভিযোগে মামলা করেন।

Also Read - ফারজানাকে টপকে রেকর্ড গড়লেন সানজিদা


সেই মামলায় ফয়সালকে আদালতে তোলা হয় শনিবার (৭ সেপ্টেম্বর)। আদালতে তোলার পর তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়। যদিও পুলিশের পক্ষ থেকে ৩ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।

চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম শফি উদ্দীনের আদালত ফয়সালকে কারাগারে প্রেরণ করেন। অধিকতর সিদ্ধান্তের জন্য অর্থাৎ তার রিমান্ড ও সাজার ভবিষ্যত জানতে রবিবার (৮ সেপ্টেম্বর) ফয়সালকে আবারো আদালতে তোলা হবে।

ম্যাচ চলাকালে তো বটেই, খেলোয়াড় বা দলের অনুশীলন চলাকালেও অনুমতি ছাড়া মাঠে প্রবেশ করতে পারেন না সমর্থক বা দর্শকদের কেউ। তবে ফয়সাল সেই নিয়মের তোয়াক্কা করেননি।

নিজেকে সাকিবের পাঁড় ভক্ত দাবি করা ফয়সাল চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনের খেলা চলাকালে মাঠে ঢুকে স্যালুট করে সাকিবকে ফুল নিবেদন করেন, জড়িয়েও ধরেন। পরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা তাকে আটক করেন।

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

Related Articles

কোন দিকে যাবেন বুঝতে পারছেন না মোসাদ্দেক!

নেতৃত্ব না দিতে হলেই ভালো সাকিবের

দিনভর বৃষ্টিও বাঁচাতে পারল না বাংলাদেশকে

বাংলাদেশ দলকে একহাত নিলেন শামীম চৌধুরী

এবার মুখের কথায়ও আফগানদের হুংকার!